খাবারের খোঁজে ১৩ হাজার ফুট উঁচুতে… (ভিডিও)

মাউন্টেন গোট বা পাহাড়ি ছাগল নামে পরিচিত। প্রতিদিন খাদ্যের সন্ধানে যেভাবে পাহাড়ের হাজার হাজার ফুট উঁচুতে চড়ে যায় তা রীতিমতো অবাক করেছে তুখোড় পর্বোতারোহীদেরও! অত্যন্ত প্রতিকূল পরিবেশেও টিকে থাকতে পারে এই প্রজাতীর ছাগল। খাবারের খোঁজে প্রতিদিন প্রায় ১৩ হাজার ফুট উঁচু পাহাড়ে অবলীলায় চড়ে যায় এই ছাগল!

উত্তর আমেরিকার পার্বত্য এলাকায় দেখা মেলে এই এই প্রজাতীর ছাগলের। তবে পার্বত্য হিমালয়ে এবং রুক্ষ আফগানিস্থানেও দেখা মেলে মাউন্টেন গোটের। মাউন্টেন গোট আকার, আয়তনে গ্রাম বাংলার পথে-ঘাটে ঘুরে বেড়ানো ছাগলের চেয়ে বেশ খানিকটাই বড়। সদ্যোজাত মাউন্টেন গোটের ওজনও প্রায় ৩ কেজি হয়।

জন্মের জন্মের ৪-৫ ঘণ্টার মধ্যেই পাহাড়ে চড়ার চেষ্টা শুরু করে দেয় একটি মাউন্টেন গোট। এই প্রজাতির ছাগলের ওজন ৪৫ কেজি থেকে ১৪০ কেজি পর্যন্ত হয়। অত্যন্ত প্রতিকূল আবহাওয়ায় টিকে থাকার জন্য মাউন্টেন গোটের শরীর পুরু পশমে ঢাকা থাকে। মাইনাস ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাই হোক বা ১৬০ কিমি প্রতি ঘণ্টা গতিবেগের ঝোড়ো হাওয়ার ধাক্কা— এ সব ঝড়-ঝাপটা সামলেও টিকে থাকতে পারে এই মাউন্টেন গোট। এরা সাধারণত ১২ থেকে ১৫ বছর বাঁচে। তবে এদের বেশির ভাগেরই মৃত্যু হয় দুর্ঘটনায়।

 

মাউন্টেন গোটের বয়স ৩০ মাস হলে প্রজননে সক্ষম হয়। মোটামুটি অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত চলে এদের প্রজননকাল। প্রজননের সময় পেরোলেই পুরুষ আর মেয়ে মাউন্টেন গোট আলাদা আলাদা দলে বিভক্ত হয়ে যায়।

 

বছরে প্রায় ৪০ কেজি উল পাওয়া যায় একটি পূর্ণ বয়স্ক মাউন্টেন গোটের শরীর থেকে। উলের প্রয়োজনে মাউন্টেন গোটের চাষ করা সম্ভব নয়। কারণ, এরা একেবারেই পোষ মানে না। তাই উলের যোগানের জন্য বাণিজ্যিকভাবে এদের কাজেও লাগানো যায় না। খাবারের খোঁজে যে ভাবে খাড়া ঢাল বেয়ে পাহাড়ের হাজার হাজার ফুট উঁচুতে চড়ে যায় এই মাউন্টেন গোট তা রীতিমতো অবাক করেছে তুখোড় পর্বোতারোহীদেরও!

ঢাকাটাইমস

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভূমিকা জনমনে আস্থার সৃষ্টি করেছে

» লালমনিরহাটের ২টিতে আওয়ামী লীগ, একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী

» মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হলেন মিছবাহুর রহমান

» লক্ষ্মীপুরের তিন ইউপিতে নৌকার প্রার্থীরা জয়ী

» রাতে শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়নস লিগ

» হাসপাতাল থেকে মেয়র আতিকের ভিডিও বার্তা

» সমন্বিতভাবে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ সম্ভব: স্পিকার

» ‘ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে গিয়ে’ করোনায় আক্রান্ত তথ্যমন্ত্রী

» ধর্ষণকারী আমাদের কেউ হতে পারেনা!!!

» সুষ্ঠু ভাবে লালমনিরহাটের ইউনিয়ন উপ-নির্বাচন সম্পূর্ণ

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

খাবারের খোঁজে ১৩ হাজার ফুট উঁচুতে… (ভিডিও)

মাউন্টেন গোট বা পাহাড়ি ছাগল নামে পরিচিত। প্রতিদিন খাদ্যের সন্ধানে যেভাবে পাহাড়ের হাজার হাজার ফুট উঁচুতে চড়ে যায় তা রীতিমতো অবাক করেছে তুখোড় পর্বোতারোহীদেরও! অত্যন্ত প্রতিকূল পরিবেশেও টিকে থাকতে পারে এই প্রজাতীর ছাগল। খাবারের খোঁজে প্রতিদিন প্রায় ১৩ হাজার ফুট উঁচু পাহাড়ে অবলীলায় চড়ে যায় এই ছাগল!

উত্তর আমেরিকার পার্বত্য এলাকায় দেখা মেলে এই এই প্রজাতীর ছাগলের। তবে পার্বত্য হিমালয়ে এবং রুক্ষ আফগানিস্থানেও দেখা মেলে মাউন্টেন গোটের। মাউন্টেন গোট আকার, আয়তনে গ্রাম বাংলার পথে-ঘাটে ঘুরে বেড়ানো ছাগলের চেয়ে বেশ খানিকটাই বড়। সদ্যোজাত মাউন্টেন গোটের ওজনও প্রায় ৩ কেজি হয়।

জন্মের জন্মের ৪-৫ ঘণ্টার মধ্যেই পাহাড়ে চড়ার চেষ্টা শুরু করে দেয় একটি মাউন্টেন গোট। এই প্রজাতির ছাগলের ওজন ৪৫ কেজি থেকে ১৪০ কেজি পর্যন্ত হয়। অত্যন্ত প্রতিকূল আবহাওয়ায় টিকে থাকার জন্য মাউন্টেন গোটের শরীর পুরু পশমে ঢাকা থাকে। মাইনাস ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাই হোক বা ১৬০ কিমি প্রতি ঘণ্টা গতিবেগের ঝোড়ো হাওয়ার ধাক্কা— এ সব ঝড়-ঝাপটা সামলেও টিকে থাকতে পারে এই মাউন্টেন গোট। এরা সাধারণত ১২ থেকে ১৫ বছর বাঁচে। তবে এদের বেশির ভাগেরই মৃত্যু হয় দুর্ঘটনায়।

 

মাউন্টেন গোটের বয়স ৩০ মাস হলে প্রজননে সক্ষম হয়। মোটামুটি অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত চলে এদের প্রজননকাল। প্রজননের সময় পেরোলেই পুরুষ আর মেয়ে মাউন্টেন গোট আলাদা আলাদা দলে বিভক্ত হয়ে যায়।

 

বছরে প্রায় ৪০ কেজি উল পাওয়া যায় একটি পূর্ণ বয়স্ক মাউন্টেন গোটের শরীর থেকে। উলের প্রয়োজনে মাউন্টেন গোটের চাষ করা সম্ভব নয়। কারণ, এরা একেবারেই পোষ মানে না। তাই উলের যোগানের জন্য বাণিজ্যিকভাবে এদের কাজেও লাগানো যায় না। খাবারের খোঁজে যে ভাবে খাড়া ঢাল বেয়ে পাহাড়ের হাজার হাজার ফুট উঁচুতে চড়ে যায় এই মাউন্টেন গোট তা রীতিমতো অবাক করেছে তুখোড় পর্বোতারোহীদেরও!

ঢাকাটাইমস

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com