খালেদা জিয়ার ঈদ উদযাপন বাসায় ভাইবোনেরা, ফোনে নাতি-নাতনিরা

কারাবন্দি হিসেবে চার চারটি ঈদ পার করার পর এবার মুক্ত পরিবেশে রাজধানীর গুলশানে নিজ বাসায় ভাই-বোনদের সঙ্গে ঈদের দিন কাটালেন বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। সেই সঙ্গে পুত্রবধূ আর নাতি-নাতনীদের সঙ্গে ফোনে কথা বলে শুভেচ্ছা বিনিময় করলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সোমবার সকালে বাসায় আসেন খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার ও তার স্ত্রী কানিজ ফাতিমা। তারা দুপুর একটা পর্যন্ত বাসায় ছিলেন। সকালে লন্ডনে থাকা বড় ছেলে তারেক রহমান টেলিফোন করে মা খালেদা জিয়ার সঙ্গে কথা বলেন। এসময় পুত্রবধূ জোবায়দা রহমান ও প্রয়াত ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শামিলা রহমান সিঁথি এবং নাতনি জায়মা রহমান, জাহিয়া রহমান ও জাফিয়া রহমানের সঙ্গেও কথা বলেন খালেদা জিয়া।

দুপুরের পর বোন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আসেন সেজ বোন সেলিমা ইসলাম। বেশ কিছুটা সময় তিনি বোনের পাশে থাকেন। তবে দলের নেতা-কর্মীদের তেমন ভিড় ছিল না।

খালেদা জিয়ার জন্য খাবার বাসায় রান্না হয়েছে। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী তার খাবারও বিশেষভাবে তৈরি করা হয়। এছাড়া ছোট ভাইয়ের বাসা থেকেও তার খাবার এসেছে।

৭৫ বছর বয়সী বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন ধরে রিউমাটয়েড আর্থারাইটিস, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, তার চিকিৎসা দীর্ঘ সময়ের ব্যাপার।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতি মামলায় সাজা নিয়ে কারাগারে যান খালেদা জিয়া। পরের দুটি ঈদ কারাগারে কাটলেও পরের দুটি ঈদ কাটান কারা হেফাজতে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে গত ২৫ মার্চ নির্বাহী আদেশে ছয় মাসের জন্য সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে মুক্তি দেয় সরকার। মুক্তি পেয়ে গুলশানের ভাড়া বাড়ি ফিরোজায় ওঠেন খালেদা। তারপর থেকে সেখানেই রয়েছেন তিনি। অসুস্থতার জন্য নেতা-কর্মীরাও সেখানে যাচ্ছেন না।পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ইসলামপুরে বন্যায় পানিবন্দি ২ লাখ মানুষ: সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

» খুবই চতুর, ধুরন্ধর ও অর্থলিপ্সু সাহেদ : র‌্যাব ডিজি

» ‘নিত্য দিনের জীবনযাপন’

» ‘গণপরিবহন নয়, পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকবে’

» নেতিবাচক প্রতিবেদন আসা অনলাইন পোর্টাল প্রয়োজনে বন্ধ : তথ্যমন্ত্রী

» ৭ দিনের মধ্যে ওয়েব সিরিজের আপত্তিকর দৃশ্য সরানোর নির্দেশ

» ইন্দোনেশিয়ায় বন্যা-ভূমিধসে ১৬ মৃত্যু, নিখোঁজ ২৩

» সীমান্তে ৫১ ভরি স্বর্ণসহ নারী আটক

» নতুন আঙ্গিকে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মসূচি শুরু হচ্ছে ঢাকা দক্ষিণে

» প্রেমিকার জন্য কবিতা লিখে ট্রলের শিকার দেব

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মাকসুদা লিসা।

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

খালেদা জিয়ার ঈদ উদযাপন বাসায় ভাইবোনেরা, ফোনে নাতি-নাতনিরা

কারাবন্দি হিসেবে চার চারটি ঈদ পার করার পর এবার মুক্ত পরিবেশে রাজধানীর গুলশানে নিজ বাসায় ভাই-বোনদের সঙ্গে ঈদের দিন কাটালেন বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। সেই সঙ্গে পুত্রবধূ আর নাতি-নাতনীদের সঙ্গে ফোনে কথা বলে শুভেচ্ছা বিনিময় করলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সোমবার সকালে বাসায় আসেন খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার ও তার স্ত্রী কানিজ ফাতিমা। তারা দুপুর একটা পর্যন্ত বাসায় ছিলেন। সকালে লন্ডনে থাকা বড় ছেলে তারেক রহমান টেলিফোন করে মা খালেদা জিয়ার সঙ্গে কথা বলেন। এসময় পুত্রবধূ জোবায়দা রহমান ও প্রয়াত ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শামিলা রহমান সিঁথি এবং নাতনি জায়মা রহমান, জাহিয়া রহমান ও জাফিয়া রহমানের সঙ্গেও কথা বলেন খালেদা জিয়া।

দুপুরের পর বোন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আসেন সেজ বোন সেলিমা ইসলাম। বেশ কিছুটা সময় তিনি বোনের পাশে থাকেন। তবে দলের নেতা-কর্মীদের তেমন ভিড় ছিল না।

খালেদা জিয়ার জন্য খাবার বাসায় রান্না হয়েছে। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী তার খাবারও বিশেষভাবে তৈরি করা হয়। এছাড়া ছোট ভাইয়ের বাসা থেকেও তার খাবার এসেছে।

৭৫ বছর বয়সী বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন ধরে রিউমাটয়েড আর্থারাইটিস, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, তার চিকিৎসা দীর্ঘ সময়ের ব্যাপার।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতি মামলায় সাজা নিয়ে কারাগারে যান খালেদা জিয়া। পরের দুটি ঈদ কারাগারে কাটলেও পরের দুটি ঈদ কাটান কারা হেফাজতে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে গত ২৫ মার্চ নির্বাহী আদেশে ছয় মাসের জন্য সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে মুক্তি দেয় সরকার। মুক্তি পেয়ে গুলশানের ভাড়া বাড়ি ফিরোজায় ওঠেন খালেদা। তারপর থেকে সেখানেই রয়েছেন তিনি। অসুস্থতার জন্য নেতা-কর্মীরাও সেখানে যাচ্ছেন না।পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মাকসুদা লিসা।

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com