ফরিদপুরে সজনে ডাঁটা বিক্রি হচ্ছে কেজি ১৫০ টাকা, হতাশ ক্রেতা

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার বিভিন্ন বাজারে বিক্রি হচ্ছে সজনে ডাঁটা। এখনো পুরোপুরি খাবারের যোগ্য না হলেও বাজারে এসেছে গ্রীষ্মের সুস্বাদু সবজি সজনে। তবে দাম বেশি বলেই মনে করছেন ক্রেতারা। ১ কেজি সজনে ডাঁটা বিক্রি হচ্ছে ১০০- ১৫০ টাকা।

 

বোয়ালমারীর বিভিন্ন বাজারে গিয়ে দেখা যায়, নতুন সবজি হিসেবে মানুষ আগ্রহ সহকারে ক্রয় করছেন। কিন্তু দাম শুনে অনেকেই হতাশ হয়েছেন। তবে বিত্তশালীরা চড়া দামে কিনে নিচ্ছেন।

ক্রেতা মো.শুভ সেক বলেন, সজনে ডাঁটা অনেক মজার একটি খাবার এবং এটি অনেক রোগের ওষুধ হিসেবে কাজ করে। গরমের সময় এই সবজিটি খেতে বেশ ভালোই লাগে। তবে এই সবজির যে পরিমাণ দাম রাখা হচ্ছে। সেই পুরো টাকা দিয়েই বাজার করা হয়ে যাবে। দাম কিছুটা কম হলে মানুষ কিনতে পারতো।

 

স্কুল শিক্ষক মুকুল বোস বলেন, ‘সজনেডাটাতে প্রচুর পুষ্টি রয়েছে। সজনের ফুল, ফল, পাতা, ছাল খুবই উপকারী মানব দেহের জন্য।’

 

হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক ইকবাল মিমার্সী বলেন, ‘আমরা সাজনাকে ওষুধি সবজি হিসেবে চিনি। ঠান্ডা লাগলে সাজনার ছালের ভর্তা বানিয়ে গরম ভাতের সাথে রোগীকে খেতে দিলে অনেক উপকার হয়, এছাড়া সাজনার ফুলের ভর্তা বানিয়েও খাওয়া যায়।একসময় গ্রামে বসন্ত রোগের প্রাদুুর্ভাব দেখা দিলে সাজনা ও দেশি আলুর ঝোল খাওয়ানো হতো।’

 

বোয়ালমারী উপজেলার ময়েনদিয়া বাজারে সজনে ডাঁটা বিক্রি করতে আসা মন্টু মিয়া জানান, আগে বাড়িতে খাবারের জন্য সজনেডাটা লাগাতাম। গত বছর বাড়িতে খাবারের পাশাপাশি বাজারে বিক্রি করেছি। এবার গাছে প্রচুর ফুল আসছে। কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে ভালো সজনে পাবো। এবার মোটামুটি দামে বিক্রি করছি কেজি ১০০-১৫০ টাকা দরে।প্রথমে এর দাম চড়া থাকলেও ২-১ সপ্তাহের মধ্যে এর দাম কমে যাবে।

 

বোয়ালমারী উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা প্রীতম কুমার হোড় বলেন, ‘সজনেকে বাণিজ্যিকভাবে চাষ করতে প্রশিক্ষণ দরকার। গাছ সম্পর্কেও ধারণা নিতে হবে কৃষকদের। এর চাষ বাণিজ্যিকভাবে করলে লাভবান হওয়া যাবে সহজেই।’

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» গফরগাঁওয়ে বাঁশ কাটা নিয়ে ঝগড়া, ছোট ভাইকে কুপিয়ে হত্যা

» ফেসবুকে ‘উসকানিমূলক’ পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে নিপুণ রায়ের বিরুদ্ধে থানায় জিডি

» আপাতত জ্বালানি তেলের দাম কমছে না, লোডশেডিং কমেছে: প্রতিমন্ত্রী

» আবরার ফাহাদের স্মরণসভায় ছাত্রলীগের হামলা

» পরিবেশ রক্ষায় প্রত্যেককে অন্তত একটি করে গাছ লাগানোর আহ্বান : শিক্ষামন্ত্রীর

» অবাধ সন্ত্রাসে নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না: জিএম কাদের

» জাতির পিতার সমাধিতে রাষ্ট্রপতির শ্রদ্ধা

» উন্নয়নের অগ্রগতিতে মুক্তি আনে নৌকা: নানক

» রাজধানীর বনানীর স্টার কাবাব ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে

» এক বা দুই বছর নয়, ৫০০ বছরেও বাড়ি ভাড়া বাড়েনি যে শহরে

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ফরিদপুরে সজনে ডাঁটা বিক্রি হচ্ছে কেজি ১৫০ টাকা, হতাশ ক্রেতা

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার বিভিন্ন বাজারে বিক্রি হচ্ছে সজনে ডাঁটা। এখনো পুরোপুরি খাবারের যোগ্য না হলেও বাজারে এসেছে গ্রীষ্মের সুস্বাদু সবজি সজনে। তবে দাম বেশি বলেই মনে করছেন ক্রেতারা। ১ কেজি সজনে ডাঁটা বিক্রি হচ্ছে ১০০- ১৫০ টাকা।

 

বোয়ালমারীর বিভিন্ন বাজারে গিয়ে দেখা যায়, নতুন সবজি হিসেবে মানুষ আগ্রহ সহকারে ক্রয় করছেন। কিন্তু দাম শুনে অনেকেই হতাশ হয়েছেন। তবে বিত্তশালীরা চড়া দামে কিনে নিচ্ছেন।

ক্রেতা মো.শুভ সেক বলেন, সজনে ডাঁটা অনেক মজার একটি খাবার এবং এটি অনেক রোগের ওষুধ হিসেবে কাজ করে। গরমের সময় এই সবজিটি খেতে বেশ ভালোই লাগে। তবে এই সবজির যে পরিমাণ দাম রাখা হচ্ছে। সেই পুরো টাকা দিয়েই বাজার করা হয়ে যাবে। দাম কিছুটা কম হলে মানুষ কিনতে পারতো।

 

স্কুল শিক্ষক মুকুল বোস বলেন, ‘সজনেডাটাতে প্রচুর পুষ্টি রয়েছে। সজনের ফুল, ফল, পাতা, ছাল খুবই উপকারী মানব দেহের জন্য।’

 

হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক ইকবাল মিমার্সী বলেন, ‘আমরা সাজনাকে ওষুধি সবজি হিসেবে চিনি। ঠান্ডা লাগলে সাজনার ছালের ভর্তা বানিয়ে গরম ভাতের সাথে রোগীকে খেতে দিলে অনেক উপকার হয়, এছাড়া সাজনার ফুলের ভর্তা বানিয়েও খাওয়া যায়।একসময় গ্রামে বসন্ত রোগের প্রাদুুর্ভাব দেখা দিলে সাজনা ও দেশি আলুর ঝোল খাওয়ানো হতো।’

 

বোয়ালমারী উপজেলার ময়েনদিয়া বাজারে সজনে ডাঁটা বিক্রি করতে আসা মন্টু মিয়া জানান, আগে বাড়িতে খাবারের জন্য সজনেডাটা লাগাতাম। গত বছর বাড়িতে খাবারের পাশাপাশি বাজারে বিক্রি করেছি। এবার গাছে প্রচুর ফুল আসছে। কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে ভালো সজনে পাবো। এবার মোটামুটি দামে বিক্রি করছি কেজি ১০০-১৫০ টাকা দরে।প্রথমে এর দাম চড়া থাকলেও ২-১ সপ্তাহের মধ্যে এর দাম কমে যাবে।

 

বোয়ালমারী উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা প্রীতম কুমার হোড় বলেন, ‘সজনেকে বাণিজ্যিকভাবে চাষ করতে প্রশিক্ষণ দরকার। গাছ সম্পর্কেও ধারণা নিতে হবে কৃষকদের। এর চাষ বাণিজ্যিকভাবে করলে লাভবান হওয়া যাবে সহজেই।’

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com