ঐশ্বরিয়া না থাকলে খাবার জোটে না অভিষেকের!

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজের একটি গোপন কথা ফাঁস করলেন বলিউড অভিনেতা অভিষেক বচ্চন। তিনি জানিয়েছেন, স্ত্রী ঐশ্বরিয়া রাই না থাকলে নাকি তার কপালে খাবার জোটে না। তবে বাড়িতে নয়, কোনো হোটেলে থাকলে এমনটা হয়।

 

কিন্তু কেন? হোটেলে রুম সার্ভিসকে ফোন করে অর্ডার দিলেই তো খাবার এসে সামনে হাজির হয়ে যায়। অভিষেক জানান, এই কাজটাই তিনি পারেন না। যেটি খুবই যত্ন নিয়ে করে দেন স্ত্রী ঐশ্বরিয়া রাই।

 

অভিষেক জানান, অচেনা মানুষদের সঙ্গে কথা বলতে তার অদ্ভুত লাগে। তাই সেই কাজটা ঐশ্বরিয়াকে করতে হয়। তিনিই ফোন করে অভিষেকের জন্য খাবার অর্ডার করে দেন।

 

অভিষেক এও জানান, তিনি এতটাই লজ্জা পান যে হোটেলের লবিতে পা রাখতেও চান না প্রোমোশনাল কোনো ইভেন্টের সময়, যদি না কেউ তাকে রাস্তা দেখানোর জন্য থাকে।

 

আর জানান, তিনি কোনোদিন এমন কোনো সেটে কাজ করতে পারবেন না, যেখানে পরিবেশ অপ্রীতিকর। কাজ করার জন্য ইতিবাচক পরিবেশ প্রয়োজন হয় তার।

 

অভিষেকের কথায়, ‘মানুষ আমাকে নিয়ে হাসাহাসি করে। আমি হোটেলে বসে আছি প্রেস ট্যুরের জন্য। কেউ যদি না থাকে আমি একা লবিতে যেতে পারব না। কোথাও একা প্রবেশ করতেই যেন আমার ভয় লাগে। আমার পাশে কাউকে একটা দরকার। আমার এমন একজনকে দরকার যে আমাকে রাস্তা দেখিয়ে দেবে।

 

জুনিয়র বচ্চন আরও বলেন, ‘আমার কিছু অদ্ভুত স্বভাব আছে। আউটডোর থাকলে আমার বউ আমাকে বিকালে ফোন করে জানতে চাইবে, ‘তোমার দিন কেমন কাটল?’ সাধারণ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যা কথা হয় আর কী! এরপর ও যখন বলবে ‘তুমি খেয়েছ’, আমি উত্তর দেই ‘না’।

 

এরপর ও জানতে চায়, ‘আচ্ছা, তুমি কি খেতে চাও বলো?’ তারপর ও আমার জন্য খাবার অর্ডার করে দেয়। আমি রুম সার্ভিসে ফোন করতে পারি না। ঐশ্বরিয়া জানে ও ফোন না করলে আমি না খেয়েই থাকব। আমার এই সমস্যাটা আছে। আমি অচেনা মানুষের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে পারি না।’

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» নাশকতার মামলায় র‌্যাবের অভিযানে গ্রেফতার ২২৮

» নাশকতাকারী যেই হোক, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

» মৃত্যুযন্ত্রণা সম্পর্কে কোরআন-হাদিসে যা বলা হয়েছে

» চট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ৩৫ ‌

» নাইকো দুর্নীতি মামলায় পরবর্তী সাক্ষ্য ২০ আগস্ট

» বিতর্ক আর শঙ্কা নিয়ে শুরু হচ্ছে প্যারিস অলিম্পিক

» নাশকতাকারীরা যেন ঢাকা না ছাড়তে পারে সেই পরিকল্পনা করছে ডিএমপি : বিপ্লব কুমার

» দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে: নৌবাহিনী প্রধান

» হামলার নীলনকশা আগেই প্রস্তুত করে রেখেছিল বিএনপি: কাদের

» সহিংস আন্দোলনের জন্য অহিংস আন্দোলনকে ব্যবহার করেছে বিএনপি-জামায়াত: জয়

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ঐশ্বরিয়া না থাকলে খাবার জোটে না অভিষেকের!

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজের একটি গোপন কথা ফাঁস করলেন বলিউড অভিনেতা অভিষেক বচ্চন। তিনি জানিয়েছেন, স্ত্রী ঐশ্বরিয়া রাই না থাকলে নাকি তার কপালে খাবার জোটে না। তবে বাড়িতে নয়, কোনো হোটেলে থাকলে এমনটা হয়।

 

কিন্তু কেন? হোটেলে রুম সার্ভিসকে ফোন করে অর্ডার দিলেই তো খাবার এসে সামনে হাজির হয়ে যায়। অভিষেক জানান, এই কাজটাই তিনি পারেন না। যেটি খুবই যত্ন নিয়ে করে দেন স্ত্রী ঐশ্বরিয়া রাই।

 

অভিষেক জানান, অচেনা মানুষদের সঙ্গে কথা বলতে তার অদ্ভুত লাগে। তাই সেই কাজটা ঐশ্বরিয়াকে করতে হয়। তিনিই ফোন করে অভিষেকের জন্য খাবার অর্ডার করে দেন।

 

অভিষেক এও জানান, তিনি এতটাই লজ্জা পান যে হোটেলের লবিতে পা রাখতেও চান না প্রোমোশনাল কোনো ইভেন্টের সময়, যদি না কেউ তাকে রাস্তা দেখানোর জন্য থাকে।

 

আর জানান, তিনি কোনোদিন এমন কোনো সেটে কাজ করতে পারবেন না, যেখানে পরিবেশ অপ্রীতিকর। কাজ করার জন্য ইতিবাচক পরিবেশ প্রয়োজন হয় তার।

 

অভিষেকের কথায়, ‘মানুষ আমাকে নিয়ে হাসাহাসি করে। আমি হোটেলে বসে আছি প্রেস ট্যুরের জন্য। কেউ যদি না থাকে আমি একা লবিতে যেতে পারব না। কোথাও একা প্রবেশ করতেই যেন আমার ভয় লাগে। আমার পাশে কাউকে একটা দরকার। আমার এমন একজনকে দরকার যে আমাকে রাস্তা দেখিয়ে দেবে।

 

জুনিয়র বচ্চন আরও বলেন, ‘আমার কিছু অদ্ভুত স্বভাব আছে। আউটডোর থাকলে আমার বউ আমাকে বিকালে ফোন করে জানতে চাইবে, ‘তোমার দিন কেমন কাটল?’ সাধারণ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যা কথা হয় আর কী! এরপর ও যখন বলবে ‘তুমি খেয়েছ’, আমি উত্তর দেই ‘না’।

 

এরপর ও জানতে চায়, ‘আচ্ছা, তুমি কি খেতে চাও বলো?’ তারপর ও আমার জন্য খাবার অর্ডার করে দেয়। আমি রুম সার্ভিসে ফোন করতে পারি না। ঐশ্বরিয়া জানে ও ফোন না করলে আমি না খেয়েই থাকব। আমার এই সমস্যাটা আছে। আমি অচেনা মানুষের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে পারি না।’

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com