যেসব দেশে নারীসঙ্গ ‘ডাল-ভাত’

বিশ্বের অনেক দেশের অর্থনীতির মূল ভিত্তি হচ্ছে পর্যটন। আর এই ব্যবসাকে এগিয়ে নিতে নিত্য যোগ হয় নতুন নতুন সেবা। পর্যটক টানতে কোনো দেশ সাগরের নিচে হোটেল বানাচ্ছে, কোনো দেশ যৌনতাকে পুঁজি করে পর্যটন শিল্পকে ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে তুলছে। তবে বিশ্বের অনেক দেশ এখন সৃষ্টির আদিম নেশা ‘যৌনতার’ ওপর ভর করে তাদের পর্যটন শিল্পকে বাড়াতে তৎপর হয়েছে। যেটাকে একটি নামও দেয়া হয়েছে, ‘সেক্স ট্যুরিজম’। এবার জেনে নিন নারীর সান্নিধ্য দিয়ে পর্যটক আকর্ষণের তালিকায় প্রথম দিকে থাকা কয়েকটি দেশ ও স্থানের নাম-

 

* দক্ষিণ কোরিয়া: দেশটিতে নারীর সান্নিধ্য পেতে তেমন কষ্ট করতে হয়না। গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতে রয়েছে একাধিক এসকট সার্ভিসের ব্যবস্থা। হোটেলে কয়েক ঘণ্টার জন্য ঘর ভাড়াও পাওয়া যায় সাধ্যের মধ্যে।

* কিউবা: নিসর্গ প্রাকৃতিক লীলাভূমি কিউবা একটি দ্বীপরাষ্ট্র। প্রতি বছর এদেশে অজস্র পর্যটক পাড়ি জমান। তবে পর্যটকদের বড় একটি অংশ সেখানে যান শুধুমাত্র যৌনতার আকর্ষণে। প্রাপ্তবয়স্কের পাশাপাশি অপ্রাপ্তবয়স্ক যৌনসঙ্গীও পাওয়া যায় সুলভ মূল্যে।

 

* বুলগেরিয়া: যৌন পর্যটনের পীঠস্থান বুলেগেরিয়ার সানি বিচ রিসোর্ট। প্রতিদিন কয়েক হাজার দেহ ব্যবসায়ী ভিড় জমান এই সৈকতে। এদের মধ্যে বেশিরভাগই প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে আসা।

 

* থাইল্যান্ড: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকেই দেহ ব্যবসা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে থাইল্যান্ডে। সেখানকার নাইটক্লাব গুলোর নামকরণ করা হয়েছে নারীদেহের বিভিন্ন স্পর্শকাতর অঙ্গসমূহের নামে। ফলে বিদেশি পর্যটকরা আগের চেয়ে বেশি আকৃষ্ট হচ্ছে যৌনতায়।

 

* রাশিয়া: এক দশক ধরেই রাশিয়ায় দেহ ব্যবসার রমরমা বাণিজ্য চলছে। উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপের অনেক পর্যটক রাশিয়ায় আসে শুধু যৌনতার টানে। তবে রাশিয়ার যৌন বাজারে দালালদের দাপট অনেক বেশি।

 

* লাস ভেগাস: আমেরিকার এই শহর ‘সব পেয়েছি’র ঠিকানা। কী নেই এখানে! শহরে যৌনতার রমরমা সম্পর্কে ইঙ্গিত করতে বলা হয়, ‘হোয়াট হ্য়াপেনস ইন ভোস, রিমেইনস ইন ভেগাস।’ এখানে যৌনতা শুধু ব্যবসা অথবা বিনোদন নয়, শরীরী ভাষা উদযাপনের মাধ্যম।

 

* নেপাল: রাজধানী কাঠমুন্ডু এবং পোখরা ও তরাইয়ের শহরাঞ্চলে দেহ ব্যবসার রমরমা অবস্থা। দামী হোটেল থেকে শুরু করে কমদামী হোটেলেও ব্যবসা জমে উঠে। ব্যাঙের ছাতার মত ছড়িয়ে পড়া ম্যাসাজ পার্লার গুলোতে যেন অবৈধ দেহ ব্যবসার পসারায় সাজানো।  সূএ:ডেইলি বাংলাদেশ

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» আগামীতে সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

» আওয়ামী লীগ বন্দুকের জোরে ক্ষমতায় আসে না : নানক

» নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন দাবিতে লক্ষ্মীপুরে ঐক্য পরিষদের গণ অনশন

» ইসলামপুরে যুবলীগের প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন ফরম বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন

» বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটিতে দিনব্যাপী “বুদ্ধিমান উপলব্ধি ভিত্তিক প্রকল্প” উপস্থাপন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

» বিদেশি পর্যবেক্ষক না এলেও নির্বাচন হবে : তথ্যমন্ত্রী

» বাংলাদেশে বিনিয়োগে ভিয়েতনামের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান

» রাইস কুকারে মিলল দেড় কোটি টাকার সোনা

» এখনও পানির নিচে রাজধানীর অনেক এলাকা

» দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে বৃদ্ধা নিহত,আহত ২৫

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)  উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

যেসব দেশে নারীসঙ্গ ‘ডাল-ভাত’

বিশ্বের অনেক দেশের অর্থনীতির মূল ভিত্তি হচ্ছে পর্যটন। আর এই ব্যবসাকে এগিয়ে নিতে নিত্য যোগ হয় নতুন নতুন সেবা। পর্যটক টানতে কোনো দেশ সাগরের নিচে হোটেল বানাচ্ছে, কোনো দেশ যৌনতাকে পুঁজি করে পর্যটন শিল্পকে ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে তুলছে। তবে বিশ্বের অনেক দেশ এখন সৃষ্টির আদিম নেশা ‘যৌনতার’ ওপর ভর করে তাদের পর্যটন শিল্পকে বাড়াতে তৎপর হয়েছে। যেটাকে একটি নামও দেয়া হয়েছে, ‘সেক্স ট্যুরিজম’। এবার জেনে নিন নারীর সান্নিধ্য দিয়ে পর্যটক আকর্ষণের তালিকায় প্রথম দিকে থাকা কয়েকটি দেশ ও স্থানের নাম-

 

* দক্ষিণ কোরিয়া: দেশটিতে নারীর সান্নিধ্য পেতে তেমন কষ্ট করতে হয়না। গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতে রয়েছে একাধিক এসকট সার্ভিসের ব্যবস্থা। হোটেলে কয়েক ঘণ্টার জন্য ঘর ভাড়াও পাওয়া যায় সাধ্যের মধ্যে।

* কিউবা: নিসর্গ প্রাকৃতিক লীলাভূমি কিউবা একটি দ্বীপরাষ্ট্র। প্রতি বছর এদেশে অজস্র পর্যটক পাড়ি জমান। তবে পর্যটকদের বড় একটি অংশ সেখানে যান শুধুমাত্র যৌনতার আকর্ষণে। প্রাপ্তবয়স্কের পাশাপাশি অপ্রাপ্তবয়স্ক যৌনসঙ্গীও পাওয়া যায় সুলভ মূল্যে।

 

* বুলগেরিয়া: যৌন পর্যটনের পীঠস্থান বুলেগেরিয়ার সানি বিচ রিসোর্ট। প্রতিদিন কয়েক হাজার দেহ ব্যবসায়ী ভিড় জমান এই সৈকতে। এদের মধ্যে বেশিরভাগই প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে আসা।

 

* থাইল্যান্ড: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকেই দেহ ব্যবসা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে থাইল্যান্ডে। সেখানকার নাইটক্লাব গুলোর নামকরণ করা হয়েছে নারীদেহের বিভিন্ন স্পর্শকাতর অঙ্গসমূহের নামে। ফলে বিদেশি পর্যটকরা আগের চেয়ে বেশি আকৃষ্ট হচ্ছে যৌনতায়।

 

* রাশিয়া: এক দশক ধরেই রাশিয়ায় দেহ ব্যবসার রমরমা বাণিজ্য চলছে। উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপের অনেক পর্যটক রাশিয়ায় আসে শুধু যৌনতার টানে। তবে রাশিয়ার যৌন বাজারে দালালদের দাপট অনেক বেশি।

 

* লাস ভেগাস: আমেরিকার এই শহর ‘সব পেয়েছি’র ঠিকানা। কী নেই এখানে! শহরে যৌনতার রমরমা সম্পর্কে ইঙ্গিত করতে বলা হয়, ‘হোয়াট হ্য়াপেনস ইন ভোস, রিমেইনস ইন ভেগাস।’ এখানে যৌনতা শুধু ব্যবসা অথবা বিনোদন নয়, শরীরী ভাষা উদযাপনের মাধ্যম।

 

* নেপাল: রাজধানী কাঠমুন্ডু এবং পোখরা ও তরাইয়ের শহরাঞ্চলে দেহ ব্যবসার রমরমা অবস্থা। দামী হোটেল থেকে শুরু করে কমদামী হোটেলেও ব্যবসা জমে উঠে। ব্যাঙের ছাতার মত ছড়িয়ে পড়া ম্যাসাজ পার্লার গুলোতে যেন অবৈধ দেহ ব্যবসার পসারায় সাজানো।  সূএ:ডেইলি বাংলাদেশ

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)  উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com