বডি শেমিং নিয়ে সরব শ্রীলেখা

‘বডি শেমিং’ কথাটা শুনতে ততটা ভয়ানক না হলেও বাস্তবে এটি সত্যি ভয়ংকর আকার ধারণ করেছে। চেহারার জন্য সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে বেশিরভাগ নারীকেই। নারী দিবসে এই নিয়েই আপত্তি তুললেন শ্রীলেখা মিত্র। এক সাক্ষাৎকারে টিনসেল টাউনের মধ্যে হওয়া বডি শেমিংকেই তুলে ধরলেন তিনি। বহু বছর ধরে অভিনয়ের দুনিয়ায় আছেন শ্রীলেখা। বেশ কিছু ভালো ছবি তিনি উপহার দিয়েছেন দর্শককে। কিন্তু বডি শেমিং থেকে তিনিও বাদ পড়েননি। বরং, টলিউডের এক মহিলা সহকর্মীই যখন শ্রীলেখার চেহারা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল, তখন নিন্দার ঝড় বয়েছিল চারিদিকে।

এই ব্যাপারে অভিনেত্রী জানান, আমাকে এখনও শুনতে হয়, তুমি এত মোটা হয়ে গিয়েছ কেন?, কীভাবে এত ওজন বাড়ল তোমার, মোটা হওয়ার পরেও ছোট পোশাকে ছবি তুলতে লজ্জা করে না? – এমন সব প্রশ্ন। আর এই বডি শেমিংয়ে আমি সম্প্রতি সময়ে তিতিবিরক্ত। কীভাবে কেউ কোনও মানুষকে তার চেহারা, তার গায়ের রং বা তাঁর উচ্চতা দিয়ে বিচার করতে পারে? আমার মেয়ের জন্মের পর আমার ওজন বেড়েছে। আর এটা যে কোনও মায়ের জন্য স্বাভাবিক। কিন্তু বলুন তো, কেন মানুষ ইচ্ছে হলেই এই নিয়ে মন্তব্য করবে?

টিনসেল টাউনে তার সঙ্গে হওয়া ঘটনাও এদিন খোলাসা করেন শ্রীলেখা। জানান, এরকম অনেকবার হয়েছে পরিচালক আমাকে ফোন করে বলেছে তিনি আমাকে কাজ দিতে পারবেন না কারণ আমার ওজন বেশি। ভাবুন তো? তারপর আমি এটা বুঝতে পারি আমাকে ওজন কমাতে হবে কি হবে না, সেটা আমি ঠিক করব। আমিই ঠিক করব কোন পোশাকে আমাকে ভালো দেখায়, কোন পোশাকে খারাপ। আমার ঘনিষ্ঠরাও আমাকে পরামর্শ দিয়েছে আমার নিজেকে ঢেকে রাখা উচিত কারণ আমার ফিগার ভালো না। কিন্তু আমি সত্যি এসব নিয়ে ভাবিত নই, পাত্তাও দেই না, কারণ আমি জানি কীভাবে আত্মবিশ্বাসের সাথে শর্ট ড্রেস ক্যারি করতে হয়।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» সৌদি আরবকে হারিয়ে আর্জেন্টিনার ওপর চাপ বাড়ালো পোল্যান্ড

» চাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত

» ইতালিতে ভূমিধসে নিখোঁজ ১৩

» সরকারকে ঘাড় ধরে নামাতে দেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ : মির্জা আব্বাস

» কেরাণীগঞ্জে বাস থেকে ৬৩৭ ভরি স্বর্ণসহ ১২ জন আটক

» সবাইকে ডোপ টেস্টের আওতায় আনা দরকার: ডেপুটি স্পিকার

» মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চুমকি, সম্পাদক শিলা

» সমাবেশের নামে আস্ফালন সহ্য করা হবে না: হানিফ

» পাঁচবিবি প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত 

» জমাদিউল আউয়াল মাসের গুরুত্ব ও ফজিলত

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

বডি শেমিং নিয়ে সরব শ্রীলেখা

‘বডি শেমিং’ কথাটা শুনতে ততটা ভয়ানক না হলেও বাস্তবে এটি সত্যি ভয়ংকর আকার ধারণ করেছে। চেহারার জন্য সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে বেশিরভাগ নারীকেই। নারী দিবসে এই নিয়েই আপত্তি তুললেন শ্রীলেখা মিত্র। এক সাক্ষাৎকারে টিনসেল টাউনের মধ্যে হওয়া বডি শেমিংকেই তুলে ধরলেন তিনি। বহু বছর ধরে অভিনয়ের দুনিয়ায় আছেন শ্রীলেখা। বেশ কিছু ভালো ছবি তিনি উপহার দিয়েছেন দর্শককে। কিন্তু বডি শেমিং থেকে তিনিও বাদ পড়েননি। বরং, টলিউডের এক মহিলা সহকর্মীই যখন শ্রীলেখার চেহারা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল, তখন নিন্দার ঝড় বয়েছিল চারিদিকে।

এই ব্যাপারে অভিনেত্রী জানান, আমাকে এখনও শুনতে হয়, তুমি এত মোটা হয়ে গিয়েছ কেন?, কীভাবে এত ওজন বাড়ল তোমার, মোটা হওয়ার পরেও ছোট পোশাকে ছবি তুলতে লজ্জা করে না? – এমন সব প্রশ্ন। আর এই বডি শেমিংয়ে আমি সম্প্রতি সময়ে তিতিবিরক্ত। কীভাবে কেউ কোনও মানুষকে তার চেহারা, তার গায়ের রং বা তাঁর উচ্চতা দিয়ে বিচার করতে পারে? আমার মেয়ের জন্মের পর আমার ওজন বেড়েছে। আর এটা যে কোনও মায়ের জন্য স্বাভাবিক। কিন্তু বলুন তো, কেন মানুষ ইচ্ছে হলেই এই নিয়ে মন্তব্য করবে?

টিনসেল টাউনে তার সঙ্গে হওয়া ঘটনাও এদিন খোলাসা করেন শ্রীলেখা। জানান, এরকম অনেকবার হয়েছে পরিচালক আমাকে ফোন করে বলেছে তিনি আমাকে কাজ দিতে পারবেন না কারণ আমার ওজন বেশি। ভাবুন তো? তারপর আমি এটা বুঝতে পারি আমাকে ওজন কমাতে হবে কি হবে না, সেটা আমি ঠিক করব। আমিই ঠিক করব কোন পোশাকে আমাকে ভালো দেখায়, কোন পোশাকে খারাপ। আমার ঘনিষ্ঠরাও আমাকে পরামর্শ দিয়েছে আমার নিজেকে ঢেকে রাখা উচিত কারণ আমার ফিগার ভালো না। কিন্তু আমি সত্যি এসব নিয়ে ভাবিত নই, পাত্তাও দেই না, কারণ আমি জানি কীভাবে আত্মবিশ্বাসের সাথে শর্ট ড্রেস ক্যারি করতে হয়।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com