ফাঁকা রাস্তা মোটরসাই‌কে‌লের দখলে, নেই হেল‌মেট না আছে মাস্ক

সন্ধ্যা তখন ঘনিয়ে এসেছে। রাজধানীর নীলক্ষেতের অদূরে ইডেন মহিলা কলেজের সামনে সারিবদ্ধভাবে পার্কিং করা অসংখ্য মোটরসাইকেল। রাস্তার দুপাশে ঈদের নতুন পোশাক পরা ২৫-৩০ জন মোটরসাইকেল চালক-আরোহীকে লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেল।

তাদের মাঝে কিশোর, তরুণ-তরুণী ও শিশুর সংখ্যাই বেশি। তাদের মধ্যে কয়েকজন বয়স্ক মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী গৃহবধূ ও শিশুও ছিল। সেখানে বেশ কয়েকজন সেনা সদস্য তখন তাদের কাছে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র, হেলমেট ছাড়া একাধিক যাত্রী নিয়ে মোটরসাইকেল চালানো এবং মাস্ক না পরার কারণ জানতে চাইছিলেন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি তারা জানেন কি না, তাও জিজ্ঞাসা করছিলেন। অধিকাংশের মুখে কথা নেই। চুপচাপ মাথা নিচু করে দাঁড়িয়ে ছিলেন তারা।

মঙ্গলবার (২৬ মে) ঈদের দ্বিতীয় দিনে  এ প্রতিবেদকের চোখে এ দৃশ্য ধরা পড়ে। জানা গেল, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য সচেতনতা সম্পর্কে অসচেতন মোটরসাইকেল চালক ও আরোহীদের ভালোভাবে অবহিত করতে সেনা চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। তবে দায়িত্বরত সেনা সদস্যরা তাদের এ কার্যক্রমের ফটোগ্রাফ বা ভিডিও ধারণ করতে এ প্রতিবেদককে অনুমতি দেননি। একজন সদস্য বলেন, তারা আইএসপিআরের মাধ্যমে যা জানানোর গণমাধ্যমকে জানিয়ে থাকেন।

রাজধানীসহ সারাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলছে। সবচাইতে ঝুঁকিতে রয়েছে রাজধানী ঢাকা। স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে করোনাভাইরাস সম্পর্কিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা প্রতিদিনই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

কিন্তু কে শোনে কার কথা। ঈদ উপলক্ষে নগরীর অধিকাংশ রাস্তাঘাট ফাঁকা থাকায় রাজপথ কিশোর-তরুণদের মোটরসাইকেলের দখলে চলে গেছে। বিভিন্ন সড়কে তারা মোটরসাইকেল নিয়ে দ্রুত গতিতে ছুটে চলছেন।

এক একটি মোটরসাইকেলে সর্বনিম্ন দুজন থেকে সর্বোচ্চ চারজন পর্যন্ত আরোহী দেখা গেছে। তাদের মধ্যে অধিকাংশ চালকের মাথায় হেলমেট নেই, নেই মুখে মাস্ক। একাধিক আরোহী নিয়ে মোটরসাইকেল বেপরোয়াভাবে চালানোর কারণে যে কোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

এখন মোটরসাইকেলের পড়ে রাস্তায় প্রাইভেটকার বেশি চলছে। রাস্তা ফাঁকা পেয়ে প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল উভয় চালকই ট্রাফিক সিগন্যাল না মেনে দ্রুতগতিতে চলাচল করায় দুর্ঘটনার অধিক ঝুঁকির সৃষ্টি হচ্ছে।

স্বাস্থ্যসচেতনতায় আজ শেষ বিকেলে ইডেন মহিলা কলেজের সামনে রাস্তায় সেনাসদস্যদের কার্যক্রম দেখা গেলেও নগরীর বিভিন্ন রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশের তেমন কোনো তৎপরতা চোখে পড়েনি।সূএ:জাগো নিউজের

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ইসলামপুরে বন্যায় পানিবন্দি ২ লাখ মানুষ: সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

» খুবই চতুর, ধুরন্ধর ও অর্থলিপ্সু সাহেদ : র‌্যাব ডিজি

» ‘নিত্য দিনের জীবনযাপন’

» ‘গণপরিবহন নয়, পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকবে’

» নেতিবাচক প্রতিবেদন আসা অনলাইন পোর্টাল প্রয়োজনে বন্ধ : তথ্যমন্ত্রী

» ৭ দিনের মধ্যে ওয়েব সিরিজের আপত্তিকর দৃশ্য সরানোর নির্দেশ

» ইন্দোনেশিয়ায় বন্যা-ভূমিধসে ১৬ মৃত্যু, নিখোঁজ ২৩

» সীমান্তে ৫১ ভরি স্বর্ণসহ নারী আটক

» নতুন আঙ্গিকে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মসূচি শুরু হচ্ছে ঢাকা দক্ষিণে

» প্রেমিকার জন্য কবিতা লিখে ট্রলের শিকার দেব

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মাকসুদা লিসা।

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ফাঁকা রাস্তা মোটরসাই‌কে‌লের দখলে, নেই হেল‌মেট না আছে মাস্ক

সন্ধ্যা তখন ঘনিয়ে এসেছে। রাজধানীর নীলক্ষেতের অদূরে ইডেন মহিলা কলেজের সামনে সারিবদ্ধভাবে পার্কিং করা অসংখ্য মোটরসাইকেল। রাস্তার দুপাশে ঈদের নতুন পোশাক পরা ২৫-৩০ জন মোটরসাইকেল চালক-আরোহীকে লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেল।

তাদের মাঝে কিশোর, তরুণ-তরুণী ও শিশুর সংখ্যাই বেশি। তাদের মধ্যে কয়েকজন বয়স্ক মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী গৃহবধূ ও শিশুও ছিল। সেখানে বেশ কয়েকজন সেনা সদস্য তখন তাদের কাছে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র, হেলমেট ছাড়া একাধিক যাত্রী নিয়ে মোটরসাইকেল চালানো এবং মাস্ক না পরার কারণ জানতে চাইছিলেন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি তারা জানেন কি না, তাও জিজ্ঞাসা করছিলেন। অধিকাংশের মুখে কথা নেই। চুপচাপ মাথা নিচু করে দাঁড়িয়ে ছিলেন তারা।

মঙ্গলবার (২৬ মে) ঈদের দ্বিতীয় দিনে  এ প্রতিবেদকের চোখে এ দৃশ্য ধরা পড়ে। জানা গেল, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য সচেতনতা সম্পর্কে অসচেতন মোটরসাইকেল চালক ও আরোহীদের ভালোভাবে অবহিত করতে সেনা চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। তবে দায়িত্বরত সেনা সদস্যরা তাদের এ কার্যক্রমের ফটোগ্রাফ বা ভিডিও ধারণ করতে এ প্রতিবেদককে অনুমতি দেননি। একজন সদস্য বলেন, তারা আইএসপিআরের মাধ্যমে যা জানানোর গণমাধ্যমকে জানিয়ে থাকেন।

রাজধানীসহ সারাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলছে। সবচাইতে ঝুঁকিতে রয়েছে রাজধানী ঢাকা। স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে করোনাভাইরাস সম্পর্কিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা প্রতিদিনই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

কিন্তু কে শোনে কার কথা। ঈদ উপলক্ষে নগরীর অধিকাংশ রাস্তাঘাট ফাঁকা থাকায় রাজপথ কিশোর-তরুণদের মোটরসাইকেলের দখলে চলে গেছে। বিভিন্ন সড়কে তারা মোটরসাইকেল নিয়ে দ্রুত গতিতে ছুটে চলছেন।

এক একটি মোটরসাইকেলে সর্বনিম্ন দুজন থেকে সর্বোচ্চ চারজন পর্যন্ত আরোহী দেখা গেছে। তাদের মধ্যে অধিকাংশ চালকের মাথায় হেলমেট নেই, নেই মুখে মাস্ক। একাধিক আরোহী নিয়ে মোটরসাইকেল বেপরোয়াভাবে চালানোর কারণে যে কোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

এখন মোটরসাইকেলের পড়ে রাস্তায় প্রাইভেটকার বেশি চলছে। রাস্তা ফাঁকা পেয়ে প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল উভয় চালকই ট্রাফিক সিগন্যাল না মেনে দ্রুতগতিতে চলাচল করায় দুর্ঘটনার অধিক ঝুঁকির সৃষ্টি হচ্ছে।

স্বাস্থ্যসচেতনতায় আজ শেষ বিকেলে ইডেন মহিলা কলেজের সামনে রাস্তায় সেনাসদস্যদের কার্যক্রম দেখা গেলেও নগরীর বিভিন্ন রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশের তেমন কোনো তৎপরতা চোখে পড়েনি।সূএ:জাগো নিউজের

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মাকসুদা লিসা।

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com