ব্যাংক ঋণে সর্বোচ্চ সুদহার ১২ শতাংশ

ভোক্তা ঋণের সর্বোচ্চ সুদের হারের নীতি শিথিল করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো বর্তমান পর্যায় থেকে ঊর্ধ্বে ৩ শতাংশ পয়েন্ট পর্যন্ত সুদের হার বাড়াতে পারবে। সেই সঙ্গে আমানতের সুদ হারের সীমা প্রত্যাহারের কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

আজ (১৫ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটায় নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণার সময় এই তথ্য জানানো হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার চলতি অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের মুদ্রানীতি (জানুয়ারি-জুন) ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন মুদ্রানীতি অনুযায়ী, বাণিজ্যিক ব্যাংক চাইলে এখন থেকে ভোক্তা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ পর্যন্ত সুদে ঋণ দিতে পারবে। এতদিন এক্ষেত্রে সুদের সর্বোচ্চ হার ছিল ৯ শতাংশ।

 

একইভাবে আমানতের ক্ষেত্রে প্রদেয় ন্যুনতম সুদের হারও প্রত্যাহার করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

২০২০ সালের এপ্রিল থেকে ব্যাংক খাতে সুদের হার ঋণে সর্বোচ্চ ৯ ও আমানতে সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ কার্যকর আছে। ব্যবসায়ীদের একটি পক্ষের দাবির প্রেক্ষিতে সুদহার বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এরপর দেশের অর্থনীতির সূচকগুলোতে বেশ পরিবর্তন এসেছে।

 

এর মধ্যে মূল্যস্ফীতির চাপ সামলাতে তিনবার নীতি সুদহার বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কিন্তু ব্যাংক ঋণের সুদহার না বাড়িয়ে কেবল রেপোর সুদহার বাড়িয়ে মূল্যস্ফীতির লাগাম টেনে ধরার পদক্ষেপ কতটা কাজে লাগছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন অর্থনীতিবিদরা।

 

ঘোষিত নতুন মুদ্রানীতিতে মূল্যস্ফীতির বাড়তি চাপ সামাল দিতে বাজারে অর্থপ্রবাহ নিয়ন্ত্রণে রাখতে এখন থেকে নীতি সুদহার নির্ধারিত হবে ৬ শতাংশ। এতদিন যা ছিল ৫ দশমিক ৭৫ শতাংশ। এর পাশাপাশি ঋণের সুদহার পুরোপুরি তুলে না দিলেও ভোক্তাঋণে সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ সুদ নিতে পারবে ব্যাংকগুলো।

মুদ্রানীতিতে রেপো সুদ হার বিদ্যমান বার্ষিক শতকরা ৫ দশমিক ৭৫ ভাগ থেকে ২৫ বেসিস পয়েন্ট বৃদ্ধি করে শতকরা ৬ ভাগে পুননির্ধারণ করা হয়েছে। রিভার্স রেপো সুদহার বিদ্যমান বার্ষিক ৪ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৪.২৫ শতাংশ করা হয়েছে।

 

নতুন মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতে ঋণ লক্ষ্য একই রেখেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা৷ আগামী জুন পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে ১৪ দশমিক ১ শতাংশ। জুলাই-ডিসেম্বরের মুদ্রানীতিতেও যা ছিল ১৪ দশমিক ১ শতাংশ।

 

ব্যাংকিং খাতে তারল্য সংকট, বিদেশি মুদ্রার সরবরাহে টান, টাকার দরপতন, মূল্যস্ফীতি আর চলতি হিসাবে ঘাটতি বৃদ্ধির মত পরিস্থিতিতে নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

 

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল, কাজী ছাইদুর রহমান, আবু ফরাহ মো. নাছের, এ কে এম সাজেদুর রহমান খান, বিএফআইইউ প্রধান মাসুদ বিশ্বাস, প্রধান অর্থনী‌তি‌বিদ ড. হা‌বিবুর রহমান, নির্বাহী প‌রিচালক ও মুখপাত্র মেজবাউল হকসহ গবেষণা বিভাগের সং‌শ্লিষ্টরা উপস্থিত ছি‌লেন।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ডাক ও টেলিযোগাযোগ পদক-২০২৩ জিতল নগদ

» দেশের ই-স্পোর্টস ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নের অমিত সম্ভাবনা

» ক্ষমতা হারালে দেশ ছেড়ে না পালিয়ে মির্জা ফখরুলের বাসায় উঠতে চান : ওবায়দুল কাদের

» নিপা ভাইরাসে দেশে ৫ জনের মৃত্যু : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

» বাংলাদেশের বড় উন্নয়ন সহযোগী জাপান: বাণিজ্যমন্ত্রী

» আ.লীগ কখনো দেশ ছেড়ে পালায় না, বিএনপি নেতারা পালায়: প্রধানমন্ত্রী

» রাজশাহীতে ২৬ প্রকল্প উদ্বোধন ও ৬টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী

» মোহাম্মদপুরে ছিনতাইয়ে হিটার হৃদয়ের নেতৃত্বে বিডিএসকে গ্যাং

» ২০২২ সালে ফ্রান্সে রেকর্ড আশ্রয় আবেদন

» যুগপৎ আন্দোলন মানুষের মধ্যে সাড়া ফেলেছে, দাবি ফখরুলের

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ব্যাংক ঋণে সর্বোচ্চ সুদহার ১২ শতাংশ

ভোক্তা ঋণের সর্বোচ্চ সুদের হারের নীতি শিথিল করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো বর্তমান পর্যায় থেকে ঊর্ধ্বে ৩ শতাংশ পয়েন্ট পর্যন্ত সুদের হার বাড়াতে পারবে। সেই সঙ্গে আমানতের সুদ হারের সীমা প্রত্যাহারের কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

আজ (১৫ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটায় নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণার সময় এই তথ্য জানানো হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার চলতি অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের মুদ্রানীতি (জানুয়ারি-জুন) ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন মুদ্রানীতি অনুযায়ী, বাণিজ্যিক ব্যাংক চাইলে এখন থেকে ভোক্তা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ পর্যন্ত সুদে ঋণ দিতে পারবে। এতদিন এক্ষেত্রে সুদের সর্বোচ্চ হার ছিল ৯ শতাংশ।

 

একইভাবে আমানতের ক্ষেত্রে প্রদেয় ন্যুনতম সুদের হারও প্রত্যাহার করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

২০২০ সালের এপ্রিল থেকে ব্যাংক খাতে সুদের হার ঋণে সর্বোচ্চ ৯ ও আমানতে সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ কার্যকর আছে। ব্যবসায়ীদের একটি পক্ষের দাবির প্রেক্ষিতে সুদহার বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এরপর দেশের অর্থনীতির সূচকগুলোতে বেশ পরিবর্তন এসেছে।

 

এর মধ্যে মূল্যস্ফীতির চাপ সামলাতে তিনবার নীতি সুদহার বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কিন্তু ব্যাংক ঋণের সুদহার না বাড়িয়ে কেবল রেপোর সুদহার বাড়িয়ে মূল্যস্ফীতির লাগাম টেনে ধরার পদক্ষেপ কতটা কাজে লাগছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন অর্থনীতিবিদরা।

 

ঘোষিত নতুন মুদ্রানীতিতে মূল্যস্ফীতির বাড়তি চাপ সামাল দিতে বাজারে অর্থপ্রবাহ নিয়ন্ত্রণে রাখতে এখন থেকে নীতি সুদহার নির্ধারিত হবে ৬ শতাংশ। এতদিন যা ছিল ৫ দশমিক ৭৫ শতাংশ। এর পাশাপাশি ঋণের সুদহার পুরোপুরি তুলে না দিলেও ভোক্তাঋণে সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ সুদ নিতে পারবে ব্যাংকগুলো।

মুদ্রানীতিতে রেপো সুদ হার বিদ্যমান বার্ষিক শতকরা ৫ দশমিক ৭৫ ভাগ থেকে ২৫ বেসিস পয়েন্ট বৃদ্ধি করে শতকরা ৬ ভাগে পুননির্ধারণ করা হয়েছে। রিভার্স রেপো সুদহার বিদ্যমান বার্ষিক ৪ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৪.২৫ শতাংশ করা হয়েছে।

 

নতুন মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতে ঋণ লক্ষ্য একই রেখেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা৷ আগামী জুন পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে ১৪ দশমিক ১ শতাংশ। জুলাই-ডিসেম্বরের মুদ্রানীতিতেও যা ছিল ১৪ দশমিক ১ শতাংশ।

 

ব্যাংকিং খাতে তারল্য সংকট, বিদেশি মুদ্রার সরবরাহে টান, টাকার দরপতন, মূল্যস্ফীতি আর চলতি হিসাবে ঘাটতি বৃদ্ধির মত পরিস্থিতিতে নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

 

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল, কাজী ছাইদুর রহমান, আবু ফরাহ মো. নাছের, এ কে এম সাজেদুর রহমান খান, বিএফআইইউ প্রধান মাসুদ বিশ্বাস, প্রধান অর্থনী‌তি‌বিদ ড. হা‌বিবুর রহমান, নির্বাহী প‌রিচালক ও মুখপাত্র মেজবাউল হকসহ গবেষণা বিভাগের সং‌শ্লিষ্টরা উপস্থিত ছি‌লেন।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com