অস্থির মাছ-মাংসের বাজার, ব্রয়লারের কেজি বেড়ে ২৪০

ফাইল ছবি

 

রমজানের আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। পবিত্র এই মাসটি শুরুর আগেই অস্থিরতা দেখা দিয়েছে নিত্যপণ্যের বাজারে। সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে মাছ-মাংসের দাম। এক লাফে ৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। তবে সবজির বাজারে কিছুটা স্বস্তি রয়েছে।

 

শুক্রবার (৮ মার্চ) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। শুক্রবার ব্রয়লার মুরগি ২৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। যা গত সপ্তাহেও ২১০-২২০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। সোনালি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকা। আর গরুর মাংস ৭৫০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে। রমজানকে সামনে রেখে এই অস্তিরতা তৈরি হয়েছে বলে ক্রেতারা অভিযোগ করেন।

 

মাংসের মতো মাছের বাজারেও অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। সাইজ ভেদে তেলাপিয়া ২২০-২৩০ টাকা, পাঙাশ ২০০ থেকে ২৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। যা গেল সপ্তাহেও কেজিপ্রতি ১০ থেকে ২০ টাকা কম দামে বিক্রি হয়েছে। অন্য মাছের মধ্যে মাঝারি ও বড় আকারের চাষের রুই, কাতলা ও মৃগেল মাছের দাম প্রতি কেজি ৩০০ থেকে শুরু করে সাইজ ভেদে ৪০০-৪৫০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। ৬০০ টাকার নিচে নেই পাবদা, টেংরা, কই, বোয়াল, চিতল, আইড় ও ইলিশ মাছ। মাছ যত বড় তার দাম ততো বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে।

 

মাছ মাংসের বাজার চড়া হলেও এখনো কিছুটা স্বস্তি আছে সবজির বাজারে।

 

বাজারে ভাল মানের আলু ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। লম্বা বেগুন প্রতি কেজি ৫০-৬০ টাকা, গোল বেগুন ৬০-৭০ টাকা, ফুলকপি ৪০-৫০ টাকা পিস বিক্রি হচ্ছে। একই দামে মিলছে বাঁধাকপিও। শিম ৬০-৭০, টমেটো ৪০-৫০, করল্লা ৭০-৮০ টাকা, চিচিঙ্গা ৬০-৭০ টাকা, ঢেঁড়স ৭০-৮০ টাকা মান ও সাইজভেদে লাউ ৭০-৯০ টাকা, শশা ৭০-৮০, মুলা ৩০-৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে।

 

সরিষা শাকের আঁটি ১৫ টাকা, ডাটা শাক ১৫ টাকা, পালং ১০-১৫ টাকা, লাউ শাক ৩০-৪০, লাল শাক ১৫ টাকা, বতুয়া শাক ১৫-২০ টাকা আঁটি দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে বাজারে দোকানের তুলনায় ভ্যানে কিংবা ফুটপাতের দোকানগুলোতে প্রত্যেক সবজির দাম ৫-১০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে।

 

এদিকে কিছুতেই কমছে না পেঁয়াজের দাম। প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ১০০-১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে কিছুটা কমেছে আদা আর রসুনের দাম। নতুন রসুন ১৭০-১৯০ টাকা ও আদা ২০০-২২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। সূএ: ঢাকা মেইল ডটকম

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» লালমনিরহাটে ট্রেনের টিকেট কালোবাজারি চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

» বিএনপি মহাসচিব দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য রেখেছেন : কাদের

» গরুর কালা ভুনা রাঁধবেন যেভাবে

» কখন হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেশি?

» ঈদে মানুষের মনে সুখ নেই: রিজভী

» ঈদের দিন বঙ্গভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন রাষ্ট্রপতি

» আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী

» ফের ভাইরাল আলিয়া ভাটের ডিপফেক ভিডিও

» বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতেই অবসরের ঘোষণা ডেভিডের

» ঈদেও মুক্তি নেই গাজার বাসিন্দাদের

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

অস্থির মাছ-মাংসের বাজার, ব্রয়লারের কেজি বেড়ে ২৪০

ফাইল ছবি

 

রমজানের আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। পবিত্র এই মাসটি শুরুর আগেই অস্থিরতা দেখা দিয়েছে নিত্যপণ্যের বাজারে। সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে মাছ-মাংসের দাম। এক লাফে ৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। তবে সবজির বাজারে কিছুটা স্বস্তি রয়েছে।

 

শুক্রবার (৮ মার্চ) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। শুক্রবার ব্রয়লার মুরগি ২৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। যা গত সপ্তাহেও ২১০-২২০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। সোনালি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকা। আর গরুর মাংস ৭৫০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে। রমজানকে সামনে রেখে এই অস্তিরতা তৈরি হয়েছে বলে ক্রেতারা অভিযোগ করেন।

 

মাংসের মতো মাছের বাজারেও অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। সাইজ ভেদে তেলাপিয়া ২২০-২৩০ টাকা, পাঙাশ ২০০ থেকে ২৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। যা গেল সপ্তাহেও কেজিপ্রতি ১০ থেকে ২০ টাকা কম দামে বিক্রি হয়েছে। অন্য মাছের মধ্যে মাঝারি ও বড় আকারের চাষের রুই, কাতলা ও মৃগেল মাছের দাম প্রতি কেজি ৩০০ থেকে শুরু করে সাইজ ভেদে ৪০০-৪৫০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। ৬০০ টাকার নিচে নেই পাবদা, টেংরা, কই, বোয়াল, চিতল, আইড় ও ইলিশ মাছ। মাছ যত বড় তার দাম ততো বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে।

 

মাছ মাংসের বাজার চড়া হলেও এখনো কিছুটা স্বস্তি আছে সবজির বাজারে।

 

বাজারে ভাল মানের আলু ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। লম্বা বেগুন প্রতি কেজি ৫০-৬০ টাকা, গোল বেগুন ৬০-৭০ টাকা, ফুলকপি ৪০-৫০ টাকা পিস বিক্রি হচ্ছে। একই দামে মিলছে বাঁধাকপিও। শিম ৬০-৭০, টমেটো ৪০-৫০, করল্লা ৭০-৮০ টাকা, চিচিঙ্গা ৬০-৭০ টাকা, ঢেঁড়স ৭০-৮০ টাকা মান ও সাইজভেদে লাউ ৭০-৯০ টাকা, শশা ৭০-৮০, মুলা ৩০-৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে।

 

সরিষা শাকের আঁটি ১৫ টাকা, ডাটা শাক ১৫ টাকা, পালং ১০-১৫ টাকা, লাউ শাক ৩০-৪০, লাল শাক ১৫ টাকা, বতুয়া শাক ১৫-২০ টাকা আঁটি দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে বাজারে দোকানের তুলনায় ভ্যানে কিংবা ফুটপাতের দোকানগুলোতে প্রত্যেক সবজির দাম ৫-১০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে।

 

এদিকে কিছুতেই কমছে না পেঁয়াজের দাম। প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ১০০-১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে কিছুটা কমেছে আদা আর রসুনের দাম। নতুন রসুন ১৭০-১৯০ টাকা ও আদা ২০০-২২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। সূএ: ঢাকা মেইল ডটকম

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি। (দপ্তর সম্পাদক)  
উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা
 সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ,
ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন,
ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু,
নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল :০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com