ভালো ছেলেরা কেন প্রেমিকা পায় না?

ছেলেটার ব্যক্তিত্ব আছে। কত সুন্দর করে কথা বলে। নম্র, ভদ্র, সদাচারী। পড়াশুনায় খুবই সিরিয়াস। ক্যারিয়ার সচেতন সে। টিউশনি করে পড়াশুনা করছে, সংগ্রামী জীবন। মা-বাবাকে সে এখন থেকেই দেখাশুনা করে। কাজের ক্ষেত্রেও দক্ষ ও পারদর্শী, সময়ানুবর্তী। একসাথে এতকিছু সামলাতে পারে সে। সকল বন্ধুই ভালবাসে তাকে।

এরপরও এই ভাল ছেলেটার ভাগ্যে প্রেম জোটেনি। অথবা, ক্ষণিক মুগ্ধতায় কোন প্রেমিকা এসেও স্থায়ী হয়নি। হারিয়ে গেছে। তারপর হৃদয় ভাঙার গোপন যন্ত্রণা বয়ে নিয়ে বেড়ায় এই ‘ভাল’ ছেলেরা। অথচ আত্মীয়-স্বজন বা বন্ধুরা এই ভাল ছেলেটার জন্য একটা লক্ষ্মী বউ প্রত্যাশা করতেই পারে। কিন্তু বাস্তবে কি তাই ঘটে?

 

এর পিছনে রয়েছে কয়েকটি কারণ। সেগুলোই আজ তুলে ধরা হলো:-

১) গায়ে পড়া স্বভাব নেই ভালো ছেলেরা শুধু মেয়ে কেন, কারো সঙ্গেই গায়ে পড়ে আলাপ করতে পারেন না। এমনকি কেউ আলাপ করতে এলেও অনেকেই নিজের মাঝে গুটিয়ে থাকেন। ফলে তাদের পরিচিত মানুষের পরিধি হয় অনেক কম। আর মেয়েদের সঙ্গে পরিচয়ও হয় কম।

২) তারা ছলকলা বোঝে না প্রেম করতে ও কোন মেয়েকে প্রেমে ফেলতে গেলে একটু কৌশল, একটু ছলকলা জানতেই হয়। বলাই বাহুল্য যে ভালো ছেলেরা এসব থেকে একশ হাত দূরে থাকেন এবং এগুলো বোঝেনও না।

৩) ভালো ছেলেরা ‘বোরিং’ হয় মেয়েদের একটা চিরকালের আগ্রহ আছে একটু খারাপ ছেলেদের প্রতি। তাদের প্রেমিকা হওয়াকে মেয়েদের কাছে একটা চ্যালেঞ্জ মনে হয়। অন্যদিকে ভালো ছেলেদেরকে তাদের চোখে মনে হয় ‘বোরিং’।

৪) মায়ের কথা মেনে চলে বেশিরভাগ ভালো ছেলে মায়ের কথা খুব শোনে। মায়ের পছন্দ ছাড়া বিয়ে করবো না, কিংবা সব সিধান্তে মাকে শামিল করে তারা। এই ব্যাপারটা বেশিরভাগ মেয়ে পছন্দ করে না।

৫) ক্যারিয়ার নিয়ে বেশী সচেতন বেশিরভাগ ভালো ছেলেই নিজের লেখাপড়া ও ক্যারিয়ার নিয়ে খুব ব্যস্ত থাকেন। আর এই সবের মাঝেই হারিয়ে যায় প্রেম ও অন্যান্য ব্যাপার। যখন বুঝতে পারেন, ততক্ষণে দেরি হয়ে গেছে।

৬) মিথ্যা বলতে পারে না প্রেমের সম্পর্কে টুকটাক নির্দোষ মিথ্যা থাকেই। নিজের সম্পর্কে একটু বাড়িয়ে বলা, নিজেকে একটু হিরো সাজিয়ে উপস্থাপন করা ইত্যাদি ভালো ছেলেরা পারেই না একদম। ফলে মেয়েরাও পটে না সহজে।

৭) শুরুতেই সিরিয়াস হয়ে যায় কারো সঙ্গে প্রথম প্রথম ডেটিং-এই এই ধরণের ছেলেরা খুব বেশী সিরিয়াস হয়ে যায়। মেয়েটির ওপরে অধিকার ফলাতে থাকে। আর এটাই সম্পর্কটাকে সামনে এগোতে বাঁধা দেয়।

৮) প্রচণ্ড আবেগী হয় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভালো ছেলেরা হয় প্রচণ্ড আবেগী ও স্পর্শকাতর। এরা খুব অভিমানী স্বভাবেরও হয়। তাই তুচ্ছ কারণে এদের সম্পর্ক ভাঙে এবং নতুন সম্পর্ক হয় না।

৯) খারাপ মেয়েদের খপ্পরে পড়ে বেশিরভাগ ভালো ছেলেই সত্য ও মিথ্যার মাঝে পার্থক্য বুঝতে পারে না। ফলে তারা পুরুষ লোভী কিছু খারাপ মেয়েদের খপ্পরে পড়ে। এবং অন্য মেয়েদের উপর থেকেও বিশ্বাস হারিয়ে ফেলে।

১০) সম্পর্ক ভীতি কাজ করে প্রেম করলে কী হবে? যদি বিয়ে না করতে পারি? বাসায় জানলে কী হবে? কীভাবে প্রপোজ করবো… সম্পর্ক নিয়ে ইত্যাদি হরেক রকম ভীতি কাজ করে অনেকের মনেই। আর এর ফলে তাদের প্রেম করাটাই হয়ে ওঠে না। সূএ:বাংলাদেশ জার্নাল

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জেমস বন্ডের চিরবিদায়

» গার্মেন্টসের স্টাফ বাসের আড়ালে ডাকাতি!

» ভয়ংকর বাবা-ছেলে, টার্গেট কারাবন্দিদের স্ত্রী-কন্যা,

» ভাড়া‍য় মেলে বউ, আবার ছেড়েও দিতে পারেন ইচ্ছে মত,

» মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও চলতি বছরে প্রবাসী আয়ে বিশ্বে ৮ম বাংলাদেশ

» দেশকে যারা ধ্বংস করতে চেয়েছে তারা ব্যর্থ হয়েছে : মতিয়া চৌধুরী

» জাসদ হার না মানা কর্মীর দল: ইনু

» আ.লীগের রাজনৈতিক তাণ্ডব টেকনাফ-তেঁতুলিয়া পর্যন্ত ছড়িয়েছে : নুর

» দলকানা বিএনপির মুখে শুধুই সমালোচনা: হাছান মাহমুদ

» ডিএমপির পদোন্নতিপ্রাপ্ত ২৪ পুলিশ পরিদর্শককে বদলি

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ভালো ছেলেরা কেন প্রেমিকা পায় না?

ছেলেটার ব্যক্তিত্ব আছে। কত সুন্দর করে কথা বলে। নম্র, ভদ্র, সদাচারী। পড়াশুনায় খুবই সিরিয়াস। ক্যারিয়ার সচেতন সে। টিউশনি করে পড়াশুনা করছে, সংগ্রামী জীবন। মা-বাবাকে সে এখন থেকেই দেখাশুনা করে। কাজের ক্ষেত্রেও দক্ষ ও পারদর্শী, সময়ানুবর্তী। একসাথে এতকিছু সামলাতে পারে সে। সকল বন্ধুই ভালবাসে তাকে।

এরপরও এই ভাল ছেলেটার ভাগ্যে প্রেম জোটেনি। অথবা, ক্ষণিক মুগ্ধতায় কোন প্রেমিকা এসেও স্থায়ী হয়নি। হারিয়ে গেছে। তারপর হৃদয় ভাঙার গোপন যন্ত্রণা বয়ে নিয়ে বেড়ায় এই ‘ভাল’ ছেলেরা। অথচ আত্মীয়-স্বজন বা বন্ধুরা এই ভাল ছেলেটার জন্য একটা লক্ষ্মী বউ প্রত্যাশা করতেই পারে। কিন্তু বাস্তবে কি তাই ঘটে?

 

এর পিছনে রয়েছে কয়েকটি কারণ। সেগুলোই আজ তুলে ধরা হলো:-

১) গায়ে পড়া স্বভাব নেই ভালো ছেলেরা শুধু মেয়ে কেন, কারো সঙ্গেই গায়ে পড়ে আলাপ করতে পারেন না। এমনকি কেউ আলাপ করতে এলেও অনেকেই নিজের মাঝে গুটিয়ে থাকেন। ফলে তাদের পরিচিত মানুষের পরিধি হয় অনেক কম। আর মেয়েদের সঙ্গে পরিচয়ও হয় কম।

২) তারা ছলকলা বোঝে না প্রেম করতে ও কোন মেয়েকে প্রেমে ফেলতে গেলে একটু কৌশল, একটু ছলকলা জানতেই হয়। বলাই বাহুল্য যে ভালো ছেলেরা এসব থেকে একশ হাত দূরে থাকেন এবং এগুলো বোঝেনও না।

৩) ভালো ছেলেরা ‘বোরিং’ হয় মেয়েদের একটা চিরকালের আগ্রহ আছে একটু খারাপ ছেলেদের প্রতি। তাদের প্রেমিকা হওয়াকে মেয়েদের কাছে একটা চ্যালেঞ্জ মনে হয়। অন্যদিকে ভালো ছেলেদেরকে তাদের চোখে মনে হয় ‘বোরিং’।

৪) মায়ের কথা মেনে চলে বেশিরভাগ ভালো ছেলে মায়ের কথা খুব শোনে। মায়ের পছন্দ ছাড়া বিয়ে করবো না, কিংবা সব সিধান্তে মাকে শামিল করে তারা। এই ব্যাপারটা বেশিরভাগ মেয়ে পছন্দ করে না।

৫) ক্যারিয়ার নিয়ে বেশী সচেতন বেশিরভাগ ভালো ছেলেই নিজের লেখাপড়া ও ক্যারিয়ার নিয়ে খুব ব্যস্ত থাকেন। আর এই সবের মাঝেই হারিয়ে যায় প্রেম ও অন্যান্য ব্যাপার। যখন বুঝতে পারেন, ততক্ষণে দেরি হয়ে গেছে।

৬) মিথ্যা বলতে পারে না প্রেমের সম্পর্কে টুকটাক নির্দোষ মিথ্যা থাকেই। নিজের সম্পর্কে একটু বাড়িয়ে বলা, নিজেকে একটু হিরো সাজিয়ে উপস্থাপন করা ইত্যাদি ভালো ছেলেরা পারেই না একদম। ফলে মেয়েরাও পটে না সহজে।

৭) শুরুতেই সিরিয়াস হয়ে যায় কারো সঙ্গে প্রথম প্রথম ডেটিং-এই এই ধরণের ছেলেরা খুব বেশী সিরিয়াস হয়ে যায়। মেয়েটির ওপরে অধিকার ফলাতে থাকে। আর এটাই সম্পর্কটাকে সামনে এগোতে বাঁধা দেয়।

৮) প্রচণ্ড আবেগী হয় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভালো ছেলেরা হয় প্রচণ্ড আবেগী ও স্পর্শকাতর। এরা খুব অভিমানী স্বভাবেরও হয়। তাই তুচ্ছ কারণে এদের সম্পর্ক ভাঙে এবং নতুন সম্পর্ক হয় না।

৯) খারাপ মেয়েদের খপ্পরে পড়ে বেশিরভাগ ভালো ছেলেই সত্য ও মিথ্যার মাঝে পার্থক্য বুঝতে পারে না। ফলে তারা পুরুষ লোভী কিছু খারাপ মেয়েদের খপ্পরে পড়ে। এবং অন্য মেয়েদের উপর থেকেও বিশ্বাস হারিয়ে ফেলে।

১০) সম্পর্ক ভীতি কাজ করে প্রেম করলে কী হবে? যদি বিয়ে না করতে পারি? বাসায় জানলে কী হবে? কীভাবে প্রপোজ করবো… সম্পর্ক নিয়ে ইত্যাদি হরেক রকম ভীতি কাজ করে অনেকের মনেই। আর এর ফলে তাদের প্রেম করাটাই হয়ে ওঠে না। সূএ:বাংলাদেশ জার্নাল

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com