এই সময় ফেসিয়াল

ত্বক, তা হোক মুখের কিংবা গলার- তাতে সুস্থতার দীপ্তি আনতে দরকার ফেসিয়াল। প্রতিদিন নয়, সপ্তাহান্তে দুই কিংবা তিন দিনই যথেষ্ট।
 

বাইরে শীতের আগমনী বার্তা, সকালে হালকা গরম, আর রাতে বিশেষত শেষ রাতে ভীষণ ঠাণ্ডা অনুভূত হয়। এমন আবহাওয়ায় দিনের গরম সামাল দিয়ে ত্বককে প্রাণবন্ত রাখতে করতে পারেন ফেসিয়াল।

বিউটি জোন ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের পরিচালক ও বিশিষ্ট রূপ বিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম বলেন, ‘সময়টা এখন শীতের আগ মুহূর্তের। হেমন্তের এমন দিন-ক্ষণে ত্বকে রোদে পোড়াভাব বেড়ে যায়। সঙ্গে ধুলোবালির প্রকোপ তো আছেই! তৈলাক্ত ত্বকে সময়টা খানিকটা ঝামেলার। এ ধরনের ত্বকে প্রয়োজন ভেষজ ফেসিয়াল। এ ছাড়া এমন দিনে সব ধরনের ত্বকের জন্য ফ্রুটস ফেসিয়ালও ভীষণ কার্যকরী।’ 

এমন দিনে রূপচর্চার সঙ্গী হতে পারে চালের গুঁড়ার প্যাক। কথিত আছে, প্রাচ্যের নারীদের মধ্যে স্ক্রাবার হিসেবে এক সময় এর ব্যাপক জনপ্রিয়তা ছিল। চালের গুঁড়ায় রয়েছে যথেষ্ট মিনারেল। সানট্যান দূর করা, ত্বক টানটান করে তোলা, চেহারায় ফরসা আভা আনা, অ্যান্টি এজিং ফেস প্যাক হিসেবে এর জুড়ি নেই। ব্রণ এবং ডার্ক সার্কেল কমাতেও চালের গুঁড়া বেশি কার্যকর। দুই টেবিল চামচ চালের মিহি গুঁড়া, এক টেবিল চামচ মধু এবং দুই টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল নিয়ে প্যাকটি তৈরি করুন। গোলাপজল দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে প্যাকটি মিনিট দশেক পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। স্ক্রাবার হিসেবে কফির গুণ সম্পর্কে সবারই জানা। তিন চা চামচ কফি, দুই টেবিল চামচ ভিনিগার, দুই চা চামচ সি সল্ট, এক চা চামচ আদার রস মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে মুখে লাগিয়ে নিন। মুখের পাশাপাশি গলা ও ঘাড়ে লাগাতে পারেন। পাঁচ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের মরা কোষ, ধুলো-ময়লা তো দূর হবে। সম্ভব হলে ১৫ দিন অন্তর ফেসিয়াল করবেন। তা না হলে মাসে একবার ফেসিয়াল করতে হবে।

চন্দন গুঁড়ার ফেস স্ক্রাব

চন্দন গুঁড়া, স্যাফরন ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করে নিন। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ম্যাসাজ করে ১০ মিনিট রেখে দিন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি দাগ-ছোপ, সানট্যান দূর করবে।
আমন্ড ফেস স্ক্রাব

চার-পাঁচটা বাদাম সারা রাত ভিজিয়ে রেখে সকালে পেস্ট করে নিন। বাদাম পেস্টের সঙ্গে দুধ মিশিয়ে আঙ্গুলের ডগা দিয়ে মুখ ও গলায় লাগিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকে পুষ্টি জোগায় এবং ত্বককে রাখে ময়েশ্চারাইজ।

পেঁপের ফেস স্ক্রাব

কয়েক টুকরা পাকা পেঁপের সঙ্গে সামান্য চিনি মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। প্যাকটি মুখে ও গলায় মেখে নিন। ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিন।  এটি ত্বককে রাখবে ময়েশ্চারাইজ, সঙ্গে ত্বককে করবে তুলতুলে।

 

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ১৫ টাকায় ম্যাগনেট মামার খিচুড়ি

» একাত্তর ছেড়ে ডিবিসিতে যোগ দিলেন নাজনীন মুন্নী

» উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুর্বৃত্তের গুলিতে শিশু নিহত

» প্রশ্নফাঁস চেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে :

» থানাকে জনগণের ভরসাস্থল করতে চাই: আইজিপি

» করোনা আক্রান্ত মেয়র আতিক

» চুমু নিয়ে রাশমিকার তিক্ত অভিজ্ঞতা

» আপিল বিভাগে জানা যাবে শিশুটির বাবা কে?

» সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত, নদীবন্দরে ১

» মোবাইল ছিনিয়ে পালানোর সময় ছিনতাইকারী আটক

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

এই সময় ফেসিয়াল

ত্বক, তা হোক মুখের কিংবা গলার- তাতে সুস্থতার দীপ্তি আনতে দরকার ফেসিয়াল। প্রতিদিন নয়, সপ্তাহান্তে দুই কিংবা তিন দিনই যথেষ্ট।
 

বাইরে শীতের আগমনী বার্তা, সকালে হালকা গরম, আর রাতে বিশেষত শেষ রাতে ভীষণ ঠাণ্ডা অনুভূত হয়। এমন আবহাওয়ায় দিনের গরম সামাল দিয়ে ত্বককে প্রাণবন্ত রাখতে করতে পারেন ফেসিয়াল।

বিউটি জোন ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের পরিচালক ও বিশিষ্ট রূপ বিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম বলেন, ‘সময়টা এখন শীতের আগ মুহূর্তের। হেমন্তের এমন দিন-ক্ষণে ত্বকে রোদে পোড়াভাব বেড়ে যায়। সঙ্গে ধুলোবালির প্রকোপ তো আছেই! তৈলাক্ত ত্বকে সময়টা খানিকটা ঝামেলার। এ ধরনের ত্বকে প্রয়োজন ভেষজ ফেসিয়াল। এ ছাড়া এমন দিনে সব ধরনের ত্বকের জন্য ফ্রুটস ফেসিয়ালও ভীষণ কার্যকরী।’ 

এমন দিনে রূপচর্চার সঙ্গী হতে পারে চালের গুঁড়ার প্যাক। কথিত আছে, প্রাচ্যের নারীদের মধ্যে স্ক্রাবার হিসেবে এক সময় এর ব্যাপক জনপ্রিয়তা ছিল। চালের গুঁড়ায় রয়েছে যথেষ্ট মিনারেল। সানট্যান দূর করা, ত্বক টানটান করে তোলা, চেহারায় ফরসা আভা আনা, অ্যান্টি এজিং ফেস প্যাক হিসেবে এর জুড়ি নেই। ব্রণ এবং ডার্ক সার্কেল কমাতেও চালের গুঁড়া বেশি কার্যকর। দুই টেবিল চামচ চালের মিহি গুঁড়া, এক টেবিল চামচ মধু এবং দুই টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল নিয়ে প্যাকটি তৈরি করুন। গোলাপজল দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে প্যাকটি মিনিট দশেক পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। স্ক্রাবার হিসেবে কফির গুণ সম্পর্কে সবারই জানা। তিন চা চামচ কফি, দুই টেবিল চামচ ভিনিগার, দুই চা চামচ সি সল্ট, এক চা চামচ আদার রস মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে মুখে লাগিয়ে নিন। মুখের পাশাপাশি গলা ও ঘাড়ে লাগাতে পারেন। পাঁচ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের মরা কোষ, ধুলো-ময়লা তো দূর হবে। সম্ভব হলে ১৫ দিন অন্তর ফেসিয়াল করবেন। তা না হলে মাসে একবার ফেসিয়াল করতে হবে।

চন্দন গুঁড়ার ফেস স্ক্রাব

চন্দন গুঁড়া, স্যাফরন ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করে নিন। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ম্যাসাজ করে ১০ মিনিট রেখে দিন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি দাগ-ছোপ, সানট্যান দূর করবে।
আমন্ড ফেস স্ক্রাব

চার-পাঁচটা বাদাম সারা রাত ভিজিয়ে রেখে সকালে পেস্ট করে নিন। বাদাম পেস্টের সঙ্গে দুধ মিশিয়ে আঙ্গুলের ডগা দিয়ে মুখ ও গলায় লাগিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকে পুষ্টি জোগায় এবং ত্বককে রাখে ময়েশ্চারাইজ।

পেঁপের ফেস স্ক্রাব

কয়েক টুকরা পাকা পেঁপের সঙ্গে সামান্য চিনি মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। প্যাকটি মুখে ও গলায় মেখে নিন। ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিন।  এটি ত্বককে রাখবে ময়েশ্চারাইজ, সঙ্গে ত্বককে করবে তুলতুলে।

 

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com