রিডিং রুমে যে পরিবর্তন বাচ্চার পড়ায় মনোসংযোগ বাড়াবে

এখনকার বাচ্চাদের পড়াশোনায় মন বসাতে হিমশিম খেতে হয় মা-বাবাকে। যখন হাজার প্রচেষ্টা সত্ত্বেও তার পড়ায় মন বসাতে পারছেন না, তখন মেনে চলতে পারেন বাস্তু পদ্ধতি। বাচ্চার পড়ার ঘরে কয়টি পরিবর্তন আনুন। দেখবেন মুহূর্তে কাজ হবে। বাস্তু মেনে, বাচ্চার পড়ার ঘর সাজান। উপকার হবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক রিডিং রুমে যে পরিবর্তন বাচ্চার পড়ায় মনোসংযোগ বাড়াবে সে সম্পর্কে-

 

বাচ্চার পড়ার ঘরে ক্রিম, হালকা বেগুনি, হালকা সবুজ, আকাশি, হলুদ, বাদামি রং করাতে পারেন। এই রংগুলো বাচ্চার মনোসংযোগ বাড়াতে সাহায্য করে। বাস্তু মতে, এই রংগুলো বাচ্চার জন্য শুভ। এতে পড়ায় মনোযোগ বাড়বে। বাচ্চার উন্নতি করতে চাইলে সবার আগের ঘরের রং পরিবর্তন করুন।

পড়ায় মন বসাতে আরো একটি জিনিস অবশ্যই মেনে চলুন। যেমন, বাচ্চাকে পড়তে বসান পূর্ব দিকে মুখ করে। শাস্ত্র মতে, পূর্ব দিকে পড়াশোনা করলে উন্নতি হয়। যে কারণে, চাকরিপ্রার্থীদেরও পূর্ব দিকে মুখ করে পড়াশোনার কথা উল্লেখ রয়েছে শাস্ত্রে।

 

বাচ্চাকে কখনো খাটে বসে পড়ার অভ্যেস বদল করুন। চেয়ারে বসে পড়লে মনোসংযোগ বাড়ে। বাস্তু মতে, কাঠের টেবিলে বসে পড়াশোনা করলে উন্নতি ঘটবে। আর পড়ার টেবিলে স্তূপাকৃতি করে বই রাখবেন না। এতে ঘরে নেতিবাচক শক্তি তৈরি হয়। যা পড়াশোনায় খারাপ প্রভাব পড়ে। টেবিলের ওপর কমপিউটার থাকলে, তার তার সুন্দর ভাবে বেঁধে রাখুন।

 

পড়ার টেবিলে ধুলো থাকলে কিংবা পড়া টেবিলে ধুলো থাকলে দেখা দিতে পারে বাস্তুদোষ। যা মনসংযোগের ব্যাঘাত ঘটায়। তাই বাচ্চার পড়ায় উন্নতি ঘটাতে বাধা দেয়। নিয়মিত বাচ্চার পড়ার টেবিল ও বইয়ের তাক পরিষ্কার করুন। তাহলে দূর হবে সব বাস্তুদোষ।

 

অপ্রয়োজনীয় কাগজ পত্র জমিয়ে রাখবেন না। এতে নেতিবাচক এনার্জি তৈরি হয়। যা উন্নতিতে বাধা দেয়। সঙ্গে বাচ্চার মনোসংযোগ ব্যাঘাত ঘটায়। তাই বাচ্চার বাচ্চার পড়ায় মন বসাতে মেনে চলুন বাস্তু টোটকা। বাচ্চার পড়ার ঘরে কয়টি পরিবর্তন আনুন। দেখবেন মুহূর্তে কাজ হবে। বাস্তু মেনে, বাচ্চার পড়ার ঘর সাজান। উপকার হবেন।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» মুরগির খামারের পাশে অভিনব কায়দায় লুকিয়ে রাখা বিদেশি অস্ত্র উদ্ধার,৩ যুবক গ্রেফতার

» পাকিস্তান এখন দেউলিয়া হওয়ার পথে : মোস্তফা জব্বার

» বিএনপি মুক্ত করার নামে শৃঙ্খল পরানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত: ওবায়দুল কাদের

» রাজধানীতে চোরাই মোবাইল চোরচক্রের মূলহোতাসহ ১১ জন গ্রেফতার

» ঢাবির ৫৩তম সমাবর্তনের অনলাইনে আবেদন শুরু

» হবিগঞ্জে ২৩ স্মার্টফোনসহ ১জন আটক

» সারাদেশে বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে

» নির্বাচন তো করতেই চাই, সেটা হতে হবে নির্বাচনের মতো: মির্জা ফখরুল

» হোয়াটসঅ্যাপে আর স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে না

» মধুমতী সেতু উদ্বোধন ১০ অক্টোবর

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

রিডিং রুমে যে পরিবর্তন বাচ্চার পড়ায় মনোসংযোগ বাড়াবে

এখনকার বাচ্চাদের পড়াশোনায় মন বসাতে হিমশিম খেতে হয় মা-বাবাকে। যখন হাজার প্রচেষ্টা সত্ত্বেও তার পড়ায় মন বসাতে পারছেন না, তখন মেনে চলতে পারেন বাস্তু পদ্ধতি। বাচ্চার পড়ার ঘরে কয়টি পরিবর্তন আনুন। দেখবেন মুহূর্তে কাজ হবে। বাস্তু মেনে, বাচ্চার পড়ার ঘর সাজান। উপকার হবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক রিডিং রুমে যে পরিবর্তন বাচ্চার পড়ায় মনোসংযোগ বাড়াবে সে সম্পর্কে-

 

বাচ্চার পড়ার ঘরে ক্রিম, হালকা বেগুনি, হালকা সবুজ, আকাশি, হলুদ, বাদামি রং করাতে পারেন। এই রংগুলো বাচ্চার মনোসংযোগ বাড়াতে সাহায্য করে। বাস্তু মতে, এই রংগুলো বাচ্চার জন্য শুভ। এতে পড়ায় মনোযোগ বাড়বে। বাচ্চার উন্নতি করতে চাইলে সবার আগের ঘরের রং পরিবর্তন করুন।

পড়ায় মন বসাতে আরো একটি জিনিস অবশ্যই মেনে চলুন। যেমন, বাচ্চাকে পড়তে বসান পূর্ব দিকে মুখ করে। শাস্ত্র মতে, পূর্ব দিকে পড়াশোনা করলে উন্নতি হয়। যে কারণে, চাকরিপ্রার্থীদেরও পূর্ব দিকে মুখ করে পড়াশোনার কথা উল্লেখ রয়েছে শাস্ত্রে।

 

বাচ্চাকে কখনো খাটে বসে পড়ার অভ্যেস বদল করুন। চেয়ারে বসে পড়লে মনোসংযোগ বাড়ে। বাস্তু মতে, কাঠের টেবিলে বসে পড়াশোনা করলে উন্নতি ঘটবে। আর পড়ার টেবিলে স্তূপাকৃতি করে বই রাখবেন না। এতে ঘরে নেতিবাচক শক্তি তৈরি হয়। যা পড়াশোনায় খারাপ প্রভাব পড়ে। টেবিলের ওপর কমপিউটার থাকলে, তার তার সুন্দর ভাবে বেঁধে রাখুন।

 

পড়ার টেবিলে ধুলো থাকলে কিংবা পড়া টেবিলে ধুলো থাকলে দেখা দিতে পারে বাস্তুদোষ। যা মনসংযোগের ব্যাঘাত ঘটায়। তাই বাচ্চার পড়ায় উন্নতি ঘটাতে বাধা দেয়। নিয়মিত বাচ্চার পড়ার টেবিল ও বইয়ের তাক পরিষ্কার করুন। তাহলে দূর হবে সব বাস্তুদোষ।

 

অপ্রয়োজনীয় কাগজ পত্র জমিয়ে রাখবেন না। এতে নেতিবাচক এনার্জি তৈরি হয়। যা উন্নতিতে বাধা দেয়। সঙ্গে বাচ্চার মনোসংযোগ ব্যাঘাত ঘটায়। তাই বাচ্চার বাচ্চার পড়ায় মন বসাতে মেনে চলুন বাস্তু টোটকা। বাচ্চার পড়ার ঘরে কয়টি পরিবর্তন আনুন। দেখবেন মুহূর্তে কাজ হবে। বাস্তু মেনে, বাচ্চার পড়ার ঘর সাজান। উপকার হবেন।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com