প্রবীণ সাংবাদিক, ভাষাসৈনিক আনোয়ারুল হক আর নেই

মফস্বল সাংবাদিকতার পথিকৃত, পাবনা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক সভাপতি দৈনিক ইত্তেফাকের প্রবীণ সাংবাদিক ভাষাসৈনিক আনোয়ারুল হক (৭৮) আর নেই।

মঙ্গলবার  দিবাগত রাত ১টা ৫ মিনিটে পাবনা শহরের শালগাড়িয়া মহল্লার নিজ বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। আনোয়ারুল হক বার্ধক্যজনিত কারণে দীর্ঘদিন শয্যাশায়ী ছিলেন। বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য, সাবেক ছাত্রনেতা নজমুল হক নান্নু ও পাবনা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক এম সাইদুল হক চুন্নু’র বড় ভাই মরহুম আনোয়ারুল হক। তার ছেলে সুশোভন হক টুটুল পাবনার সাবেক কৃতি ক্রিকেটার।

পাবনা প্রেসক্লাবের সম্পাদক আঁখিনূর ইসলাম রেমন জানান, বুধবার (৩০ জানুয়ারি) বাদ যোহর শহরের ঐতিহ্যবাহী চাঁপা মসজিদে তার নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। পরে সদরের আরিফপুর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২ মে পাবনা প্রেসক্লাবের ৫৬ বছর পূর্তিতে প্রবীণ সাংবাদিক রনেশ মৈত্র ও আনোয়ারুল হককে প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা-সম্মাননা দেয়া হয়। ১৯৬১ সালের ১ মে প্রতিষ্ঠিত পাবনা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন আনোয়ারুল হক। প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠার বছর ৮-৯ মে পাবনায় অনুষ্ঠিত হয় পূর্ব পাকিস্তান মফস্বল সাংবাদিক সম্মেলন। সেই সভা থেকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায় পূর্ব পাকিস্তান মফস্বল সাংবাদিক সমিতি, যা বর্তমানে বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি হিসেবে পরিচিত। ওই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন তৎকালীন মন্ত্রিসভার সদস্য বগুড়ার মো. হাবিবুর রহমান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন পাকিস্তান অবজারভারের সম্পাদক আবদুস সালাম, মর্নিং নিউজের এস জি এম বদরুদ্দিন। যে সম্মেলনের মাধ্যমে মফস্বল সাংবাদিকরা পেশার স্বীকৃতি তথা রিটেইনার, লাইনেজ, পোস্টাল চার্জ, টেলিগ্রাম চার্জ, ছবির বিলসহ অন্যান্য খরচ পাওয়া শুরু করেন। পাবনা প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠার মধ্যে দিয়েই সেদিন সংবাদপত্রে মফস্বলে কর্মরত প্রতিনিধিদের পেশার স্বীকৃতি ঘটেছিল। যাদের হাত ধরে এই স্বীকৃতি, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন আনোয়ারুল হক। তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দৈনিক ইত্তেফাকের পাবনা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতেন। ভাষা আন্দোলনেও রেখেছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» লিভার সিরোসিস কখন হয়?

» বয়স ‘কমাবে’ করলা!

» মালয়েশিয়ান তরুণীকে ছুরিকাঘাত, বাংলাদেশির ২০ বছরের জেল

» গাড়িতে গাড়িতে ‘গ্যাস বোমা’

» অভিনয়ে ফিরছেন তমালিকা

» অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকিতে ৪২২ হাসপাতাল

» পাঁচ হাজার ভয়ঙ্কর মৃত্যুকূপ জীবনের ঝুঁকি নিয়েই পুরান ঢাকায় মানুষের ঘরবসতি ব্যবসা-বাণিজ্য

» নারায়ণগঞ্জে আগুন, হুড়োহুড়িতে আহত ১০

» টেকনাফে শরণার্থী শিবিরে এক রোহিঙ্গা গুলিবিদ্ধ

» আশুলিয়ায় মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, এসআইসহ আহত ১০

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

প্রবীণ সাংবাদিক, ভাষাসৈনিক আনোয়ারুল হক আর নেই

মফস্বল সাংবাদিকতার পথিকৃত, পাবনা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক সভাপতি দৈনিক ইত্তেফাকের প্রবীণ সাংবাদিক ভাষাসৈনিক আনোয়ারুল হক (৭৮) আর নেই।

মঙ্গলবার  দিবাগত রাত ১টা ৫ মিনিটে পাবনা শহরের শালগাড়িয়া মহল্লার নিজ বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। আনোয়ারুল হক বার্ধক্যজনিত কারণে দীর্ঘদিন শয্যাশায়ী ছিলেন। বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য, সাবেক ছাত্রনেতা নজমুল হক নান্নু ও পাবনা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক এম সাইদুল হক চুন্নু’র বড় ভাই মরহুম আনোয়ারুল হক। তার ছেলে সুশোভন হক টুটুল পাবনার সাবেক কৃতি ক্রিকেটার।

পাবনা প্রেসক্লাবের সম্পাদক আঁখিনূর ইসলাম রেমন জানান, বুধবার (৩০ জানুয়ারি) বাদ যোহর শহরের ঐতিহ্যবাহী চাঁপা মসজিদে তার নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। পরে সদরের আরিফপুর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২ মে পাবনা প্রেসক্লাবের ৫৬ বছর পূর্তিতে প্রবীণ সাংবাদিক রনেশ মৈত্র ও আনোয়ারুল হককে প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা-সম্মাননা দেয়া হয়। ১৯৬১ সালের ১ মে প্রতিষ্ঠিত পাবনা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন আনোয়ারুল হক। প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠার বছর ৮-৯ মে পাবনায় অনুষ্ঠিত হয় পূর্ব পাকিস্তান মফস্বল সাংবাদিক সম্মেলন। সেই সভা থেকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায় পূর্ব পাকিস্তান মফস্বল সাংবাদিক সমিতি, যা বর্তমানে বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি হিসেবে পরিচিত। ওই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন তৎকালীন মন্ত্রিসভার সদস্য বগুড়ার মো. হাবিবুর রহমান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন পাকিস্তান অবজারভারের সম্পাদক আবদুস সালাম, মর্নিং নিউজের এস জি এম বদরুদ্দিন। যে সম্মেলনের মাধ্যমে মফস্বল সাংবাদিকরা পেশার স্বীকৃতি তথা রিটেইনার, লাইনেজ, পোস্টাল চার্জ, টেলিগ্রাম চার্জ, ছবির বিলসহ অন্যান্য খরচ পাওয়া শুরু করেন। পাবনা প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠার মধ্যে দিয়েই সেদিন সংবাদপত্রে মফস্বলে কর্মরত প্রতিনিধিদের পেশার স্বীকৃতি ঘটেছিল। যাদের হাত ধরে এই স্বীকৃতি, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন আনোয়ারুল হক। তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দৈনিক ইত্তেফাকের পাবনা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতেন। ভাষা আন্দোলনেও রেখেছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ,

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Design & Developed BY ThemesBazar.Com