যে দেশে মাত্র ৫৭ টাকা বিনিয়োগেই মেলে প্রায় ৩৯ লাখ!

চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পরে বার্ধক্যের মত একটি কঠিন সময়ে যদি আপনি অর্থনৈতিকভাবে সক্ষম থাকতে চান তাহলে অবশ্যই সময় থাকতে বিনিয়োগের প্রয়োজন। তবে, সেই বিনিয়োগ এমন জায়গায় করতে হবে যেখানে ঝুঁকির সম্ভাবনা থাকে একদম কম। তাই, অবসর জীবন নিয়ে চিন্তিতদের জন্য ভারতে চালু হয়েছে নতুন এক পেনশন স্কিমের, যাতে মাত্র ৫০ রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫৭ টাকা) বিনিয়োগ করলেই চাকরি শেষে মিলবে ৩৪ লাখ রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩৯ লাখ টাকা।

 

তবে ন্যাশনাল পেনশন স্কিম নামে এই বিনিয়োগে প্রতিদিন বিনিয়োগ করতে হবে ৫০ রুপি করে। অর্থাৎ মাসে এক হাজার ৫০০ রুপি।

 

এই স্কিমে বিনিয়োগকারীরা ২৫ বছর বয়সেই বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। টানা ৩৫ বছর চলবে এই বিনিয়োগ। এতে মোট বিনিয়োগের পরিমাণ দাঁড়াবে ৬ লাখ ৩০ হাজার রুপি। পাশাপাশি, বিনিয়োগের পরিমাণের ওপর প্রাপ্ত মোট সুদ ২৭.৯ লাখ রুপি। সুতরাং, পেনশনের সময় মোট জমা হবে ৩৪.১৯ লাখ রুপি। এছাড়াও, এই স্কিমে মোট সঞ্চয়ীকৃত করের পরিমাণ হবে ১.৮৯ লাখ রুপি।

 

এই স্কিমে বিনিয়োগ করার পরে, যখন কোনও চাকরিজীবী ব্যক্তির অবসর গ্রহণের বয়স হবে, তিনি বিনিয়োগের ৬০ শতাংশ তুলতে পারবেন। অর্থাৎ, অবসর গ্রহণের সময় ২০.৫১ লাখ রুপি পর্যন্ত তোলার সুবিধা পাবেন। এইভাবে, এই স্কিমটি একটি ভাল রিটার্ন সহায়তাও দেবে অবসরপ্রাপ্ত ব্যক্তি।

 

এরপর অবশিষ্ট পরিমাণ বার্ষিক স্কিমের অধীনে, প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট পেনশনের জন্য ব্যবহার করা যেতে যাবে। সরকার যদি ৮ শতাংশ হারে সুদ দেয়, তাহলে ওই ব্যক্তি মাসে ৯,০০০ রুপি পর্যন্ত পেনশন পেতে পারেন। ন্যাশনাল পেনশন স্কিম থেকে একসাথে সমস্ত টাকা তোলা যাবে না। বরং এই স্কিমের অধীনে, মোট পরিমাণের ৬০ শতাংশ তোলা যায় এবং বাকি ৪০ শতাংশ একটি বার্ষিক স্কিমে বিনিয়োগ করতে হয়। সূত্র: ডিএনএ ইন্ডিয়া

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» দুর্ভিক্ষের আগে দুর্বৃত্ত সরকারকে বিদায় দিতে হবে: নুর

» কলা হাতে কী বার্তা দিলেন শ্রীলেখা?

» ‘সুস্থ মানবসম্পদ তৈরির অন্যতম মাধ্যম খেলাধুলা’

» ভোটকেন্দ্র কমিটি করে এখন থেকেই প্রস্তুতি নিন: ফারুক খান

» জনসভায় যাওয়ার চিন্তা থাকলে খালেদা জেলে যাবেন: তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী

» কোম্পানীগঞ্জে আ.লীগের নেতৃত্বে কাদের মির্জা-বাদল

» পাড়া উৎস হবে ঢাকা শহরের সব এলাকায় : আতিক

» রাজধানীতে বাবার সঙ্গে অভিমানে ছেলের আত্মহত্যা

» পাঁচবিবিতে মেয়র কাপ মিনি ফুটবল নাইট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

» পাহাড়ের পরিবেশ অশান্ত করেছেন জিয়া: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

যে দেশে মাত্র ৫৭ টাকা বিনিয়োগেই মেলে প্রায় ৩৯ লাখ!

চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পরে বার্ধক্যের মত একটি কঠিন সময়ে যদি আপনি অর্থনৈতিকভাবে সক্ষম থাকতে চান তাহলে অবশ্যই সময় থাকতে বিনিয়োগের প্রয়োজন। তবে, সেই বিনিয়োগ এমন জায়গায় করতে হবে যেখানে ঝুঁকির সম্ভাবনা থাকে একদম কম। তাই, অবসর জীবন নিয়ে চিন্তিতদের জন্য ভারতে চালু হয়েছে নতুন এক পেনশন স্কিমের, যাতে মাত্র ৫০ রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫৭ টাকা) বিনিয়োগ করলেই চাকরি শেষে মিলবে ৩৪ লাখ রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩৯ লাখ টাকা।

 

তবে ন্যাশনাল পেনশন স্কিম নামে এই বিনিয়োগে প্রতিদিন বিনিয়োগ করতে হবে ৫০ রুপি করে। অর্থাৎ মাসে এক হাজার ৫০০ রুপি।

 

এই স্কিমে বিনিয়োগকারীরা ২৫ বছর বয়সেই বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন। টানা ৩৫ বছর চলবে এই বিনিয়োগ। এতে মোট বিনিয়োগের পরিমাণ দাঁড়াবে ৬ লাখ ৩০ হাজার রুপি। পাশাপাশি, বিনিয়োগের পরিমাণের ওপর প্রাপ্ত মোট সুদ ২৭.৯ লাখ রুপি। সুতরাং, পেনশনের সময় মোট জমা হবে ৩৪.১৯ লাখ রুপি। এছাড়াও, এই স্কিমে মোট সঞ্চয়ীকৃত করের পরিমাণ হবে ১.৮৯ লাখ রুপি।

 

এই স্কিমে বিনিয়োগ করার পরে, যখন কোনও চাকরিজীবী ব্যক্তির অবসর গ্রহণের বয়স হবে, তিনি বিনিয়োগের ৬০ শতাংশ তুলতে পারবেন। অর্থাৎ, অবসর গ্রহণের সময় ২০.৫১ লাখ রুপি পর্যন্ত তোলার সুবিধা পাবেন। এইভাবে, এই স্কিমটি একটি ভাল রিটার্ন সহায়তাও দেবে অবসরপ্রাপ্ত ব্যক্তি।

 

এরপর অবশিষ্ট পরিমাণ বার্ষিক স্কিমের অধীনে, প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট পেনশনের জন্য ব্যবহার করা যেতে যাবে। সরকার যদি ৮ শতাংশ হারে সুদ দেয়, তাহলে ওই ব্যক্তি মাসে ৯,০০০ রুপি পর্যন্ত পেনশন পেতে পারেন। ন্যাশনাল পেনশন স্কিম থেকে একসাথে সমস্ত টাকা তোলা যাবে না। বরং এই স্কিমের অধীনে, মোট পরিমাণের ৬০ শতাংশ তোলা যায় এবং বাকি ৪০ শতাংশ একটি বার্ষিক স্কিমে বিনিয়োগ করতে হয়। সূত্র: ডিএনএ ইন্ডিয়া

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com