দাঁতের ক্যাভিটি থেকে মুক্তি পাবেন যেভাবে

দাঁতের সমস্যায় কমবেশি সবাই ভোগেন। দাঁতের মাড়ির সমস্যার পাশাপাশি আরও একটি সমস্যা হলো ক্যাভিটি। শিশু এমনকি বয়স্কদের দাঁতেও দেখা যায় ছোট ছোট কালো গর্ত। দাঁতের শক্ত জায়গায় যে ছোট ছোট গর্ত হয়, সেগুলোকেই বলে ক্যাভিটি।

 

এটি ব্যাকটেরিয়ার কারণে হয়ে থাকে। প্রতিবার খাওয়ার পর অনেকেই দাঁত পরিষ্কার করেন না। ফলে দাঁতের মধ্যে খাবার জমতে থাকে। মিষ্টিপ্রেমীদের দাঁতে সবচেয়ে বেশি ক্যাভিটি হয়ে থাকে।

আর প্রথমদিকেই ক্যাভিটির চিকিৎসা না করা হলে ক্ষয় আরও বাড়তে থাকে। দাঁতে জমে থাকা ব্যাকটেরিয়া প্লাক নামক একটি পুরু স্তর তৈরি করে। এ স্তর দাঁতে ক্ষয় সৃষ্টি করে।

স্ট্রেপ্টোকোকাস মিউট্যানস নামক এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া দাঁতের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করে। তাই দাঁতের ক্যাভিটি টের পেলে চিকিৎসা শুরু করুন। চাইলে ঘরোয়া উপায়েই ক্যাভিটি থেকে মুক্তি পেতে পারেন। জেনে নিন করণীয়-

> দাঁতের ক্যাভিটি থেকে মুক্তি পেতে ভিটামিন-ডি খাওয়া জরুরি। বিশেষ করে দুগ্ধজাত খাবার খেতে হবে নিয়মিত।

> দাঁতের যে স্থানে ক্যাভিটি হয়েছে, সেখানে লবঙ্গের তেল দিনে ২-৩ বার লাগালে ব্যথা কমবে। কারণ লবঙ্গে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য আছে।

একটি তুলায় এক বা দুই ফোঁটা লবঙ্গ তেল নিয়ে দাঁতের গর্তে লাগান। তেল ভিজিয়ে রাখলে ব্যথা উপশম হয়।

> মুখের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে প্রতিদিন খালি পেটে এক টুকরো রসুন খেতে হবে। রসুন দাঁতের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে। কারণ এটি ব্যাকটেরিয়া দূর করে দেয়।

> লেবুতে থাকে সাইট্রিক অ্যাসিড। যা ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করে। খাওয়ার পর কয়েক মিনিট লেবুর টুকরো চিবিয়ে খেলে দাঁতের ক্ষয় রোধ হয় ও হজমেও সাহায্য করে।

> পেয়ারা পাতায় প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য আছে, যা ক্যাভিটি প্রতিরোধে উপকারী। এজন্য ফুটন্ত পানিতে পেয়ারা পাতার গুঁড়া মিশিয়ে মাউথ ওয়াশের মতো ব্যবহার করুন।

> গ্রিন টি মুখের ভেতরের প্লাক রোধে দারুণ উপকারী। ভালো ফলাফলের জন্য গ্রিন টির সাথে লেবুর রস ও মধু যোগ করুন।

> দাঁতের যে কোনো সমস্যার সমাধান করতে পারে এক গ্লাস গরম পানি। খাওয়ার পরপরই মিশ্রণটি দিয়ে গার্গল করুন। লবণ পানি দাঁতের আঠালো ভাব দূর করতে সাহায্য করে।

> ডিমের খোসাও দাঁতের ক্যাভিটি দূর করতে পারে। এজন্য একটি পাত্রে কয়েক মিনিট ডিমের খোসা সেদ্ধ করুন। এরপর পুরোপুরি শুকিয়ে গুঁড়া তৈরি করুন। বেকিং সোডা মিশিয়ে পাউডার তৈরি করুন।

এ পাউডার দিয়ে দাঁত মাজুন। ডিমের খোসায় থাকা ক্যালসিয়াম ও খনিজ প্রাকৃতিকভাবে দাঁতের ক্ষয়রোধ করে।

সূত্র: নিউজ১৮

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» সৌদি আরবকে হারিয়ে আর্জেন্টিনার ওপর চাপ বাড়ালো পোল্যান্ড

» চাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত

» ইতালিতে ভূমিধসে নিখোঁজ ১৩

» সরকারকে ঘাড় ধরে নামাতে দেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ : মির্জা আব্বাস

» কেরাণীগঞ্জে বাস থেকে ৬৩৭ ভরি স্বর্ণসহ ১২ জন আটক

» সবাইকে ডোপ টেস্টের আওতায় আনা দরকার: ডেপুটি স্পিকার

» মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চুমকি, সম্পাদক শিলা

» সমাবেশের নামে আস্ফালন সহ্য করা হবে না: হানিফ

» পাঁচবিবি প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত 

» জমাদিউল আউয়াল মাসের গুরুত্ব ও ফজিলত

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

দাঁতের ক্যাভিটি থেকে মুক্তি পাবেন যেভাবে

দাঁতের সমস্যায় কমবেশি সবাই ভোগেন। দাঁতের মাড়ির সমস্যার পাশাপাশি আরও একটি সমস্যা হলো ক্যাভিটি। শিশু এমনকি বয়স্কদের দাঁতেও দেখা যায় ছোট ছোট কালো গর্ত। দাঁতের শক্ত জায়গায় যে ছোট ছোট গর্ত হয়, সেগুলোকেই বলে ক্যাভিটি।

 

এটি ব্যাকটেরিয়ার কারণে হয়ে থাকে। প্রতিবার খাওয়ার পর অনেকেই দাঁত পরিষ্কার করেন না। ফলে দাঁতের মধ্যে খাবার জমতে থাকে। মিষ্টিপ্রেমীদের দাঁতে সবচেয়ে বেশি ক্যাভিটি হয়ে থাকে।

আর প্রথমদিকেই ক্যাভিটির চিকিৎসা না করা হলে ক্ষয় আরও বাড়তে থাকে। দাঁতে জমে থাকা ব্যাকটেরিয়া প্লাক নামক একটি পুরু স্তর তৈরি করে। এ স্তর দাঁতে ক্ষয় সৃষ্টি করে।

স্ট্রেপ্টোকোকাস মিউট্যানস নামক এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া দাঁতের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করে। তাই দাঁতের ক্যাভিটি টের পেলে চিকিৎসা শুরু করুন। চাইলে ঘরোয়া উপায়েই ক্যাভিটি থেকে মুক্তি পেতে পারেন। জেনে নিন করণীয়-

> দাঁতের ক্যাভিটি থেকে মুক্তি পেতে ভিটামিন-ডি খাওয়া জরুরি। বিশেষ করে দুগ্ধজাত খাবার খেতে হবে নিয়মিত।

> দাঁতের যে স্থানে ক্যাভিটি হয়েছে, সেখানে লবঙ্গের তেল দিনে ২-৩ বার লাগালে ব্যথা কমবে। কারণ লবঙ্গে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য আছে।

একটি তুলায় এক বা দুই ফোঁটা লবঙ্গ তেল নিয়ে দাঁতের গর্তে লাগান। তেল ভিজিয়ে রাখলে ব্যথা উপশম হয়।

> মুখের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে প্রতিদিন খালি পেটে এক টুকরো রসুন খেতে হবে। রসুন দাঁতের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে। কারণ এটি ব্যাকটেরিয়া দূর করে দেয়।

> লেবুতে থাকে সাইট্রিক অ্যাসিড। যা ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করে। খাওয়ার পর কয়েক মিনিট লেবুর টুকরো চিবিয়ে খেলে দাঁতের ক্ষয় রোধ হয় ও হজমেও সাহায্য করে।

> পেয়ারা পাতায় প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য আছে, যা ক্যাভিটি প্রতিরোধে উপকারী। এজন্য ফুটন্ত পানিতে পেয়ারা পাতার গুঁড়া মিশিয়ে মাউথ ওয়াশের মতো ব্যবহার করুন।

> গ্রিন টি মুখের ভেতরের প্লাক রোধে দারুণ উপকারী। ভালো ফলাফলের জন্য গ্রিন টির সাথে লেবুর রস ও মধু যোগ করুন।

> দাঁতের যে কোনো সমস্যার সমাধান করতে পারে এক গ্লাস গরম পানি। খাওয়ার পরপরই মিশ্রণটি দিয়ে গার্গল করুন। লবণ পানি দাঁতের আঠালো ভাব দূর করতে সাহায্য করে।

> ডিমের খোসাও দাঁতের ক্যাভিটি দূর করতে পারে। এজন্য একটি পাত্রে কয়েক মিনিট ডিমের খোসা সেদ্ধ করুন। এরপর পুরোপুরি শুকিয়ে গুঁড়া তৈরি করুন। বেকিং সোডা মিশিয়ে পাউডার তৈরি করুন।

এ পাউডার দিয়ে দাঁত মাজুন। ডিমের খোসায় থাকা ক্যালসিয়াম ও খনিজ প্রাকৃতিকভাবে দাঁতের ক্ষয়রোধ করে।

সূত্র: নিউজ১৮

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com