কামব্যাক শব্দ নিয়ে আপত্তি রয়েছে, ডেবিউ নিয়ে নয় মাধুরী দীক্ষিতের

প্রায় চল্লিশ বছর বড়পর্দায় চুটিয়ে কাজ করার পর এবার ওটিটি প্ল্যাটফর্মে পা রাখতে চলেছেন মাধুরী দীক্ষিত। নেটফ্লিক্সের আসন্ন সিরিজ ‘দ্য ফেম গেম’-এর সঙ্গে নতুন জার্নি শুরু হচ্ছে মাধুরীর। সিরিজে সুপারস্টার অনামিকা আনন্দের ভূমিকায় থাকছেন মাধুরী। তবে ‘কামব্যাক’ শব্দটি নিয়ে তীব্র আপত্তি রয়েছে এই তারকা-অভিনেত্রীর। এতটুকুও রাখঢাক না করে সে ব্যাপারে মাধুরী বললেন, ‘কয়েক বছর অন্তর আমাকে এই প্রশ্ন শুনতে হয় ,আমি বুঝতে পারি না কেন এই প্রশ্ন করা হয় আমাকে। আমি তো কিছু না কিছু কাজ করেই চলেছি। বড়পর্দা হোক কিংবা ছোটপর্দায় রিয়েলিটি শো-তে। তাই কামব্যাক সম্পর্কিত কোনও প্রশ্ন শুনলে সেটি নিরেট বোকামি ছাড়া আর কিছুই মনে হয় না আমার।’

 

পরিচালনায় বিজয় নাম্বিয়ার ও করিশ্মা কোহলি। সুপারস্টার অনামিকা আনন্দেকে ঘিরেই আবর্তিত হবে ‘দ্য ফেম গেম’-এর কাহিনি। সিরিজে আচমকাই উধাও হয়ে যায় অনামিকা। এরপর তাকে খুঁজে বের করতে গিয়ে পুলিশ ও ঘনিষ্ঠদের হাতে আসে কিংবদন্তী অভিনেত্রীর জীবনের বহু অজানা কথা।

 

প্রায় অধিকাংশই মাধুরীর এই নতুন যাত্রাপথকে তার ‘ওটিটি ডেবিউ’ হিসেবে উল্লেখ করছেন। যদিও এই তকমা পেয়ে এতটুকুও বিচলিত নন ‘ধক ধক গার্ল’। এই প্রসঙ্গে হিন্দুস্তান টাইমস-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মাধুরী বলেন, ‘শুনতে অবাক লাগলেও কিন্তু একধারে এটা সত্যিই। কারণ বর্তমানে শিল্পী হিসেবে নিজেকে পেশ করার এত মাধ্যম রয়েছে যে প্রত্যেককে কখনও না কখনও সেখানে পা রাখতে হয় প্রথমবারের জন্য। আর তাছাড়া দীর্ঘ ৩৫ বছর কাজ করে যাওয়ার পরেও ফের নয়া কোনও প্ল্যাটফর্মে আমি পা রাখছি, এই ব্যাপারটিও কিন্তু মন্দ নয়। আমি নিজেকে এখনও একজন শিশুই ভাবি। সিনেমার ছাত্রী বলাটাই শ্রেয় হবে। নতুন কিছু শিখতে আজও ভালোবাসি। তাই আমার কাছে ওটিটি সিনেমা তৈরির অন্য একটি ভাষা।

 

তা কী ভেবে ওটিটিতে কাজ করতে রাজি হলেন মাধুরী? তার জবাবে বলি-সুন্দরী বলছেন, ‘ প্রথমত চিত্রনাট্য। এবং এই ছবির গল্পে অনামিকার মতো একজন ব্যাপক জনপ্রিয় নায়িকা হঠাৎ করে উধাও হয়ে যান, সেই ব্যাপারটি খুব ইন্টারেস্টিং লেগেছিল। তাছাড়া পরিচালক জুটির উপরেও আস্থা রয়েছে আমার।

 

প্রসঙ্গত, এই ওয়েব শো-তে মাধুরী ছাড়াও থাকছেন সঞ্জয় কাপুর, মানব কল, লক্ষ্যবীর স্মরণ, সাহাসিনী মুলে, মুসকান জাফেরিরা। মাধুরী নিজের চরিত্র নিয়ে বলতে গিয়ে জানান, ‘আমি এখানে একজন ফিল্মস্টারের চরিত্রেই রয়েছি, যে একজন সুপারস্টার। পাশাপাশি তার একটা পরিবার রয়েছে, সন্তান রয়েছে। তবে রিয়েল লাইফে আমার জীবনটা মোটেই অনামিকার মতো নয়। আমার পরিবারের সঙ্গে আমার বন্ধন অনেক মজবুত। পাশাপাশি আমি সৌভাগ্যবান যে আমি কিছু সেরা পরিচালক ও সহ-অভিনেতাদের সঙ্গে কাজের সুযোগ পেয়েছি’। গ্ল্যামার দুনিয়ার চাকচিক্যের আড়ালের অন্ধকারময় জগত উঠে আসবে এই সিরিজে। আগামী ২৫শে ফেব্রুয়ারি থেকে নেটফ্লিক্সে স্ট্রিমিং শুরু হবে ‘দ্য ফেম গেম’-এর। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» মাদক ‘আইস’ ভয়াবহ, সেবনে অক্ষম হবে পুরুষ

» মোরেলগঞ্জে ঘের ব্যবসায়ীর হাত-পা ভেঙে দিল দুর্বৃত্তরা

» কানাডায় বৃহত্তর কুমিল্লা সমিতির বনভোজন সম্পন্ন

» হঠাৎ হার্ট অ্যাটাক করলে জীবন বাঁচাতে তাৎক্ষণিক যা করবেন

» কিয়েভের শেভচেনকিভস্কিতে একাধিক বিস্ফোরণ: মেয়র ভিটালি

» এ কেমন দাবি পাকিস্তানি ক্রিকেটার শেহজাদের!

» সিডনিতে পিঠা উৎসবের আয়োজন

» শাহরুখের ‘পাঠান’র বিরুদ্ধে পোস্টার চুরির অভিযোগ

» পশ্চিমবঙ্গে জিটিএ’র ৪৫টি আসনে ভোটগ্রহণ চলছে

» সুবর্ণচরে দুই শিশুসহ ৯ রোহিঙ্গা আটক

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

কামব্যাক শব্দ নিয়ে আপত্তি রয়েছে, ডেবিউ নিয়ে নয় মাধুরী দীক্ষিতের

প্রায় চল্লিশ বছর বড়পর্দায় চুটিয়ে কাজ করার পর এবার ওটিটি প্ল্যাটফর্মে পা রাখতে চলেছেন মাধুরী দীক্ষিত। নেটফ্লিক্সের আসন্ন সিরিজ ‘দ্য ফেম গেম’-এর সঙ্গে নতুন জার্নি শুরু হচ্ছে মাধুরীর। সিরিজে সুপারস্টার অনামিকা আনন্দের ভূমিকায় থাকছেন মাধুরী। তবে ‘কামব্যাক’ শব্দটি নিয়ে তীব্র আপত্তি রয়েছে এই তারকা-অভিনেত্রীর। এতটুকুও রাখঢাক না করে সে ব্যাপারে মাধুরী বললেন, ‘কয়েক বছর অন্তর আমাকে এই প্রশ্ন শুনতে হয় ,আমি বুঝতে পারি না কেন এই প্রশ্ন করা হয় আমাকে। আমি তো কিছু না কিছু কাজ করেই চলেছি। বড়পর্দা হোক কিংবা ছোটপর্দায় রিয়েলিটি শো-তে। তাই কামব্যাক সম্পর্কিত কোনও প্রশ্ন শুনলে সেটি নিরেট বোকামি ছাড়া আর কিছুই মনে হয় না আমার।’

 

পরিচালনায় বিজয় নাম্বিয়ার ও করিশ্মা কোহলি। সুপারস্টার অনামিকা আনন্দেকে ঘিরেই আবর্তিত হবে ‘দ্য ফেম গেম’-এর কাহিনি। সিরিজে আচমকাই উধাও হয়ে যায় অনামিকা। এরপর তাকে খুঁজে বের করতে গিয়ে পুলিশ ও ঘনিষ্ঠদের হাতে আসে কিংবদন্তী অভিনেত্রীর জীবনের বহু অজানা কথা।

 

প্রায় অধিকাংশই মাধুরীর এই নতুন যাত্রাপথকে তার ‘ওটিটি ডেবিউ’ হিসেবে উল্লেখ করছেন। যদিও এই তকমা পেয়ে এতটুকুও বিচলিত নন ‘ধক ধক গার্ল’। এই প্রসঙ্গে হিন্দুস্তান টাইমস-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মাধুরী বলেন, ‘শুনতে অবাক লাগলেও কিন্তু একধারে এটা সত্যিই। কারণ বর্তমানে শিল্পী হিসেবে নিজেকে পেশ করার এত মাধ্যম রয়েছে যে প্রত্যেককে কখনও না কখনও সেখানে পা রাখতে হয় প্রথমবারের জন্য। আর তাছাড়া দীর্ঘ ৩৫ বছর কাজ করে যাওয়ার পরেও ফের নয়া কোনও প্ল্যাটফর্মে আমি পা রাখছি, এই ব্যাপারটিও কিন্তু মন্দ নয়। আমি নিজেকে এখনও একজন শিশুই ভাবি। সিনেমার ছাত্রী বলাটাই শ্রেয় হবে। নতুন কিছু শিখতে আজও ভালোবাসি। তাই আমার কাছে ওটিটি সিনেমা তৈরির অন্য একটি ভাষা।

 

তা কী ভেবে ওটিটিতে কাজ করতে রাজি হলেন মাধুরী? তার জবাবে বলি-সুন্দরী বলছেন, ‘ প্রথমত চিত্রনাট্য। এবং এই ছবির গল্পে অনামিকার মতো একজন ব্যাপক জনপ্রিয় নায়িকা হঠাৎ করে উধাও হয়ে যান, সেই ব্যাপারটি খুব ইন্টারেস্টিং লেগেছিল। তাছাড়া পরিচালক জুটির উপরেও আস্থা রয়েছে আমার।

 

প্রসঙ্গত, এই ওয়েব শো-তে মাধুরী ছাড়াও থাকছেন সঞ্জয় কাপুর, মানব কল, লক্ষ্যবীর স্মরণ, সাহাসিনী মুলে, মুসকান জাফেরিরা। মাধুরী নিজের চরিত্র নিয়ে বলতে গিয়ে জানান, ‘আমি এখানে একজন ফিল্মস্টারের চরিত্রেই রয়েছি, যে একজন সুপারস্টার। পাশাপাশি তার একটা পরিবার রয়েছে, সন্তান রয়েছে। তবে রিয়েল লাইফে আমার জীবনটা মোটেই অনামিকার মতো নয়। আমার পরিবারের সঙ্গে আমার বন্ধন অনেক মজবুত। পাশাপাশি আমি সৌভাগ্যবান যে আমি কিছু সেরা পরিচালক ও সহ-অভিনেতাদের সঙ্গে কাজের সুযোগ পেয়েছি’। গ্ল্যামার দুনিয়ার চাকচিক্যের আড়ালের অন্ধকারময় জগত উঠে আসবে এই সিরিজে। আগামী ২৫শে ফেব্রুয়ারি থেকে নেটফ্লিক্সে স্ট্রিমিং শুরু হবে ‘দ্য ফেম গেম’-এর। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com