ক্যাচ আউট হলে নতুন নিয়ম, ক্রিকেটীয় আইনে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন

হয়তো লোয়ার অর্ডারের কোনো এক ব্যাটার আকাশে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন। সেই সময়টায় দৌড়ে স্ট্রাইকিং এন্ডে চলে এলেন নন-স্ট্রাইকার ব্যাটার।

 

লোয়ার অর্ডারের ব্যাটার সাজঘরের পথ ধরলেন আর নন-স্ট্রাইক থেকে স্ট্রাইকে চলে আসা স্বীকৃত কোনো ব্যাটার হয়তো খেলাটা জিতিয়ে দিলেন একটা প্রান্ত ধরে।

ক্রিকেটে এমন ঘটনা হরহামেশাই দেখা যায়। তবে সামনে থেকে আর সেই সুযোগ থাকছে না। চলতি বছরের ১ অক্টোবর থেকে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন আনছে ক্রিকেটের আইন প্রণয়নকারী সংস্থা মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)।

 

এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য একটি পরিবর্তন হলো, ক্যাচ আউটের পরে নতুন ব্যাটারই স্ট্রাইক নিবেন। ক্রিকেটের পূর্বের নিয়ম ছিল ক্যাচ আউটের ক্ষেত্রে নন-স্ট্রাইকার ব্যাটার ২২ গজের অর্ধেক পেরিয়ে স্ট্রাইক প্রান্তে চলে গেলে তিনিই স্ট্রাইক পেতেন।

 

কিন্তু নতুন নিয়মে নন-স্ট্রাইকার ব্যাটার যেখানেই থাকুক, নতুন ব্যাটারই স্ট্রাইক পাবেন। তবে সেটি ইনিংসের শেষ বলে হলে আবার নতুন ব্যাটার যাবেন নন-স্ট্রাইকার প্রান্তে।

 

ডেড বলের নিয়মেও আনা হয়েছে কিছু পরিবর্তন। যদি মাঠের মধ্যে হঠাৎ করে আগন্তুক বা প্রাণি ঢুকে পড়ে কিংবা অন্য কোনো কারণে খেলা ব্যাহত হয়, তবে সেই সময়ের বলটিকে ডেড বল ঘোষণা করা হবে।

এছাড়া বোলার যদি বল ডেলিভারির পদক্ষেপে ঢুকে পড়ার আগেই স্ট্রাইকার ব্যাটারকে রানআউট করতে যান তাহলে সেই বলটিও ডেড হিসেবে ধরা হবে।

 

আধুনিক ক্রিকেটে ব্যাটারদের ক্রিজের সামনে পেছনে নড়াচড়া করে বোলারকে বিভ্রান্ত করতে দেখা যায়। সেক্ষেত্রে হয়তো একজন ব্যাটার অনেকটা সামনে এগিয়ে গেলো পরে আবার পিছিয়ে আসলে বলটা ওয়াইড লাইন অতিক্রম করে ফেলতে পারে।

 

এই জায়গায়ও পরিবর্তন আনছে এমসিসি। এখন থেকে ওয়াইড বল ধরা হবে ব্যাটার কোন জায়গায় দাঁড়িয়েছেন সেটার ওপর ভিত্তি করে।

 

এছাড়া ফিল্ডাররা অযাচিত সুবিধা নিলে বা ছলনা করলে আগে বলটিকে ডেড ঘোষণা করা হতো। কিন্তু এখন থেকে দেওয়া হবে পেনাল্টি। এমন কোনো ঘটনা ঘটলে ব্যাটিং দলের স্কোরকার্ডে যোগ হবে ৫ রান।

 

করোনার এই সময়ে বলে লালার ব্যবহার নিয়ে অনেকদিন ধরেই আলোচনা হচ্ছিল। অবশেষে লালা ব্যবহারে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে এমসিসি। লালা ব্যবহার করা এখন থেকে বল বিকৃতির আওতায় পড়বে।

 

বিতর্কিত ম্যানকাড আউটকেও বৈধতা দিচ্ছে এমসিসি। বল করার আগেই ননস্ট্রাইকার এন্ডের স্ট্যাম্প ভেঙে দেওয়াকে আগে ‘আনফেয়ার প্লে’ ধরা হলেও এখন থেকে পরিষ্কার রানআউট হিসেবে গণ্য হবে। যদিও আউট হওয়ার নিয়ম আগেই ছিল।সূএ:জাগোনিউজ২৪.কম

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ঢাকা মাতাতে আসছেন শিল্পা শেঠি

» অনুমতি ছাড়া বিশ্বকাপের লোগো ব্যবহার করলেই বিপদ

» ধারালো অস্ত্র নিয়ে শহর দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বানর

» ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আভাস, নদীবন্দরে সতর্কতা

» দূরদর্শী নেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দেশ এগিয়ে যাচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

» মানবিক রাষ্ট্র গড়তে এগিয়ে আসুন, সাংবাদিকদের প্রতি তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী

» নতুন সব ব্র্যান্ডের সাথে এবারে শপিংয়ের মজা আরো জমবে দারাজে

» টাঙ্গাইলের মধুপুরে আইন শৃঙ্খলা কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» নেত্রকোনায় বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে হুয়াওয়ে

» ভিসা ‘এক্সিলেন্স ইন ফিনটেক’ পুরস্কার পেল নগদ

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd[email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ক্যাচ আউট হলে নতুন নিয়ম, ক্রিকেটীয় আইনে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন

হয়তো লোয়ার অর্ডারের কোনো এক ব্যাটার আকাশে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন। সেই সময়টায় দৌড়ে স্ট্রাইকিং এন্ডে চলে এলেন নন-স্ট্রাইকার ব্যাটার।

 

লোয়ার অর্ডারের ব্যাটার সাজঘরের পথ ধরলেন আর নন-স্ট্রাইক থেকে স্ট্রাইকে চলে আসা স্বীকৃত কোনো ব্যাটার হয়তো খেলাটা জিতিয়ে দিলেন একটা প্রান্ত ধরে।

ক্রিকেটে এমন ঘটনা হরহামেশাই দেখা যায়। তবে সামনে থেকে আর সেই সুযোগ থাকছে না। চলতি বছরের ১ অক্টোবর থেকে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন আনছে ক্রিকেটের আইন প্রণয়নকারী সংস্থা মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)।

 

এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য একটি পরিবর্তন হলো, ক্যাচ আউটের পরে নতুন ব্যাটারই স্ট্রাইক নিবেন। ক্রিকেটের পূর্বের নিয়ম ছিল ক্যাচ আউটের ক্ষেত্রে নন-স্ট্রাইকার ব্যাটার ২২ গজের অর্ধেক পেরিয়ে স্ট্রাইক প্রান্তে চলে গেলে তিনিই স্ট্রাইক পেতেন।

 

কিন্তু নতুন নিয়মে নন-স্ট্রাইকার ব্যাটার যেখানেই থাকুক, নতুন ব্যাটারই স্ট্রাইক পাবেন। তবে সেটি ইনিংসের শেষ বলে হলে আবার নতুন ব্যাটার যাবেন নন-স্ট্রাইকার প্রান্তে।

 

ডেড বলের নিয়মেও আনা হয়েছে কিছু পরিবর্তন। যদি মাঠের মধ্যে হঠাৎ করে আগন্তুক বা প্রাণি ঢুকে পড়ে কিংবা অন্য কোনো কারণে খেলা ব্যাহত হয়, তবে সেই সময়ের বলটিকে ডেড বল ঘোষণা করা হবে।

এছাড়া বোলার যদি বল ডেলিভারির পদক্ষেপে ঢুকে পড়ার আগেই স্ট্রাইকার ব্যাটারকে রানআউট করতে যান তাহলে সেই বলটিও ডেড হিসেবে ধরা হবে।

 

আধুনিক ক্রিকেটে ব্যাটারদের ক্রিজের সামনে পেছনে নড়াচড়া করে বোলারকে বিভ্রান্ত করতে দেখা যায়। সেক্ষেত্রে হয়তো একজন ব্যাটার অনেকটা সামনে এগিয়ে গেলো পরে আবার পিছিয়ে আসলে বলটা ওয়াইড লাইন অতিক্রম করে ফেলতে পারে।

 

এই জায়গায়ও পরিবর্তন আনছে এমসিসি। এখন থেকে ওয়াইড বল ধরা হবে ব্যাটার কোন জায়গায় দাঁড়িয়েছেন সেটার ওপর ভিত্তি করে।

 

এছাড়া ফিল্ডাররা অযাচিত সুবিধা নিলে বা ছলনা করলে আগে বলটিকে ডেড ঘোষণা করা হতো। কিন্তু এখন থেকে দেওয়া হবে পেনাল্টি। এমন কোনো ঘটনা ঘটলে ব্যাটিং দলের স্কোরকার্ডে যোগ হবে ৫ রান।

 

করোনার এই সময়ে বলে লালার ব্যবহার নিয়ে অনেকদিন ধরেই আলোচনা হচ্ছিল। অবশেষে লালা ব্যবহারে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে এমসিসি। লালা ব্যবহার করা এখন থেকে বল বিকৃতির আওতায় পড়বে।

 

বিতর্কিত ম্যানকাড আউটকেও বৈধতা দিচ্ছে এমসিসি। বল করার আগেই ননস্ট্রাইকার এন্ডের স্ট্যাম্প ভেঙে দেওয়াকে আগে ‘আনফেয়ার প্লে’ ধরা হলেও এখন থেকে পরিষ্কার রানআউট হিসেবে গণ্য হবে। যদিও আউট হওয়ার নিয়ম আগেই ছিল।সূএ:জাগোনিউজ২৪.কম

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com