হঠাৎ কৃষকের অ্যাকাউন্টে ঢুকে পড়ল ১৭ লাখ টাকা, অতঃপর…

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্রের আওরঙ্গাবাদে। তার নাম জ্ঞানেশ্বর ওটে। একজন কৃষক। হঠাৎ তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকে পড়ল ১৫ লাখ রুপি, বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৭ লাখ টাকা।

 

এই টাকা পেয়ে ওই ভেবেছিলেন প্রতিশ্রুতি রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। করোনাকালে নাগরিকদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর এমন গুজব রটেছিল দেশজুড়ে। এবার তিনি সত্যি টাকা পেয়ে ঘটনাটি বিশ্বাসও করলেন। অ্যাকাউন্টে আসা সেই টাকা দিয়ে একটি বাড়ি বানান ওই কৃষক। কিন্তু ৬ মাস পর ব্যাংক জানায়, ভুল করে তার অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে ওই টাকা। অন্য কাউকে পাঠাতে গিয়ে ঢুকে গেছে তার অ্যাকাউন্টে। টাকা ফেরানোর ভাবনায় এখন ঘুম উড়ছে ওই কৃষকের।

 

গত বছরের আগস্টে নিজের জনধন অ্যাকাউন্টে হঠাৎই ঢুকে পড়ে এই টাকা। এত টাকা অ্যাকাউন্টে পেয়েই দেখে চোখ কপালে ওঠে জ্ঞানেশ্বরের। ভেবেছিলেন, ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে প্রত্যেককে ১৭ লাখ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি অবশেষে পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। খুশিতে মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়ে চিঠিও পাঠিয়েছিলেন। তারপর তার অ্যাকাউন্টে জমা পড়া টাকা থেকে ১০ লাখের মতো টাকা তুলে নিজের বাড়ি বানান জ্ঞানেশ্বর। মাস ছয়েক পর একদিন তার হাতে আসে ব্যাংকের চিঠি। তাতে লেখা, “৬ মাস আগে ভুল করে আপনার ব্যাংকের খাতায় বিপুল পরিমাণ অর্থ জমা পড়েছিল। ওই টাকা দ্রুত ফেরানোর ব্যবস্থা করুন।”

 

জানা যায়, ওই ১৭ লাখ টাকা আসলে পিম্পলওয়াড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের উন্নয়নের খাতে পাঠানো হয়েছিল, যা ব্যাংকের ভুলে গিয়ে ঢোকে জ্ঞানেশ্বরের অ্যাকাউন্টে। ভুল ধরা পড়তেই পেরিয়ে যায় ৬ মাস। চিঠি পেয়ে জ্ঞান হারানোর দশা জ্ঞানেশ্বরের!

 

তিনি বলেন, “মোদীজি পাঠিয়েছেন ভেবেই আমি সন্দেহ করিনি। এত দিনে ওই টাকায় বাড়ি বানিয়েছি। এখন শুনছি উন্নয়নের জন্য ওই টাকা পঞ্চায়েতকে পাঠানো হয়েছিল। ভুল করে তা চলে আসে আমার খাতায়। এখন আমি কী করব!”

 

নতুন বাড়িতে বসে জ্ঞানেশ্বরের আক্ষেপ, “দশ লাখের বেশি খরচ হয়ে গেছে। বাকি টাকা ছিল, তা ফিরিয়ে দিয়েছি। এখন এই ১০ লাখ টাকা আমি কোথা থেকে ফেরত দিব।” সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» প্রথমার্ধে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ১-০ গোলে এগিয়ে জাপান

» পাকিস্তানি কন্যা আয়েশার স্টাইলে মাধুরীর নাচ, ভিডিও ভাইরাল

» ১০ ডিসেম্বর বিএনপি-জামায়াতকে খুঁজে পাওয়া যাবে না : বাণিজ্যমন্ত্রী

» রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি, দাবি তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রীর

» রিজভী ও ইশরাকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

» যেখানে অনুমতি দেওয়া হয়েছে, বিএনপিকে সেখানেই সমাবেশ করতে হবে: হানিফ

» এক অনুষ্ঠানে বিয়ে করলেন ১০১ বর-কনে

» জনগণের ম্যান্ডেটে দেশ চলবে, কারো আস্ফালনে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

» বেশি লোক দেখাতেই নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে চায় বিএনপি: কৃষিমন্ত্রী

» বিকল্প ভেন্যু চাইলে প্রস্তাব দেবো, কিন্তু এখন বলবো না: আব্বাস

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

হঠাৎ কৃষকের অ্যাকাউন্টে ঢুকে পড়ল ১৭ লাখ টাকা, অতঃপর…

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্রের আওরঙ্গাবাদে। তার নাম জ্ঞানেশ্বর ওটে। একজন কৃষক। হঠাৎ তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঢুকে পড়ল ১৫ লাখ রুপি, বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৭ লাখ টাকা।

 

এই টাকা পেয়ে ওই ভেবেছিলেন প্রতিশ্রুতি রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। করোনাকালে নাগরিকদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর এমন গুজব রটেছিল দেশজুড়ে। এবার তিনি সত্যি টাকা পেয়ে ঘটনাটি বিশ্বাসও করলেন। অ্যাকাউন্টে আসা সেই টাকা দিয়ে একটি বাড়ি বানান ওই কৃষক। কিন্তু ৬ মাস পর ব্যাংক জানায়, ভুল করে তার অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে ওই টাকা। অন্য কাউকে পাঠাতে গিয়ে ঢুকে গেছে তার অ্যাকাউন্টে। টাকা ফেরানোর ভাবনায় এখন ঘুম উড়ছে ওই কৃষকের।

 

গত বছরের আগস্টে নিজের জনধন অ্যাকাউন্টে হঠাৎই ঢুকে পড়ে এই টাকা। এত টাকা অ্যাকাউন্টে পেয়েই দেখে চোখ কপালে ওঠে জ্ঞানেশ্বরের। ভেবেছিলেন, ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে প্রত্যেককে ১৭ লাখ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি অবশেষে পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। খুশিতে মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়ে চিঠিও পাঠিয়েছিলেন। তারপর তার অ্যাকাউন্টে জমা পড়া টাকা থেকে ১০ লাখের মতো টাকা তুলে নিজের বাড়ি বানান জ্ঞানেশ্বর। মাস ছয়েক পর একদিন তার হাতে আসে ব্যাংকের চিঠি। তাতে লেখা, “৬ মাস আগে ভুল করে আপনার ব্যাংকের খাতায় বিপুল পরিমাণ অর্থ জমা পড়েছিল। ওই টাকা দ্রুত ফেরানোর ব্যবস্থা করুন।”

 

জানা যায়, ওই ১৭ লাখ টাকা আসলে পিম্পলওয়াড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের উন্নয়নের খাতে পাঠানো হয়েছিল, যা ব্যাংকের ভুলে গিয়ে ঢোকে জ্ঞানেশ্বরের অ্যাকাউন্টে। ভুল ধরা পড়তেই পেরিয়ে যায় ৬ মাস। চিঠি পেয়ে জ্ঞান হারানোর দশা জ্ঞানেশ্বরের!

 

তিনি বলেন, “মোদীজি পাঠিয়েছেন ভেবেই আমি সন্দেহ করিনি। এত দিনে ওই টাকায় বাড়ি বানিয়েছি। এখন শুনছি উন্নয়নের জন্য ওই টাকা পঞ্চায়েতকে পাঠানো হয়েছিল। ভুল করে তা চলে আসে আমার খাতায়। এখন আমি কী করব!”

 

নতুন বাড়িতে বসে জ্ঞানেশ্বরের আক্ষেপ, “দশ লাখের বেশি খরচ হয়ে গেছে। বাকি টাকা ছিল, তা ফিরিয়ে দিয়েছি। এখন এই ১০ লাখ টাকা আমি কোথা থেকে ফেরত দিব।” সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com