যমুনার ভাসমান নৌকায় নিরাপদ জুয়ার আসর!

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে ভাসমান নৌকায় অভিনব কায়দায় শতশত লোকের সমাগমে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা হয়। ঢাকাসহ সারাদেশের জুয়াড়িরা নিরাপদ আস্তানা ভেবে এই ভাসমান জুয়ার আসরে আসছেন। শুধু জুয়াই নয়, সেখানে অবাদে চলছে মাদক বিক্রি ও সেবন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার কুঠিবয়ড়া হতে গাবসারার রামপুর পর্যন্ত চরাঞ্চলের বিভিন্ন পয়েন্টে ভাসমান এ জুয়া খেলা চলছে। ইঞ্জিনচালিত ছোট ছোট নৌকাযোগে জুয়াড়িরা মাঝ নদীতে যাচ্ছে। সেখানে থাকা জুয়ার নৌকা অপেক্ষা করছে তাদের নিতে। এরপর নিরাপদ স্থানে নৌকা ভাসিয়ে দিয়ে তাতেই চলে জুয়া খেলা। আর এই খেলা নজরদারী করতে জুয়াড় বোর্ড পরিচালনাকারীরা তাদের নিজস্ব লোকবল গোবিন্দাসী ঘাট থেকে গোপালপুর উপজেলার নলীন পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে নিয়োজিত রেখেছে। আর এ বোর্ড পরিচালনা করছে জুয়াড় হামলা মামলার জামিনে থাকা প্রধান আসামি ফজল মন্ডল।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, আয়োজকরা প্রভাবশালী। সেইসঙ্গে প্রশাসন ও ক্ষমতাবানদের সঙ্গে তাদের যোগসাজশ থাকায় ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পান না স্থানীয়রা। প্রতিদিনই এখানে চলছে লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা আর মাদক সেবন।

 

এ বিষয়ে গোবিন্দাসী নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল মান্নান জানান, যমুনা নদীর বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব হতে গোপালপুরের নলীন পর্যন্ত নৌ পুলিশ তাদের দায়িত্ব পালন করে। এর মধ্যে কোথাও নদীতে ভাসমান নৌকায় জুয়া খেলার কোন খবর নেই। তবে থানার অধীন বিভিন্ন নদীর শাখা-প্রশাখা বা খালগুলোতে হয়তবা জুয়া খেলা চলতে পারে।

 

ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম জানান, ভাসমান জুয়া খেলার কোন তথ্য নেই তার কাছে। তবে সিরাজগঞ্জের সীমানায় জুয়া খেলার খবর পাওয়ার পর সেখানকার থানা পুলিশের মাধ্যমে সেটার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল।

 

প্রসঙ্গত, গত ২ জানুয়ারি ভূঞাপুরের গোবিন্দাসী যমুনা ঘাট সংলগ্ন কাঁশবনে জুয়ার আসরের সচিত্র সংবাদ সংগ্রহে গেলে সাংবাদিকদের উপর হামলা চালায় জুয়াড়িরা। এতে চার সাংবাদিকসহ ছয়জন আহত হয়। ওই রাতেই ডিবিসি নিউজের টাঙ্গাইল প্রতিনিধি সোহেল তালুকদার বাদী হয়ে জুয়াড়ি ফজল মন্ডলকে প্রধান আসামি করে আটজনের নাম উল্লেখহ অজ্ঞাত শতাধিক জুয়াড়ির বিরুদ্ধে ভূঞাপুর থানায় মামলা করেন। পরে ভূঞাপুর থানা পুলিশ ফজল মন্ডলকে প্রধান আসামি করে ১৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা করে। সূএ:ঢাকাটাইমস

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভূমিকা জনমনে আস্থার সৃষ্টি করেছে

» লালমনিরহাটের ২টিতে আওয়ামী লীগ, একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী

» মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হলেন মিছবাহুর রহমান

» লক্ষ্মীপুরের তিন ইউপিতে নৌকার প্রার্থীরা জয়ী

» রাতে শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়নস লিগ

» হাসপাতাল থেকে মেয়র আতিকের ভিডিও বার্তা

» সমন্বিতভাবে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ সম্ভব: স্পিকার

» ‘ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে গিয়ে’ করোনায় আক্রান্ত তথ্যমন্ত্রী

» ধর্ষণকারী আমাদের কেউ হতে পারেনা!!!

» সুষ্ঠু ভাবে লালমনিরহাটের ইউনিয়ন উপ-নির্বাচন সম্পূর্ণ

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

যমুনার ভাসমান নৌকায় নিরাপদ জুয়ার আসর!

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে ভাসমান নৌকায় অভিনব কায়দায় শতশত লোকের সমাগমে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা হয়। ঢাকাসহ সারাদেশের জুয়াড়িরা নিরাপদ আস্তানা ভেবে এই ভাসমান জুয়ার আসরে আসছেন। শুধু জুয়াই নয়, সেখানে অবাদে চলছে মাদক বিক্রি ও সেবন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার কুঠিবয়ড়া হতে গাবসারার রামপুর পর্যন্ত চরাঞ্চলের বিভিন্ন পয়েন্টে ভাসমান এ জুয়া খেলা চলছে। ইঞ্জিনচালিত ছোট ছোট নৌকাযোগে জুয়াড়িরা মাঝ নদীতে যাচ্ছে। সেখানে থাকা জুয়ার নৌকা অপেক্ষা করছে তাদের নিতে। এরপর নিরাপদ স্থানে নৌকা ভাসিয়ে দিয়ে তাতেই চলে জুয়া খেলা। আর এই খেলা নজরদারী করতে জুয়াড় বোর্ড পরিচালনাকারীরা তাদের নিজস্ব লোকবল গোবিন্দাসী ঘাট থেকে গোপালপুর উপজেলার নলীন পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে নিয়োজিত রেখেছে। আর এ বোর্ড পরিচালনা করছে জুয়াড় হামলা মামলার জামিনে থাকা প্রধান আসামি ফজল মন্ডল।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, আয়োজকরা প্রভাবশালী। সেইসঙ্গে প্রশাসন ও ক্ষমতাবানদের সঙ্গে তাদের যোগসাজশ থাকায় ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পান না স্থানীয়রা। প্রতিদিনই এখানে চলছে লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা আর মাদক সেবন।

 

এ বিষয়ে গোবিন্দাসী নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল মান্নান জানান, যমুনা নদীর বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব হতে গোপালপুরের নলীন পর্যন্ত নৌ পুলিশ তাদের দায়িত্ব পালন করে। এর মধ্যে কোথাও নদীতে ভাসমান নৌকায় জুয়া খেলার কোন খবর নেই। তবে থানার অধীন বিভিন্ন নদীর শাখা-প্রশাখা বা খালগুলোতে হয়তবা জুয়া খেলা চলতে পারে।

 

ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম জানান, ভাসমান জুয়া খেলার কোন তথ্য নেই তার কাছে। তবে সিরাজগঞ্জের সীমানায় জুয়া খেলার খবর পাওয়ার পর সেখানকার থানা পুলিশের মাধ্যমে সেটার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল।

 

প্রসঙ্গত, গত ২ জানুয়ারি ভূঞাপুরের গোবিন্দাসী যমুনা ঘাট সংলগ্ন কাঁশবনে জুয়ার আসরের সচিত্র সংবাদ সংগ্রহে গেলে সাংবাদিকদের উপর হামলা চালায় জুয়াড়িরা। এতে চার সাংবাদিকসহ ছয়জন আহত হয়। ওই রাতেই ডিবিসি নিউজের টাঙ্গাইল প্রতিনিধি সোহেল তালুকদার বাদী হয়ে জুয়াড়ি ফজল মন্ডলকে প্রধান আসামি করে আটজনের নাম উল্লেখহ অজ্ঞাত শতাধিক জুয়াড়ির বিরুদ্ধে ভূঞাপুর থানায় মামলা করেন। পরে ভূঞাপুর থানা পুলিশ ফজল মন্ডলকে প্রধান আসামি করে ১৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা করে। সূএ:ঢাকাটাইমস

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com