রমজান সামনে রেখে অভিনব কারসাজি

পবিত্র রমজান শুরু হওয়ার আগেই অভিনব কারসাজিতে নেমেছে কতিপয় ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। তাদের কারসাজিতে রমজান শুরু হওয়ার প্রায় মাস দু-এক আগেই অতি প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি ১০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা। যদিও প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার কারসাজি রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান বলেন, ‘রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের কারসাজি রোধে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বাজার নিয়ন্ত্রণে এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি বাজার কারসাজি রোধে চূড়ান্ত রোডম্যাপ ঘোষণা করা হবে।’ চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে চেম্বারের পক্ষ থেকে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বাজার নিয়ন্ত্রণের জন্য মনিটরিং সেল গঠন করা হবে। রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের কারসাজি যাতে না হয় সেদিকে সজাগ থাকতে শীর্র্ষ ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করা হয়েছে।’ নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ব্যবসায়ী নেতা বলেন, ‘এতদিন কোনো উৎসবকে টার্গেট করেই কারসাজি করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়াত চিহ্নিত ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। এবার তারা একটু ভিন্ন কৌশলে পণ্যের দামের কারসাজি করছে। ওই কৌশলের অংশ হিসেবে রমজান শুরু দুই মাস আগে থেকেই বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়িয়েছে কেজিপ্রতি ১০ থেকে ১৫০ টাকা।’ আরেক ব্যবসায়ী বলেন, ‘রমজান কিংবা কোনো উৎসবের আগে আগে প্রশাসনের তৎপরতা থাকে বেশি। দাম বাড়লেও গণমাধ্যমগুলোতে ফলাও করে প্রচার করা হয়। তাই নতুন কৌশলের অংশ হিসেবে রমজান শুরু হওয়ার আগেই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ানো হয়েছে।’ অনুসন্ধানে জানা যায়, এবারও রমজানকে সামনে রেখে পণ্যের কারসাজিতে অভিনব কৌশলে মাঠে নেমেছে চট্টগ্রামের কমপক্ষে ১০ ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। এরই মধ্যে কারসাজি করে ভোজ্য তেল, ছোলা, মসুর ডাল, আদা, রসুন, চিনি এবং খেজুরসহ রমজানের অতি প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ানো হয়েছে কেজিপ্রতি সর্বনিম্ন ১০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা। গত এক মাসের ব্যবধানে দেশের অন্যতম পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জে সয়াবিন তেলের মণপ্রতি দাম বেড়েছে ৩৫০ টাকা থেকে ৪০০ টাকা। পাম তেলের দাম বেড়েছে মণপ্রতি ১০০ টাকা থেকে ১২০ টাকা। ছোলার দাম বেড়েছে ৪৫০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা। চিনির দাম বেড়েছে মণপ্রতি ২০০ টাকা থেকে ২২০ টাকা। হঠাৎ দাম বৃদ্ধির বিষয়ে কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়েছে আন্তর্জাতিক বাজারে। রপ্তানিকারক দেশগুলোতে উৎপাদন কমে গেছে। বিশ্ব বাণিজ্যের অবস্থাও খুব একটা ভালো না। তাই গত কয়েক মাস ধরে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম ওঠা-নামা করছে।সূএ:বাংলাদেশ প্রতিদিন

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» মিটার চুরি করে বিকাশে টাকা নিয়ে ফেরত দিচ্ছেন চোর চক্র!

» ১৯ মার্চ মুক্তি পাচ্ছে জয়ার ‘অলাতচক্র’

» অস্ত্রসহ সাত নৌ-ডাকাত আটক

» রাজধানীতে ‍আজ বন্ধ থাকবে যে সব মার্কেট ও দোকানপাট,

» মার্চে কালবৈশাখী, এপ্রিলে ঘূর্ণিঝড়-তীব্র তাপপ্রবাহের পূর্বাভাস

» মৃত্যুর পর সুখ-শান্তি কিংবা শাস্তি কখন শুরু হবে?

» শেষরাতের স্বপ্ন

» সৌদিতে লিফট ছিঁড়ে বাংলাদেশির মৃত্যু

» মুশতাক আহমেদের মৃত্যু অনভিপ্রেত : তথ্যমন্ত্রী

» মুশতাকের মৃত্যুতে তদন্ত হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

রমজান সামনে রেখে অভিনব কারসাজি

পবিত্র রমজান শুরু হওয়ার আগেই অভিনব কারসাজিতে নেমেছে কতিপয় ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। তাদের কারসাজিতে রমজান শুরু হওয়ার প্রায় মাস দু-এক আগেই অতি প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি ১০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা। যদিও প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার কারসাজি রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান বলেন, ‘রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের কারসাজি রোধে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বাজার নিয়ন্ত্রণে এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি বাজার কারসাজি রোধে চূড়ান্ত রোডম্যাপ ঘোষণা করা হবে।’ চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে চেম্বারের পক্ষ থেকে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বাজার নিয়ন্ত্রণের জন্য মনিটরিং সেল গঠন করা হবে। রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের কারসাজি যাতে না হয় সেদিকে সজাগ থাকতে শীর্র্ষ ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করা হয়েছে।’ নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ব্যবসায়ী নেতা বলেন, ‘এতদিন কোনো উৎসবকে টার্গেট করেই কারসাজি করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়াত চিহ্নিত ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। এবার তারা একটু ভিন্ন কৌশলে পণ্যের দামের কারসাজি করছে। ওই কৌশলের অংশ হিসেবে রমজান শুরু দুই মাস আগে থেকেই বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়িয়েছে কেজিপ্রতি ১০ থেকে ১৫০ টাকা।’ আরেক ব্যবসায়ী বলেন, ‘রমজান কিংবা কোনো উৎসবের আগে আগে প্রশাসনের তৎপরতা থাকে বেশি। দাম বাড়লেও গণমাধ্যমগুলোতে ফলাও করে প্রচার করা হয়। তাই নতুন কৌশলের অংশ হিসেবে রমজান শুরু হওয়ার আগেই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ানো হয়েছে।’ অনুসন্ধানে জানা যায়, এবারও রমজানকে সামনে রেখে পণ্যের কারসাজিতে অভিনব কৌশলে মাঠে নেমেছে চট্টগ্রামের কমপক্ষে ১০ ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। এরই মধ্যে কারসাজি করে ভোজ্য তেল, ছোলা, মসুর ডাল, আদা, রসুন, চিনি এবং খেজুরসহ রমজানের অতি প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ানো হয়েছে কেজিপ্রতি সর্বনিম্ন ১০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা। গত এক মাসের ব্যবধানে দেশের অন্যতম পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জে সয়াবিন তেলের মণপ্রতি দাম বেড়েছে ৩৫০ টাকা থেকে ৪০০ টাকা। পাম তেলের দাম বেড়েছে মণপ্রতি ১০০ টাকা থেকে ১২০ টাকা। ছোলার দাম বেড়েছে ৪৫০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা। চিনির দাম বেড়েছে মণপ্রতি ২০০ টাকা থেকে ২২০ টাকা। হঠাৎ দাম বৃদ্ধির বিষয়ে কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়েছে আন্তর্জাতিক বাজারে। রপ্তানিকারক দেশগুলোতে উৎপাদন কমে গেছে। বিশ্ব বাণিজ্যের অবস্থাও খুব একটা ভালো না। তাই গত কয়েক মাস ধরে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম ওঠা-নামা করছে।সূএ:বাংলাদেশ প্রতিদিন

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com