গণপরিবহনে ডাকাতি ঠেকাতে পুশ বাটন

ডিজিটাল ডিভাইস পুশ বাটন। গণপরিবহনের চালকের আসনের নাগালের মধ্যেই থাকবে এই ডিজিটাল ডিভাইস। ডিভাইসটির অবস্থান সম্পর্কে শুধুমাত্র বাসের চালক এবং সহযোগী জানবেন। গণপরিবহনের রাত্রীকালীন যাত্রীরা কোনো ডাকাতের কবলে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে বাসের চালক এবং তার সহযোগী যে কেউ এই বাটনে চাপ দেবেন।

 

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এর মাধ্যমে মেসেজ চলে যাবে পুলিশের কাছে। এরমধ্যে একটি মেসেজ যাবে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ, দ্বিতীয় মেসেজটি যাবে ডাকাতের কবলে পড়া বাসের জিপিআরএস লোকেশনে। যেটার তথ্য পাবেন সংশ্লিষ্ট থানা এবং পুলিশ সুপার। সর্বশেষ  মেসেজটি যাবে সংশ্লিষ্ট বাসমালিকের কাছে।

এভাবে স্থানীয় থানায় মেসেজ চলে যাবে এলার্ম আকারে। সংশ্লিষ্ট গণপরিবহনকে সহযোগিতা করতে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবে পুলিশ। এছাড়া পুলিশের পাশাপাশি বাস মালিক সমিতি মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বাসটির সকল তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে। সম্প্রতি রাজধানী ঢাকাসহ এর আশপাশের এলাকায় গণপরিবহনে অভিনব কায়দায় একাধিক ডাকাতির ঘটনায় নড়েচড়ে বসে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) তেজগাঁও বিভাগ একাধিক অভিযান পরিচালনা করে ২৭ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে। এরপরই গণপরিবহনের যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে রাজধানীসহ সারা দেশের আন্তঃজেলা বাস ও মিনিবাসে যুক্ত করা হবে এই পুশ বাটন। ইতিমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে একাধিক বাসে এই পুশ বাটনের ব্যবহার শুরু হয়েছে বলে জানায় গোয়েন্দা সংশ্লিষ্ট সূত্র।

মহানগর গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ঢাকার বাইরের এক চিকিৎসকের ডাকাতির কবলে পড়ার ঘটনার মধ্য দিয়ে একাধিক চাঞ্চল্যকর ডাকাতির রহস্য উদ্‌ঘাটন করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় কয়েক দফায় ডাকাতদলের সদস্যদের গ্রেপ্তার করা হয়। যেখানে অধিকাংশ বাস ডাকাতির সঙ্গে বাসের চালক এবং সহযোগীদের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। এক্ষেত্রে পুশ বাটনটি বাসচালক এবং সহযোগীর কাছে কতটা নিরাপদ জানতে চাইলে গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ডাকাতির কবলে পড়ার পরেও যদি কোনো গণপরিবহনের চালক ও সহযোগী পুশ বাটনে প্রেস না করে তাহলে আমরা ধরে নেবো এই ডাকাতির সঙ্গে তাদের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। এছাড়া বিনা প্রয়োজনে যদি কেউ এই ডিভাইসটিতে প্রেস করে সেক্ষেত্রেও জরিমানাসহ শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে।
সংশ্লিষ্ট গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ডাকাতের কবলে পড়ার পর ‘পুশ বাটনে’ চাপ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মেসেজ আকারে তিনটি বার্তা যাবে। জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ তথ্য পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পুলিশ ইউনিটের সঙ্গে যোগাযোগ করে বাসের সর্বশেষ লোকেশন জেনে ব্যবস্থা নিতে বলা হবে। পুলিশ বাসটিকে অনুসরণ করে ডাকাতদের গ্রেপ্তার করবে। এরমধ্যে একটি জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ, বাসটির জিপিআরএস লোকেশনের তথ্য সংক্রান্ত দ্বিতীয় মেসেজটি পাবেন সংশ্লিষ্ট থানা ও পুলিশ সুপার এবং সর্বশেষ তথ্য পাবেন বাসের মালিক। অপর গোয়েন্দা সূত্র জানায়, এই ‘পুশ বাটনটি’ গণপরিবহন ছাড়াও বিভিন্ন ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রাইভেটকার, লঞ্চ, ট্রেন, স্টিমার ইত্যাদিতে ব্যবহার করা হতে পারে। এছাড়া যাত্রীদের নিরাপত্তার পাশাপাশি গাড়ির অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার জন্য রিয়েল টাইম ট্র্যাকিং হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বাসটির সকল তথ্য সংগ্রহ করা যাবে। গাড়ির অতিরিক্ত গতি, মাইলেজ রিপোর্ট ইত্যাদি তথ্য পাওয়া যাবে।

তেজগাঁও বিভাগের উপ- পুলিশ কমিশনার ওয়াহিদুল ইসলাম  বলেন, গণপরিবহনে ডাকাতিসহ বিভিন্ন ধরনের সংঘটিত অপরাধ বন্ধেই মূলত এই পুশ বাটনের ধারণাটি সামনে আনা হয়। সাধারণ যাত্রী বিশেষ করে রাত্রীকালীন যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে গণপরিবহনে এই পুশ বাটন বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ইতিমধ্যে বাসমালিক ও সমিতির সঙ্গে মহানগর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের একাধিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এবং এই ডিজিটাল ডিভাইসটির আইডিয়াটি সকলেই খুব সানন্দে গ্রহণ করেছে। বিশেষ করে বাসমালিক সমিতি এই ডিভাইসের বিষটি অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে নিয়েছেন। ইতিমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে কয়েকটি বাসে এই পুশ বাটন পদ্ধতিটি চালু করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা পেলে হয়তো খুব শিগগিরই এটি সারা দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হবে বলে জানান এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা। সূএ:মানবজমিন

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» হাটহাজারীতে অভিযান চালিয়ে পাঁচটি চোরাই অটোরিকশাসহ একজন আটক

» বিএনপির ঈদের পর আন্দোলন, ১৩ বছর ধরে শুনছি : তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী

» মানুষ ভালো করেই জানে, কোন দল সন্ত্রাসের পৃষ্ঠপোষক: ওবায়দুল কাদের

» স্মার্টফোনে গুগলের মাধ্যমে বাংলা লিখবেন যেভাবে

» ঈদের আগে শুক্র ও শনিবার ব্যাংক খোলা

» ঈদের আগে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলার সম্ভাবনা নেই

» যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছি সেটা বাস্তবায়ন করতে চাই : প্রধানমন্ত্রী

» সোহেল চৌধুরী হত্যা: পিপিকে কেস ডকেট সমন্বয় করে উপস্থাপনের নির্দেশ

» সিরাজগঞ্জে আড়াই কেজি হেরোইনসহ আটক ৩জন

» ঢাকা মহানগর উত্তরে বিএনপির ওয়ার্ড সম্মেলনে মারামারি

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

গণপরিবহনে ডাকাতি ঠেকাতে পুশ বাটন

ডিজিটাল ডিভাইস পুশ বাটন। গণপরিবহনের চালকের আসনের নাগালের মধ্যেই থাকবে এই ডিজিটাল ডিভাইস। ডিভাইসটির অবস্থান সম্পর্কে শুধুমাত্র বাসের চালক এবং সহযোগী জানবেন। গণপরিবহনের রাত্রীকালীন যাত্রীরা কোনো ডাকাতের কবলে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে বাসের চালক এবং তার সহযোগী যে কেউ এই বাটনে চাপ দেবেন।

 

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এর মাধ্যমে মেসেজ চলে যাবে পুলিশের কাছে। এরমধ্যে একটি মেসেজ যাবে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ, দ্বিতীয় মেসেজটি যাবে ডাকাতের কবলে পড়া বাসের জিপিআরএস লোকেশনে। যেটার তথ্য পাবেন সংশ্লিষ্ট থানা এবং পুলিশ সুপার। সর্বশেষ  মেসেজটি যাবে সংশ্লিষ্ট বাসমালিকের কাছে।

এভাবে স্থানীয় থানায় মেসেজ চলে যাবে এলার্ম আকারে। সংশ্লিষ্ট গণপরিবহনকে সহযোগিতা করতে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবে পুলিশ। এছাড়া পুলিশের পাশাপাশি বাস মালিক সমিতি মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বাসটির সকল তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে। সম্প্রতি রাজধানী ঢাকাসহ এর আশপাশের এলাকায় গণপরিবহনে অভিনব কায়দায় একাধিক ডাকাতির ঘটনায় নড়েচড়ে বসে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) তেজগাঁও বিভাগ একাধিক অভিযান পরিচালনা করে ২৭ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে। এরপরই গণপরিবহনের যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে রাজধানীসহ সারা দেশের আন্তঃজেলা বাস ও মিনিবাসে যুক্ত করা হবে এই পুশ বাটন। ইতিমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে একাধিক বাসে এই পুশ বাটনের ব্যবহার শুরু হয়েছে বলে জানায় গোয়েন্দা সংশ্লিষ্ট সূত্র।

মহানগর গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ঢাকার বাইরের এক চিকিৎসকের ডাকাতির কবলে পড়ার ঘটনার মধ্য দিয়ে একাধিক চাঞ্চল্যকর ডাকাতির রহস্য উদ্‌ঘাটন করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় কয়েক দফায় ডাকাতদলের সদস্যদের গ্রেপ্তার করা হয়। যেখানে অধিকাংশ বাস ডাকাতির সঙ্গে বাসের চালক এবং সহযোগীদের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। এক্ষেত্রে পুশ বাটনটি বাসচালক এবং সহযোগীর কাছে কতটা নিরাপদ জানতে চাইলে গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ডাকাতির কবলে পড়ার পরেও যদি কোনো গণপরিবহনের চালক ও সহযোগী পুশ বাটনে প্রেস না করে তাহলে আমরা ধরে নেবো এই ডাকাতির সঙ্গে তাদের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। এছাড়া বিনা প্রয়োজনে যদি কেউ এই ডিভাইসটিতে প্রেস করে সেক্ষেত্রেও জরিমানাসহ শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে।
সংশ্লিষ্ট গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ডাকাতের কবলে পড়ার পর ‘পুশ বাটনে’ চাপ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মেসেজ আকারে তিনটি বার্তা যাবে। জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ তথ্য পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পুলিশ ইউনিটের সঙ্গে যোগাযোগ করে বাসের সর্বশেষ লোকেশন জেনে ব্যবস্থা নিতে বলা হবে। পুলিশ বাসটিকে অনুসরণ করে ডাকাতদের গ্রেপ্তার করবে। এরমধ্যে একটি জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ, বাসটির জিপিআরএস লোকেশনের তথ্য সংক্রান্ত দ্বিতীয় মেসেজটি পাবেন সংশ্লিষ্ট থানা ও পুলিশ সুপার এবং সর্বশেষ তথ্য পাবেন বাসের মালিক। অপর গোয়েন্দা সূত্র জানায়, এই ‘পুশ বাটনটি’ গণপরিবহন ছাড়াও বিভিন্ন ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রাইভেটকার, লঞ্চ, ট্রেন, স্টিমার ইত্যাদিতে ব্যবহার করা হতে পারে। এছাড়া যাত্রীদের নিরাপত্তার পাশাপাশি গাড়ির অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার জন্য রিয়েল টাইম ট্র্যাকিং হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বাসটির সকল তথ্য সংগ্রহ করা যাবে। গাড়ির অতিরিক্ত গতি, মাইলেজ রিপোর্ট ইত্যাদি তথ্য পাওয়া যাবে।

তেজগাঁও বিভাগের উপ- পুলিশ কমিশনার ওয়াহিদুল ইসলাম  বলেন, গণপরিবহনে ডাকাতিসহ বিভিন্ন ধরনের সংঘটিত অপরাধ বন্ধেই মূলত এই পুশ বাটনের ধারণাটি সামনে আনা হয়। সাধারণ যাত্রী বিশেষ করে রাত্রীকালীন যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে গণপরিবহনে এই পুশ বাটন বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ইতিমধ্যে বাসমালিক ও সমিতির সঙ্গে মহানগর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের একাধিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এবং এই ডিজিটাল ডিভাইসটির আইডিয়াটি সকলেই খুব সানন্দে গ্রহণ করেছে। বিশেষ করে বাসমালিক সমিতি এই ডিভাইসের বিষটি অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে নিয়েছেন। ইতিমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে কয়েকটি বাসে এই পুশ বাটন পদ্ধতিটি চালু করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা পেলে হয়তো খুব শিগগিরই এটি সারা দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হবে বলে জানান এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা। সূএ:মানবজমিন

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com