ঈদ সালামি দেয়া যাবে বিকাশে

গত কয়েক বছর ধরে বড় চাচার ঈদ সালামি বিকাশে পায় শাহরিন। তবে এবার সালামির সাথে মিলেছে চমৎকার গ্রিটিংস কার্ড আর মজার ম্যাসেজ ‘বিচ্ছু বাহিনী ঈদের সালামী পাঠিয়ে দিলাম, সালাম কিন্তু বাকি…বড় চাচা’।

 

কার্ডের এক কোনে ঈদের চাঁদ, সালামির টাকা, বড় চাচার ম্যাসেজ আর নিচে লেখা ‘বড় চাচা’ সব মিলিয়ে খুশিতে গ্রিটিংস কার্ডটি ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করেছে শাহরিন। স্ট্যাটাসে ছোট চাচা, বড় মামী, দুলাভাই এমন করে সালামী পাওয়ার সম্ভাব্য সবাইকে ট্যাগ করে দিতে ভোলেনি শাহরিন।

 

বিকাশ অ্যাপের সেন্ড মানি অপশনের বিকাশ গ্রিটিংস কার্ডের কল্যাণে শাহরিনের ঈদ আগেই জমে উঠেছে। বিকাশ গ্রাহকরা এবার ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ে আর সালামি বিনিময়ে বিকাশ গ্রিটিংস ব্যবহার করে প্রিয়জনের আনন্দ আরো বাড়িয়ে তুলতে পারেন। সামাজিক দূরত্ব মেনে দূর থেকেই যাদের ঈদ উদযাপন হবে তারা মজার বা আবেগঘন ম্যাসেজ সহ গ্রিটিংস পাঠিয়ে একে অন্যের সাথে থাকতে পারেন।

 

মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদ উপলক্ষে সালামির প্রচলন সেই প্রাচীন কাল থেকেই। প্রযুক্তির সহায়তায় সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে সেই সালামিতে ভিন্ন মাত্রা এনেছে বিকাশ। বিকাশ অ্যাপের ডিজিটাল গ্রিটিংস কার্ডের মাধ্যমে সেন্ডমানির সাথে প্রিয়জনকে জানানো যাবে শুভকামনা, অনুভূতি, স্নেহ-ভালবাসার অভিব্যক্তি। গ্রাহক চাইলে এই ‘গ্রিটিংস কার্ড’ টিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করে নিজেদের বিশেষ মুহূর্তগুলোকে আরো স্মরণীয় ও আনন্দময় করে নিতে পারেন।

 

গ্রিটিংস কার্ড সহ সালামি পাঠাতে বিকাশ অ্যাপ থেকে যে নম্বরে সেন্ড মানি করা হবে তা নির্বাচন করার পরপরই নিচের অংশে ‘আপনার উদ্দেশ্য সিলেক্ট করুন’ ট্যাবটি দেখতে পাবেন গ্রাহক। সেখানে থাকা ঈদ সালামি অথবা ঈদ মোবারক অপশনগুলো থেকে যে কোন একটি নির্বাচন করা যাবে।

 

এরপর টাকার অংক লিখে পরের ধাপে গেলে রেফারেন্স অংশের নিচে ‘কার্ডের ম্যাসেজ আপডেট করুন’ ট্যাব দেখা যাবে। গ্রাহক চাইলে বিকাশ অ্যাপে সংযুক্ত “ঈদের আনন্দ ঘরে ঘরে, সালামি দিলাম বিকাশ করে” অথবা ‘এই ঈদ আপনার জীবনে নিয়ে আসুক শান্তি ও সমৃদ্ধি। ঈদ মোবারক।’ এই ম্যাসেজ দুটি রাখতে পারেন অথবা নিজের পছন্দমত নতুন ম্যাসেজ লিখে দিতে পারেন। বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষাতেই ম্যাসেজ লেখার সুযোগ রয়েছে। স্বাক্ষরের অংশে নিজের নাম বা সম্পর্কের পরিচয় যেমন মা, চাচা, মামা, ভাই, বোন ইত্যাদি লিখে দিতে পারবেন। পরের ধাপে বিকাশ পিন দিলেই গ্রিটিংস কার্ড সহ সেন্ড মানি করা হয়ে যাবে।

 

যে গ্রাহক, ঈদ মোবারক বা ঈদ সালামি গ্রিটিংস কার্ড সহ পেয়েছেন, তিনি তার ডিভাইসের নোটিফিকেশনে একটি গিফট বক্স দেখতে পাবেন। বক্সে ক্লিক করে বিকাশ অ্যাপে ঢুকলেই উপহারের পরিমান এবং ম্যাসেজ দেখতে পাবেন। তিনি চাইলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বিভিন্ন মাধ্যমে কার্ডটি শেয়ার করতে পারবেন যেখানে টাকার অংক দেখা যাবে না কেবল ম্যাসেজটি দেখা যাবে। এভাবেই শাহরিনের মত সব বিকাশ গ্রাহকের ঈদ সালামি হয়ে উঠবে আরো বর্ণিল ও স্মৃতিময়।

Facebook Comments Box
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» করোনায় আরও ৪৫ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ১২৮৫

» পাবনায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে পুরুষ ভিক্ষুকের ছুরিকাঘাতে নারী ভিক্ষুকের মৃত্যু

» বিমানবন্দর থেকে সোয়া কোটি টাকা মূল্যের দুই কেজি দুই গ্রাম সোনা জব্দ

» এবার একসাথে চার মোশাররফ করিম!

» সাকিবের আরেক সতীর্থ করোনায় আক্রান্ত

» মাত্র ২৭ সেকেন্ডেই প্রসব, বিশ্বে রেকর্ড গড়লেন তরুণী

» খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেয়ার প্রয়োজন নেই: হানিফ

» করোনা শুধু ফুসফুসকে আক্রান্ত করে না, রক্তও জমাট বাঁধায়

» হিটলারের ৫৯০০ কোটি টাকার গুপ্তধনের সন্ধান!

» বিল-মেলিন্ডা গেটসের ছাড়াছাড়ির আগে বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল পাঁচটি বিবাহবিচ্ছেদ

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ঈদ সালামি দেয়া যাবে বিকাশে

গত কয়েক বছর ধরে বড় চাচার ঈদ সালামি বিকাশে পায় শাহরিন। তবে এবার সালামির সাথে মিলেছে চমৎকার গ্রিটিংস কার্ড আর মজার ম্যাসেজ ‘বিচ্ছু বাহিনী ঈদের সালামী পাঠিয়ে দিলাম, সালাম কিন্তু বাকি…বড় চাচা’।

 

কার্ডের এক কোনে ঈদের চাঁদ, সালামির টাকা, বড় চাচার ম্যাসেজ আর নিচে লেখা ‘বড় চাচা’ সব মিলিয়ে খুশিতে গ্রিটিংস কার্ডটি ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করেছে শাহরিন। স্ট্যাটাসে ছোট চাচা, বড় মামী, দুলাভাই এমন করে সালামী পাওয়ার সম্ভাব্য সবাইকে ট্যাগ করে দিতে ভোলেনি শাহরিন।

 

বিকাশ অ্যাপের সেন্ড মানি অপশনের বিকাশ গ্রিটিংস কার্ডের কল্যাণে শাহরিনের ঈদ আগেই জমে উঠেছে। বিকাশ গ্রাহকরা এবার ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ে আর সালামি বিনিময়ে বিকাশ গ্রিটিংস ব্যবহার করে প্রিয়জনের আনন্দ আরো বাড়িয়ে তুলতে পারেন। সামাজিক দূরত্ব মেনে দূর থেকেই যাদের ঈদ উদযাপন হবে তারা মজার বা আবেগঘন ম্যাসেজ সহ গ্রিটিংস পাঠিয়ে একে অন্যের সাথে থাকতে পারেন।

 

মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদ উপলক্ষে সালামির প্রচলন সেই প্রাচীন কাল থেকেই। প্রযুক্তির সহায়তায় সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে সেই সালামিতে ভিন্ন মাত্রা এনেছে বিকাশ। বিকাশ অ্যাপের ডিজিটাল গ্রিটিংস কার্ডের মাধ্যমে সেন্ডমানির সাথে প্রিয়জনকে জানানো যাবে শুভকামনা, অনুভূতি, স্নেহ-ভালবাসার অভিব্যক্তি। গ্রাহক চাইলে এই ‘গ্রিটিংস কার্ড’ টিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করে নিজেদের বিশেষ মুহূর্তগুলোকে আরো স্মরণীয় ও আনন্দময় করে নিতে পারেন।

 

গ্রিটিংস কার্ড সহ সালামি পাঠাতে বিকাশ অ্যাপ থেকে যে নম্বরে সেন্ড মানি করা হবে তা নির্বাচন করার পরপরই নিচের অংশে ‘আপনার উদ্দেশ্য সিলেক্ট করুন’ ট্যাবটি দেখতে পাবেন গ্রাহক। সেখানে থাকা ঈদ সালামি অথবা ঈদ মোবারক অপশনগুলো থেকে যে কোন একটি নির্বাচন করা যাবে।

 

এরপর টাকার অংক লিখে পরের ধাপে গেলে রেফারেন্স অংশের নিচে ‘কার্ডের ম্যাসেজ আপডেট করুন’ ট্যাব দেখা যাবে। গ্রাহক চাইলে বিকাশ অ্যাপে সংযুক্ত “ঈদের আনন্দ ঘরে ঘরে, সালামি দিলাম বিকাশ করে” অথবা ‘এই ঈদ আপনার জীবনে নিয়ে আসুক শান্তি ও সমৃদ্ধি। ঈদ মোবারক।’ এই ম্যাসেজ দুটি রাখতে পারেন অথবা নিজের পছন্দমত নতুন ম্যাসেজ লিখে দিতে পারেন। বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষাতেই ম্যাসেজ লেখার সুযোগ রয়েছে। স্বাক্ষরের অংশে নিজের নাম বা সম্পর্কের পরিচয় যেমন মা, চাচা, মামা, ভাই, বোন ইত্যাদি লিখে দিতে পারবেন। পরের ধাপে বিকাশ পিন দিলেই গ্রিটিংস কার্ড সহ সেন্ড মানি করা হয়ে যাবে।

 

যে গ্রাহক, ঈদ মোবারক বা ঈদ সালামি গ্রিটিংস কার্ড সহ পেয়েছেন, তিনি তার ডিভাইসের নোটিফিকেশনে একটি গিফট বক্স দেখতে পাবেন। বক্সে ক্লিক করে বিকাশ অ্যাপে ঢুকলেই উপহারের পরিমান এবং ম্যাসেজ দেখতে পাবেন। তিনি চাইলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বিভিন্ন মাধ্যমে কার্ডটি শেয়ার করতে পারবেন যেখানে টাকার অংক দেখা যাবে না কেবল ম্যাসেজটি দেখা যাবে। এভাবেই শাহরিনের মত সব বিকাশ গ্রাহকের ঈদ সালামি হয়ে উঠবে আরো বর্ণিল ও স্মৃতিময়।

Facebook Comments Box
Share Button

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

 

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com