15 August shok banner

শিক্ষার্থীদের ডেটা সুরক্ষার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে রাকুতেন ভাইবারের ‘তথ্য সুরক্ষা দিবস’ উদযাপন

নিজস্ব গোপনীয়তার গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি, তথ্য সুরক্ষিত রাখতে এবং ভার্চুয়াল পরিসরে আস্থার পরিবেশ তৈরিতে রাকুতেন ভাইবার বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে ২৮ জানুয়ারি ‘তথ্য সুরক্ষা দিবস’ উদযাপন করেছে। অনলাইনে ডেটা সুরক্ষা নিয়ে ক্রমবর্ধমান উদ্বেগ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে আন্তর্জাতিকভাবে এ দিবস উদযাপন করা হয়। গোপনীয়তা ও সুরক্ষাকে ভাইবার সবক্ষেত্রে গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করে; তাই, এ বছর শীর্ষস্থানীয় ভার্চুয়াল যোগাযোগ প্ল্যাটফর্মটি তরুণ শিক্ষার্থীদের ডাটা সুরক্ষার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেছে।

 

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে শিক্ষাকার্যক্রম অনলাইন শিক্ষার দিকে ধাবিত হওয়ার কারণে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার বিষয়টি সামনে চলে এসেছে। মহামারির প্রাদুর্ভাবের কারণে ক্লাসগুলোকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে স্থানান্তর করার সিদ্ধান্ত নেয়ার প্রয়োজনীয়তা তৈরি হয়েছে। এক্ষেত্রে, ব্যবহৃত প্রযুক্তির বিদ্যমান এবং নতুন সুরক্ষা বিষয়ক সমস্যাগুলোও সামনে এসেছে। ই-লার্নিং আগের চেয়ে আরও বেশি সহজ হওয়ায় শিক্ষার্থীদের অনলাইন সুরক্ষার ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে।

 

যেহেতু অ্যাকাডেমিক প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষার্থীরা অনলাইন স্কুলিংয়ের আরেকটি বছরের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে; তাই, বর্তমান ই-লার্নিং বাস্তবতায় কীভাবে শিক্ষার্থীদের তথ্যের গোপনীয়তা নিশ্চিত করা যায় এবং তথ্য সুরক্ষিত রাখা যায় সেদিকে আরও গুরুত্বারোপ করার এবং মূল্যায়নের সুযোগ রয়েছে বলে মনে করে ভাইবার।

 

অনলাইন শিক্ষা পরিচালনার সময় গোপনীয়তা ও সুরক্ষা সংক্রান্ত  যে  সমস্যাগুলো চলে আসে তার মধ্যে রয়েছে শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ, এর সম্ভাব্য ব্যবহার এবং শিশুদের জন্য উপযোগী নয় এমন পণ্যের সাথে এবং প্ল্যাটফর্মে এ তথ্যের ব্যবহার। এই প্ল্যাটফর্মগুলোতে শিশুদের গোপনীয়তা রক্ষার মানদণ্ডগুলোর অভাব থাকতে পারে এবং প্রাপ্তবয়স্ক ক্রেতা বা গ্রাহকদের কাছ থেকে তারা যেভাবে তথ্য সংগ্রহ করে, তেমনি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকেও তথ্য সংগ্রহ করতে পারে, যা পরবর্তীতে বাণিজ্যিক এবং বেআইনি উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হতে পারে। সংগৃহীত তথ্য এবং প্রোফাইলগুলো আচরণগত বা নির্দিষ্ট গ্রুপকে লক্ষ্য করে বিজ্ঞাপনের জন্য ব্যবহৃত হতে পারে, যা তাদের পরিচয় চুরি, সুনামের ক্ষতি, মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা এবং আরও অন্যান্য নেতিবাচক বিষয়ের ঝুঁকিতে ফেলতে পারে।

 

এ নিয়ে রাকুতেন ভাইবারের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের সিনিয়র ডিরেক্টর ডেভিড সে বলেন, “অনেক শিক্ষার্থীরা প্রতিদিনের শিক্ষাবিষয়ক কার্যক্রম সম্পন্ন করার জন্য এবং তাদের শিক্ষকদের সাথে যোগাযোগের জন্য অনলাইন মাধ্যম ব্যবহার করেন;  তাই, এক্ষেত্রে  তথ্যের সুরক্ষা শিক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবক উভয়ের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য সুরক্ষা এবং শিক্ষার ইকোসিস্টেমের প্রতি গুরুত্বারোপ করার মাধ্যমে আমাদের মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখতে ভাইবার অঙ্গীকারবদ্ধ। তিনি আরো বলেন, “এই অভিজ্ঞতার আলোকে সবার একটি সজাগ দৃষ্টি থাকা দরকার। পাশাপাশি, বর্তমান প্রক্রিয়াগুলো এবং ক্রমবর্ধমান উদ্বেগগুলো নিয়ে পর্যালোচনা এবং তরুণ অনলাইন শিক্ষার্থীদের ঝুঁকি হ্রাস করবে এমন বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করতে হবে। আমরা লক্ষ্য করেছি কীভাবে দায়িত্বশীল আচরণ অনলাইন লার্নিং টুলগুলোর – যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম থেকে শিক্ষা সংক্রান্ত উপকরণ – বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।”

 

বাংলাদেশের মতো দেশগুলোতে সরকারি এবং বেসরকারি প্রচেষ্টার মাধ্যমে ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামো তৈরির মাধ্যমে ডিজিটালাইজেশন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে;  তবে, অনেক ক্ষেত্রে দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে, অনেক মানুষ এখনও তথ্যের গোপনীয়তা ও সুরক্ষার বিষয়ে খুব কম চিন্তা করে এবং কীভাবে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য ঝুঁকির মুখে পড়তে পারে তা নিয়েও তারা সচেতন নয়। শিশুদের বেলায় অনুপযুক্ত বিষয়বস্তু, চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন এবং অপরিচিতদের সাথে ইচ্ছাবহির্ভূত এক্সপোজারও হুমকি তৈরি করে। প্রকৃতপক্ষে, একটি নিরাপদ অনলাইন পরিসর তৈরিতে অ্যাকাডেমিক প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাথে একসাথে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এর ফলে, শিক্ষার্থীরা তাদের তথ্যের গোপনীয়তা এবং সুরক্ষার ক্ষেত্রে কোনো ছাড় না দিয়েই বেড়ে উঠতে, শিখতে এবং উন্নতি করতে পারবে।

 

রাকুতেন ভাইবার

বিশ্বজুড়েই সবাইকে কানেক্টেড রাখতে কাজ করে রাকুতেন ভাইবার। এক্ষেত্রে, ব্যবহারকারীর পরিচয় এবং তাদের অবস্থান বিবেচ্য নয়। সারাবিশ্বে আমাদের ব্যবহারকারীরা ওয়ান-অন-ওয়ান চ্যাট, ভিডিও কল এবং গ্রুপ মেসেজিং ফিচার ব্যবহারের সুবিধা উপভোগ করেন। এছাড়াও, তারা তাদের পছন্দের ব্র্যান্ড এবং সেলেব্রেটিদের সাথে আলোচনা এবং তাদের সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে খোঁজ-খবর নিতে পারেন এ প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে। ভাইবার এর ব্যবহারকারীদের জন্য নিরাপদ ও সুরক্ষিত পরিবেশ নিশ্চিত করে, যেনো তারা কোনো সংশয় ছাড়াই তাদের অনুভুতিগুলো শেয়ার করতে পারেন।  রাকুতেন ভাইবার বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স এবং আর্থিক সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান রাকুতেন ইনকরপোরেটের একটি অংশ। ভাইবরি বিশ্বের জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনার অফিশিয়াল কমিউনিকেশন চ্যানেল এবং গোল্ডেন স্টেট ওয়ারিয়রস -এর অফিসিয়াল ইন্সট্যান্ট মেসেজিং ও কলিং অ্যাপ পার্টনার।

তাই, বিরামহীন যোগাযোগে অভিজ্ঞতা পেতে আজই যুক্ত হোন ভাইবারে।

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন:  [email protected]

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» শেখ হাসিনার উদারতা বিএনপি বোঝে না : ওবায়দুল কাদের

» যারা খুনিদের আশ্রয় দেয়, তারা এখন মানবতার সবক শেখায় : প্রধানমন্ত্রী

» অব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন: জিএম কাদের

» রুবেলের মরদেহ নিতে মর্গে ৭ নারী, বেলা বাড়ার সঙ্গে বাড়ছে স্ত্রী দাবিদার

» যাত্রাবাড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

» মশ্বিমনগর ইউনিয়নে যুবলীগের উদ্যোগে শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত

» কালীগঞ্জে বালতির পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু

» পলাশে জাতীয় শোক দিবস পালিত 

» রাজধানীর উত্তরায় ক্রেন ছিঁড়ে গার্ডারের চাপায় নিহত ও পুরান ঢাকার চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনায়- ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর শোক

» মানবাধিকার পরিস্থিতি জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে তদন্ত কমিটি চান ফখরুল

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

শিক্ষার্থীদের ডেটা সুরক্ষার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে রাকুতেন ভাইবারের ‘তথ্য সুরক্ষা দিবস’ উদযাপন

নিজস্ব গোপনীয়তার গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি, তথ্য সুরক্ষিত রাখতে এবং ভার্চুয়াল পরিসরে আস্থার পরিবেশ তৈরিতে রাকুতেন ভাইবার বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে ২৮ জানুয়ারি ‘তথ্য সুরক্ষা দিবস’ উদযাপন করেছে। অনলাইনে ডেটা সুরক্ষা নিয়ে ক্রমবর্ধমান উদ্বেগ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে আন্তর্জাতিকভাবে এ দিবস উদযাপন করা হয়। গোপনীয়তা ও সুরক্ষাকে ভাইবার সবক্ষেত্রে গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করে; তাই, এ বছর শীর্ষস্থানীয় ভার্চুয়াল যোগাযোগ প্ল্যাটফর্মটি তরুণ শিক্ষার্থীদের ডাটা সুরক্ষার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেছে।

 

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে শিক্ষাকার্যক্রম অনলাইন শিক্ষার দিকে ধাবিত হওয়ার কারণে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার বিষয়টি সামনে চলে এসেছে। মহামারির প্রাদুর্ভাবের কারণে ক্লাসগুলোকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে স্থানান্তর করার সিদ্ধান্ত নেয়ার প্রয়োজনীয়তা তৈরি হয়েছে। এক্ষেত্রে, ব্যবহৃত প্রযুক্তির বিদ্যমান এবং নতুন সুরক্ষা বিষয়ক সমস্যাগুলোও সামনে এসেছে। ই-লার্নিং আগের চেয়ে আরও বেশি সহজ হওয়ায় শিক্ষার্থীদের অনলাইন সুরক্ষার ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে।

 

যেহেতু অ্যাকাডেমিক প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষার্থীরা অনলাইন স্কুলিংয়ের আরেকটি বছরের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে; তাই, বর্তমান ই-লার্নিং বাস্তবতায় কীভাবে শিক্ষার্থীদের তথ্যের গোপনীয়তা নিশ্চিত করা যায় এবং তথ্য সুরক্ষিত রাখা যায় সেদিকে আরও গুরুত্বারোপ করার এবং মূল্যায়নের সুযোগ রয়েছে বলে মনে করে ভাইবার।

 

অনলাইন শিক্ষা পরিচালনার সময় গোপনীয়তা ও সুরক্ষা সংক্রান্ত  যে  সমস্যাগুলো চলে আসে তার মধ্যে রয়েছে শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ, এর সম্ভাব্য ব্যবহার এবং শিশুদের জন্য উপযোগী নয় এমন পণ্যের সাথে এবং প্ল্যাটফর্মে এ তথ্যের ব্যবহার। এই প্ল্যাটফর্মগুলোতে শিশুদের গোপনীয়তা রক্ষার মানদণ্ডগুলোর অভাব থাকতে পারে এবং প্রাপ্তবয়স্ক ক্রেতা বা গ্রাহকদের কাছ থেকে তারা যেভাবে তথ্য সংগ্রহ করে, তেমনি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকেও তথ্য সংগ্রহ করতে পারে, যা পরবর্তীতে বাণিজ্যিক এবং বেআইনি উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হতে পারে। সংগৃহীত তথ্য এবং প্রোফাইলগুলো আচরণগত বা নির্দিষ্ট গ্রুপকে লক্ষ্য করে বিজ্ঞাপনের জন্য ব্যবহৃত হতে পারে, যা তাদের পরিচয় চুরি, সুনামের ক্ষতি, মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা এবং আরও অন্যান্য নেতিবাচক বিষয়ের ঝুঁকিতে ফেলতে পারে।

 

এ নিয়ে রাকুতেন ভাইবারের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের সিনিয়র ডিরেক্টর ডেভিড সে বলেন, “অনেক শিক্ষার্থীরা প্রতিদিনের শিক্ষাবিষয়ক কার্যক্রম সম্পন্ন করার জন্য এবং তাদের শিক্ষকদের সাথে যোগাযোগের জন্য অনলাইন মাধ্যম ব্যবহার করেন;  তাই, এক্ষেত্রে  তথ্যের সুরক্ষা শিক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবক উভয়ের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য সুরক্ষা এবং শিক্ষার ইকোসিস্টেমের প্রতি গুরুত্বারোপ করার মাধ্যমে আমাদের মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখতে ভাইবার অঙ্গীকারবদ্ধ। তিনি আরো বলেন, “এই অভিজ্ঞতার আলোকে সবার একটি সজাগ দৃষ্টি থাকা দরকার। পাশাপাশি, বর্তমান প্রক্রিয়াগুলো এবং ক্রমবর্ধমান উদ্বেগগুলো নিয়ে পর্যালোচনা এবং তরুণ অনলাইন শিক্ষার্থীদের ঝুঁকি হ্রাস করবে এমন বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করতে হবে। আমরা লক্ষ্য করেছি কীভাবে দায়িত্বশীল আচরণ অনলাইন লার্নিং টুলগুলোর – যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম থেকে শিক্ষা সংক্রান্ত উপকরণ – বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।”

 

বাংলাদেশের মতো দেশগুলোতে সরকারি এবং বেসরকারি প্রচেষ্টার মাধ্যমে ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামো তৈরির মাধ্যমে ডিজিটালাইজেশন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে;  তবে, অনেক ক্ষেত্রে দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে, অনেক মানুষ এখনও তথ্যের গোপনীয়তা ও সুরক্ষার বিষয়ে খুব কম চিন্তা করে এবং কীভাবে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য ঝুঁকির মুখে পড়তে পারে তা নিয়েও তারা সচেতন নয়। শিশুদের বেলায় অনুপযুক্ত বিষয়বস্তু, চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন এবং অপরিচিতদের সাথে ইচ্ছাবহির্ভূত এক্সপোজারও হুমকি তৈরি করে। প্রকৃতপক্ষে, একটি নিরাপদ অনলাইন পরিসর তৈরিতে অ্যাকাডেমিক প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাথে একসাথে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এর ফলে, শিক্ষার্থীরা তাদের তথ্যের গোপনীয়তা এবং সুরক্ষার ক্ষেত্রে কোনো ছাড় না দিয়েই বেড়ে উঠতে, শিখতে এবং উন্নতি করতে পারবে।

 

রাকুতেন ভাইবার

বিশ্বজুড়েই সবাইকে কানেক্টেড রাখতে কাজ করে রাকুতেন ভাইবার। এক্ষেত্রে, ব্যবহারকারীর পরিচয় এবং তাদের অবস্থান বিবেচ্য নয়। সারাবিশ্বে আমাদের ব্যবহারকারীরা ওয়ান-অন-ওয়ান চ্যাট, ভিডিও কল এবং গ্রুপ মেসেজিং ফিচার ব্যবহারের সুবিধা উপভোগ করেন। এছাড়াও, তারা তাদের পছন্দের ব্র্যান্ড এবং সেলেব্রেটিদের সাথে আলোচনা এবং তাদের সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে খোঁজ-খবর নিতে পারেন এ প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে। ভাইবার এর ব্যবহারকারীদের জন্য নিরাপদ ও সুরক্ষিত পরিবেশ নিশ্চিত করে, যেনো তারা কোনো সংশয় ছাড়াই তাদের অনুভুতিগুলো শেয়ার করতে পারেন।  রাকুতেন ভাইবার বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স এবং আর্থিক সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান রাকুতেন ইনকরপোরেটের একটি অংশ। ভাইবরি বিশ্বের জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনার অফিশিয়াল কমিউনিকেশন চ্যানেল এবং গোল্ডেন স্টেট ওয়ারিয়রস -এর অফিসিয়াল ইন্সট্যান্ট মেসেজিং ও কলিং অ্যাপ পার্টনার।

তাই, বিরামহীন যোগাযোগে অভিজ্ঞতা পেতে আজই যুক্ত হোন ভাইবারে।

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন:  [email protected]

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com