কোম্পানীগঞ্জে দুই প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি মিছিলে উত্তেজনা, পুলিশসহ আহত ১১

ভোটের দিন যতই এগিয়ে আসছে, ততই উত্তেজিত হচ্ছে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের নির্বাচনী পরিস্থিতি। বিশেষ করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর তিন ভাগ্নের বিরুদ্ধে দাঁড়ানো মেয়র কাদের মির্জার তিন প্রার্থীর ইউনিয়নগুলো প্রায়শই ঘটছে বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

এরই ধারাবাহিকতায় দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি মিছিল থেকে উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এসময় মিছিলকারীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে ওসিসহ সাত পুলিশ সদস্য ও উভয় পক্ষের আরও চারজন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে মেয়র মির্জার ছেলে মির্জা মাসরুর কাদের তাশিক রয়েছেন।

 

বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রামপুর ইউনিয়নের বামনি বাজারে এ ঘটনা ঘটেছে।

 

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মো. সাজ্জাদ রোমন, এসআই মো. আবদুল আউয়াল সুমন, মো. আবদুল মোমেন, কনস্টেবল মো. আলমগীর হোসেন, মো. তানভীর আহাম্মেদ, উথোয়াই চিং রোয়াজা ও বিধান দেবনাথ। তাদেরকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

 

জানা গেছে, বুধবার দুপুরে বসুরহাট একটি কুলখানি অনুষ্ঠানে আবদুল কাদের মির্জার হাতে শারীরিক লাঞ্ছিত হন রামপুর ইউপির সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা আনছার উল্যা। এ ঘটনার প্রতিবাদে রাতে বামনি বাজারে ঝাড়ু মিছিল বের করেন কাদের মির্জার প্রতিপক্ষ প্রার্থী ভাগ্নে সিরাজিস সালেকিন রিমনের সমর্থক ও স্থানীয়রা। পরে কাদের মির্জার ছেলে মির্জা মাসরুর কাদের তাশিকের নেতৃত্বে তাদের প্রার্থী ইকবাল বাহার চৌধুরী সমর্থকরা পাল্টা মিছিল বের করেন। মিছিলটি স্কুল গেইটে এলে উভয় পক্ষ মুখোমুখি হলে উত্তেজনা দেখা দেয় এবং হাতাহাতি শুরু হয়। এসময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গেলে সাত পুলিশসহ ১১জন আহত হয়।

 

জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, উভয় পক্ষের পাল্টাপাল্টি মিছিলকে কেন্দ্র করে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি করার চেষ্টা করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে। এসময় মিছিলকারীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পরে ঘটনাস্থলে ম্যাজিস্ট্রেট, র‌্যাব, ডিবি ও অতিরিক্ত পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

 

তিনি আরও বলেন, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার ঘটনায় ১৬ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ১০০-১৫০ জনকে আসামি করে পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

 

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» দিল্লিতে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে শেখ হাসিনা ও মোদি

» মুসলিম অধ্যুষিত তাজিকিস্তানে নিষিদ্ধ হচ্ছে হিজাব!

» ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আওয়ামী লীগের যত কর্মসূচি

» বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমে দেড় কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট

» বিশেষ অভিযান চালিয়ে মাদকবিরোধী অভিযানে বিক্রি ও সেবনের অপরাধে ৮ জন গ্রেপ্তার

» গাছে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে নারী কণ্ঠ, কেন হচ্ছে এমন?

» এক ডিভাইসে ২টি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট চালাবেন

» কেন প্রভাসে মুগ্ধ দীপিকা?

» ভারতের বিপক্ষে যে একাদশ নিয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

» পূর্ব বিরোধের জেরে কুপিয়ে যুবককে হত্যা

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

কোম্পানীগঞ্জে দুই প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি মিছিলে উত্তেজনা, পুলিশসহ আহত ১১

ভোটের দিন যতই এগিয়ে আসছে, ততই উত্তেজিত হচ্ছে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের নির্বাচনী পরিস্থিতি। বিশেষ করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর তিন ভাগ্নের বিরুদ্ধে দাঁড়ানো মেয়র কাদের মির্জার তিন প্রার্থীর ইউনিয়নগুলো প্রায়শই ঘটছে বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

এরই ধারাবাহিকতায় দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি মিছিল থেকে উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এসময় মিছিলকারীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে ওসিসহ সাত পুলিশ সদস্য ও উভয় পক্ষের আরও চারজন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে মেয়র মির্জার ছেলে মির্জা মাসরুর কাদের তাশিক রয়েছেন।

 

বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রামপুর ইউনিয়নের বামনি বাজারে এ ঘটনা ঘটেছে।

 

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মো. সাজ্জাদ রোমন, এসআই মো. আবদুল আউয়াল সুমন, মো. আবদুল মোমেন, কনস্টেবল মো. আলমগীর হোসেন, মো. তানভীর আহাম্মেদ, উথোয়াই চিং রোয়াজা ও বিধান দেবনাথ। তাদেরকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

 

জানা গেছে, বুধবার দুপুরে বসুরহাট একটি কুলখানি অনুষ্ঠানে আবদুল কাদের মির্জার হাতে শারীরিক লাঞ্ছিত হন রামপুর ইউপির সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা আনছার উল্যা। এ ঘটনার প্রতিবাদে রাতে বামনি বাজারে ঝাড়ু মিছিল বের করেন কাদের মির্জার প্রতিপক্ষ প্রার্থী ভাগ্নে সিরাজিস সালেকিন রিমনের সমর্থক ও স্থানীয়রা। পরে কাদের মির্জার ছেলে মির্জা মাসরুর কাদের তাশিকের নেতৃত্বে তাদের প্রার্থী ইকবাল বাহার চৌধুরী সমর্থকরা পাল্টা মিছিল বের করেন। মিছিলটি স্কুল গেইটে এলে উভয় পক্ষ মুখোমুখি হলে উত্তেজনা দেখা দেয় এবং হাতাহাতি শুরু হয়। এসময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গেলে সাত পুলিশসহ ১১জন আহত হয়।

 

জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, উভয় পক্ষের পাল্টাপাল্টি মিছিলকে কেন্দ্র করে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি করার চেষ্টা করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে। এসময় মিছিলকারীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পরে ঘটনাস্থলে ম্যাজিস্ট্রেট, র‌্যাব, ডিবি ও অতিরিক্ত পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

 

তিনি আরও বলেন, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার ঘটনায় ১৬ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ১০০-১৫০ জনকে আসামি করে পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

 

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com