প্রস্থান

অনুবাদঃ মোহাম্মদ আসাদুল্লাহ :  আস্তাবল থেকে আমার ঘোড়াটি আনতে বললাম। চাকরটি আমার আদেশ বুঝতে পারল না। সুতরাং নিজেই আস্তাবলে গেলাম। ঘোড়াকে জিন পরালাম। তারপর উঠে বসলাম। দূরে ভেঁপুর শব্দ শোনা গেল। চাকরকে জিজ্ঞেস করলাম এই শব্দের অর্থ কী। সে কিছুই শুনেনি বলে জানাল। তবে গেইটের কাছে আসতেই সে আমাকে থামাল।জিজ্ঞেস করল, ‘মালিক, কোথায় যাচ্ছ তুমি?’

‘আমি জানি না’ বললাম আমি। ‘শুধু জানি যে, এখান থেকে বাইরে কোথাও, আর কিছুই না। শুধু এভাবেই আমি আমার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি।’

‘সুতরাং তুমি তো তোমার লক্ষ্য জানো’ বলল সে।

আমি উত্তর দিলাম, ‘তোমাকে আগেই বলেছি। এখান থেকে বাইরে। সেটাই আমার গন্তব্য।’

‘সাথে তো কিছুই নাওনি তুমি’ সে বলল।

‘কিছুই দরকার নেই আমার’ বললাম আমি। ‘এই যাত্রাটি এতো দীর্ঘ যে, অনাহারে আমি মারা যাবই। যদি পথে কিছু না পাই। কোনো ধরণের সরবরাহই আমাকে বাঁচাতে পারবে না। সৌভাগ্যক্রমে, সত্যিকার অর্থেই এটি একটি বিশাল ভ্রমণ।   সূূএ:ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» “বিডিএস বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করুন” জেডএসওদের প্রতি ভূমিমন্ত্রী

» রিয়েলমি নোট ৫০ কিনতে আউটলেটগুলোতে গ্রাহকের উপচে পড়া ভীড়

» কৃষিখাতে যুগান্তকারী পরিবর্তন আনা সম্ভব-সমাজকল্যাণমন্ত্রী ডা. দীপু মনি, এমপি

» পিপিএম পদক পেলেন নওগাঁর এসপি রাশিদুল হক

» সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সব ধরনের ফি দেওয়া যাবে নগদ-এ

» শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে-ধর্মমন্ত্রী

» প্রথম ছবিতেই বাবার সঙ্গে অভিনয় করবেন সুহানা!

» বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

» সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন ১০৬ বারের মতো পেছাল

» নিরাপদ-পরিবেশবান্ধব শিল্প-কারখানা গড়ে তুলতে হবে: রাষ্ট্রপতি

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

প্রস্থান

অনুবাদঃ মোহাম্মদ আসাদুল্লাহ :  আস্তাবল থেকে আমার ঘোড়াটি আনতে বললাম। চাকরটি আমার আদেশ বুঝতে পারল না। সুতরাং নিজেই আস্তাবলে গেলাম। ঘোড়াকে জিন পরালাম। তারপর উঠে বসলাম। দূরে ভেঁপুর শব্দ শোনা গেল। চাকরকে জিজ্ঞেস করলাম এই শব্দের অর্থ কী। সে কিছুই শুনেনি বলে জানাল। তবে গেইটের কাছে আসতেই সে আমাকে থামাল।জিজ্ঞেস করল, ‘মালিক, কোথায় যাচ্ছ তুমি?’

‘আমি জানি না’ বললাম আমি। ‘শুধু জানি যে, এখান থেকে বাইরে কোথাও, আর কিছুই না। শুধু এভাবেই আমি আমার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি।’

‘সুতরাং তুমি তো তোমার লক্ষ্য জানো’ বলল সে।

আমি উত্তর দিলাম, ‘তোমাকে আগেই বলেছি। এখান থেকে বাইরে। সেটাই আমার গন্তব্য।’

‘সাথে তো কিছুই নাওনি তুমি’ সে বলল।

‘কিছুই দরকার নেই আমার’ বললাম আমি। ‘এই যাত্রাটি এতো দীর্ঘ যে, অনাহারে আমি মারা যাবই। যদি পথে কিছু না পাই। কোনো ধরণের সরবরাহই আমাকে বাঁচাতে পারবে না। সৌভাগ্যক্রমে, সত্যিকার অর্থেই এটি একটি বিশাল ভ্রমণ।   সূূএ:ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com