এক টাকা দেনমোহরে বিয়ে!.

ফরিদপুরে কনের সিদ্ধান্তে এবং তার পরিবারের প্রস্তাবে মাত্র এক টাকা দেনমোহরে এক যুগলের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের ঝিলটুলী মহল্লার মেজবান পার্টি সেন্টারে তাদের বিয়ের কাবিন হয় এবং বিয়ে পরবর্তী ভোজের আয়োজন করা হয়।

বিয়ের কনে বিপাশা আজিজ (২৫) মাদারীপুরের সাহেবের চর মহল্লার আজিজুল হক ও নাসরিন সুলতানা দম্পতির একমাত্র মেয়ে। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রয়েছেন। অন্যদিকে বর আশীকুজ্জামান চৌধুরী (৩০) ফরিদপুর শহরের কুঠিবাড়ি কমলাপুর মহল্লার বাসিন্দা আসাদুজ্জামান চৌধুরী ও তাহমিনা চৌধুরী দম্পতির ছেলে। আশীকুজ্জামান ব্যবসা করেন।

বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া তার স্বজনরা জানান, কনে আগে থেকেই ঠিক করে রেখেছিলেন তার বিয়ের কাবিনে দেনমোহর হবে এক টাকা। কিন্তু বিয়ের অনুষ্ঠানে কাজী দেনমোহরের জায়গায় দুই লাখ টাকা লেখেন। এ ঘটনা জানার পর কনের মা তার মেয়ের সিদ্ধান্ত জানিয়ে এক টাকা দেনমোহর লেখান।

এ বিষয়ে ফরিদপুর নাগরিক কমিটির সভাপতি আওলাদ হোসেন বলেন, সাধারণত দেখা যায় কনে পক্ষই দর কষাকষি করে কাবিনের সময় মোহরের পরিমাণ বাড়িয়ে থাকেন। এটি একটি ব্যতিক্রম এবং আর্থিকভাবে স্বচ্ছল এক নারীর আত্মমর্যাদা রক্ষার প্রতীকও বটে।

তবে এক টাকা দেনমোহরে দ্বিমত পোষণ করেছেন নারী নেত্রী শিপ্রা গোস্বামী। তিনি বলেন, মুসলিম বিয়ে একটি চুক্তি। মোহরানা নারীর হক। স্বামীর আর্থিক সংগতি ও নারীর সামাজিক অবস্থানের ভিত্তিতে দেনমোহর নির্ধারিত হয়ে থাকে। এখানে আবেগের কোনো স্থান নেই। আবেগের বশে মোহরানায় এক টাকা লেখা যেতে পারে কিন্তু এটি মোটেও বাস্তব সম্মত নয়।

তিনি আরও বলেন, ওই নারী বর্তমানে সচ্ছল হতে পারেন কিন্তু আগামীতেও তিনি স্বচ্ছল নাও থাকতে পারেন।

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» কোনো ভাষণে দেশ স্বাধীন হয়নি: গয়েশ্বর

» ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিষয়টি কিছুদিনের মধ্যে দেখবো:আনিসুল হক

» প্রেম ও যৌনতার ফাঁদে ফেলে অর্থ আদায় করতো তারা

» বাংলাদেশের পথে মেট্রোরেলের প্রথম ট্রেন

» পুলিশের জেরার মুখে তামিমা

» ৭১ কেজি প্লাস্টিক খাওয়া গরুটি অবশেষে মারা গেল

» অবশেষে ফাঁসছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!

» মহেশপুর সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে অনুপ্রবেশের সময় নারী পুরুষ ও শিশুসহ ১৭ জন আটক

» নড়াইলে অভিযান চালিয়ে ১৫ লিটার মদ ও ইয়াবাসহ ৩ জন গ্রেফতার

» ভরণ-পোষণ আইনে ছেলের বিরুদ্ধে মায়ের মামলা

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

এক টাকা দেনমোহরে বিয়ে!.

ফরিদপুরে কনের সিদ্ধান্তে এবং তার পরিবারের প্রস্তাবে মাত্র এক টাকা দেনমোহরে এক যুগলের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের ঝিলটুলী মহল্লার মেজবান পার্টি সেন্টারে তাদের বিয়ের কাবিন হয় এবং বিয়ে পরবর্তী ভোজের আয়োজন করা হয়।

বিয়ের কনে বিপাশা আজিজ (২৫) মাদারীপুরের সাহেবের চর মহল্লার আজিজুল হক ও নাসরিন সুলতানা দম্পতির একমাত্র মেয়ে। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রয়েছেন। অন্যদিকে বর আশীকুজ্জামান চৌধুরী (৩০) ফরিদপুর শহরের কুঠিবাড়ি কমলাপুর মহল্লার বাসিন্দা আসাদুজ্জামান চৌধুরী ও তাহমিনা চৌধুরী দম্পতির ছেলে। আশীকুজ্জামান ব্যবসা করেন।

বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া তার স্বজনরা জানান, কনে আগে থেকেই ঠিক করে রেখেছিলেন তার বিয়ের কাবিনে দেনমোহর হবে এক টাকা। কিন্তু বিয়ের অনুষ্ঠানে কাজী দেনমোহরের জায়গায় দুই লাখ টাকা লেখেন। এ ঘটনা জানার পর কনের মা তার মেয়ের সিদ্ধান্ত জানিয়ে এক টাকা দেনমোহর লেখান।

এ বিষয়ে ফরিদপুর নাগরিক কমিটির সভাপতি আওলাদ হোসেন বলেন, সাধারণত দেখা যায় কনে পক্ষই দর কষাকষি করে কাবিনের সময় মোহরের পরিমাণ বাড়িয়ে থাকেন। এটি একটি ব্যতিক্রম এবং আর্থিকভাবে স্বচ্ছল এক নারীর আত্মমর্যাদা রক্ষার প্রতীকও বটে।

তবে এক টাকা দেনমোহরে দ্বিমত পোষণ করেছেন নারী নেত্রী শিপ্রা গোস্বামী। তিনি বলেন, মুসলিম বিয়ে একটি চুক্তি। মোহরানা নারীর হক। স্বামীর আর্থিক সংগতি ও নারীর সামাজিক অবস্থানের ভিত্তিতে দেনমোহর নির্ধারিত হয়ে থাকে। এখানে আবেগের কোনো স্থান নেই। আবেগের বশে মোহরানায় এক টাকা লেখা যেতে পারে কিন্তু এটি মোটেও বাস্তব সম্মত নয়।

তিনি আরও বলেন, ওই নারী বর্তমানে সচ্ছল হতে পারেন কিন্তু আগামীতেও তিনি স্বচ্ছল নাও থাকতে পারেন।

Facebook Comments
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com