৪১ বছরের দাম্পত্যে ৬০ বার মামলা

দাম্পত্য কলহ খুব স্বাভাবিক একটা ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে বর্তমান সমাজে। কিছু একটা উনিশ-বিশ হলেই লেগে যায় ঝগড়া। সেই ঝগড়ার দৌড় কতদূর হতে পারে? বড়জোর দুই দিন কথা বন্ধ। আর ঘরের কর্ত্রী বেশি রেগে গেলে ঘরে রান্না বন্ধ। তারপর আবার একে অন্যের সঙ্গে মিলেমিশে যাওয়া।

 

তবে ভারতীয় এক দম্পতির কলহ পৌঁছেছে আদালত পর্যন্ত। একে অপরের বিরুদ্ধে কোর্টে গিয়ে ৬০ বার মামলা করেছেন। তাদের দাম্পত্য জীবনের ৪১ বছর। তবে এর মধ্যে ৩০ বছর এক ছাদের তলায় বাস করেছেন তারা। পরের ১১ বছর থেকেছেন আলাদা। তারপরও তাদের কলহ থামেনি।

সম্প্রতি ভারতের সুপ্রিম কোর্টের একটি মামলার শুনানির সময় জানা গেছে এমনই এক দম্পতির কথা। যারা একে অপরের বিরুদ্ধে ৬০ বার মামলা রুজু করেছেন। এ কথা প্রকাশ্যে আসতেই হতবাক হয়েছেন আদালতে উপস্থিত সবাই।

 

আইনি লড়াইয়ে আদালতে একে অপরকে টেনে এনেছেন! গণমাধ্যমে এ ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই তুমুল হইচই পড়ে যায়। তবে তাদের নাম-পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে।

৪১ বছরের দাম্পত্যে ৬০বার একে অপরের বিরুদ্ধে মামলা

সুপ্রিম কোর্টে ওই নারী ও তার স্বামীর একটি মামলার শুনানি চলছিল প্রধান বিচারপতি এনভি রমণার নেতৃত্বাধীন একটি বেঞ্চে। তাতে রয়েছেন বিচারপতি কৃষ্ণ মুরারি এবং বিচারপতি হিমা কোহলী।

একজন বিচারপতি মন্তব্য করেছেন, ‘কী আর করা যাবে! কিছু মানুষজন কেবল ঝগড়াঝাটি করতেই ভালোবাসেন! তারা সব সময়ই আদালতে থাকতে চান। নিজেদের আদালতে না দেখলে যেন ঘুম আসে না!’

 

তবে ওই নারী ও তার স্বামীকে কটাক্ষ করেই থেমে থাকেননি বিচারপতিরা। তাদের আইনজীবীরা যে সততার সঙ্গে নিজেদের কাজ করছেন না, সে কথাও মনে করছেন আদালত। অবশেষে এ যুগলের মধ্যে বিবাদ মেটাতে দাওয়াইও দিয়েছে শীর্ষ আদালত। তাদের দু’জনকে ধ্যান করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এ ছাড়াও বিচারকরা বলেছেন, মধ্যস্থতাকারীর মাধ্যমে তাদের এ বিবাদ মেটাতে হবে। আর নির্দিষ্ট সময়েই তা শেষ করতে হবে। এর মধ্যে তারা নতুন কোনো মামলা দায়ের করতে পারবেন না।    সূত্র: এনডিটিভি

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ডান কানে গুলিবিদ্ধ ট্রাম্প

» মসজিদ থেকে আইপিএসের ব্যাটারি চুরি করে পালানোর সময় জনতার হাতে আটক

» আজ রবিবার রাজধানীর যেসব মার্কেট-দোকানপাট বন্ধ থাকবে

» কোটা সমাধান আদালতের মাধ্যমেই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

» অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগোচ্ছে দেশ, ধারা অব্যাহত রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

» আপিল বিভাগের রায়ের পর কোটা নিয়ে কমিশন গঠনের সুযোগ নেই : তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

» রাস্তাঘাট বন্ধ না করে আদালতে এসে কথা বলুন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

» শিক্ষার্থীরাই হবে আগামী বাংলাদেশের কর্ণধার-ধর্মমন্ত্রী

» স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে জনপ্রতিনিধি ও কর্মকর্তাদের সম্মিলিত ভাবে কাজ করতে হবে- ধর্মমন্ত্রী

» প্রথম ৬ মাসে ব্র্যাক ব্যাংকের ৫,৫০০ কোটি টাকার নিট ডিপোজিট প্রবৃদ্ধি অর্জন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

৪১ বছরের দাম্পত্যে ৬০ বার মামলা

দাম্পত্য কলহ খুব স্বাভাবিক একটা ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে বর্তমান সমাজে। কিছু একটা উনিশ-বিশ হলেই লেগে যায় ঝগড়া। সেই ঝগড়ার দৌড় কতদূর হতে পারে? বড়জোর দুই দিন কথা বন্ধ। আর ঘরের কর্ত্রী বেশি রেগে গেলে ঘরে রান্না বন্ধ। তারপর আবার একে অন্যের সঙ্গে মিলেমিশে যাওয়া।

 

তবে ভারতীয় এক দম্পতির কলহ পৌঁছেছে আদালত পর্যন্ত। একে অপরের বিরুদ্ধে কোর্টে গিয়ে ৬০ বার মামলা করেছেন। তাদের দাম্পত্য জীবনের ৪১ বছর। তবে এর মধ্যে ৩০ বছর এক ছাদের তলায় বাস করেছেন তারা। পরের ১১ বছর থেকেছেন আলাদা। তারপরও তাদের কলহ থামেনি।

সম্প্রতি ভারতের সুপ্রিম কোর্টের একটি মামলার শুনানির সময় জানা গেছে এমনই এক দম্পতির কথা। যারা একে অপরের বিরুদ্ধে ৬০ বার মামলা রুজু করেছেন। এ কথা প্রকাশ্যে আসতেই হতবাক হয়েছেন আদালতে উপস্থিত সবাই।

 

আইনি লড়াইয়ে আদালতে একে অপরকে টেনে এনেছেন! গণমাধ্যমে এ ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই তুমুল হইচই পড়ে যায়। তবে তাদের নাম-পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে।

৪১ বছরের দাম্পত্যে ৬০বার একে অপরের বিরুদ্ধে মামলা

সুপ্রিম কোর্টে ওই নারী ও তার স্বামীর একটি মামলার শুনানি চলছিল প্রধান বিচারপতি এনভি রমণার নেতৃত্বাধীন একটি বেঞ্চে। তাতে রয়েছেন বিচারপতি কৃষ্ণ মুরারি এবং বিচারপতি হিমা কোহলী।

একজন বিচারপতি মন্তব্য করেছেন, ‘কী আর করা যাবে! কিছু মানুষজন কেবল ঝগড়াঝাটি করতেই ভালোবাসেন! তারা সব সময়ই আদালতে থাকতে চান। নিজেদের আদালতে না দেখলে যেন ঘুম আসে না!’

 

তবে ওই নারী ও তার স্বামীকে কটাক্ষ করেই থেমে থাকেননি বিচারপতিরা। তাদের আইনজীবীরা যে সততার সঙ্গে নিজেদের কাজ করছেন না, সে কথাও মনে করছেন আদালত। অবশেষে এ যুগলের মধ্যে বিবাদ মেটাতে দাওয়াইও দিয়েছে শীর্ষ আদালত। তাদের দু’জনকে ধ্যান করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এ ছাড়াও বিচারকরা বলেছেন, মধ্যস্থতাকারীর মাধ্যমে তাদের এ বিবাদ মেটাতে হবে। আর নির্দিষ্ট সময়েই তা শেষ করতে হবে। এর মধ্যে তারা নতুন কোনো মামলা দায়ের করতে পারবেন না।    সূত্র: এনডিটিভি

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com