15 August shok banner

ইউরোপ যেতে চান স্বাস্থ্যের ১০ কর্মকর্তা নানা রহস্য

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও এর অধীন একটি দপ্তরের ১০ কর্মকর্তার প্রস্তাবিত ইউরোপ সফর নিয়ে প্রশ্ন ওঠেছে। তারা আদতে কী করতে যাচ্ছেন- তা জানতে নানামুখী তৎপরতা চালাচ্ছে ফ্রান্স ও সুইডেন সরকার। কূটনৈতিক চ্যানেলেও এ নিয়ে কোয়ারি চলছে। চিঠি চালাচালি হয়েছে। ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এ সংক্রান্ত কোয়ারির বিষয়টি স্বীকার করেছেন, তবে তারা এ নিয়ে খোলাসা করে কিছু বলতে রাজি হননি। তারা এ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় প্রস্তাবিত সফরটির কথা অস্বীকার করেনি। তবে তারা বলছে, বর্তমানে এটি স্থগিত অবস্থায় আছে।

কারণ হিসেবে তারা কোভিড সংক্রমণের বিধিনিষেধকে সামনে আনছেন। সফর প্রস্তুতির সঙ্গে যুক্ত একজনের দাবি করোনার কারণে সফরটি আয়োজনে বিলম্ব হচ্ছে।স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রের দাবি, সফরের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে বাংলাদেশ মেডিক্যাল হেলথ্‌ ইনস্টিটিউট ও ইউরোপিয়ান ইনস্টিটিউটের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার নিমিত্তে অভিজ্ঞতা ও ধারণা বিনিময়। প্রাথমিক পরিকল্পনা মতে, গত ২৭শে নভেম্বর থেকে ৪ঠা ডিসেম্বরের মধ্যে সফরটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। যার সম্পূর্ণ খরচ বহন করছে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের চিকিৎসা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন বিভাগ। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে মার্চের শুরুতে সফরটি হবে এমন আভাস দেয়া হয়েছে। সফরে অংশগ্রহণকারীর তালিকায় রয়েছেন- স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহ আলম, যুগ্ম সচিব মোহাম্মদ আবদুস সালাম খান, মো. শহীদুজ্জামান, উপ-সচিব শামীমা খন্দকার, মুগদা মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল ডা. আহমেদুল কবীর, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ডা. কাজী আফজালুর রহমান, পরিচালক (শৃঙ্খলা) ডা. পার্থ সারথী দত্ত, পরিচালক (দন্ত) ডা. মোশাররফ হোসেন খন্দকার, চিকিৎসা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন শাখার ডা. মুজতাহিদ মোহাম্মদ হোসেন ও ডা. মো. রাজিব আল আমিন। গত ২৮শে নভেম্বর এই দশজনের বিদেশ ভ্রমণ সংক্রান্ত সরকারি আদেশ জারি হয়েছিল। স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের একটি প্রকল্পের অধীনে এই সফরের ব্যবস্থা করেছে সিয়াম হেলথ্‌ কেয়ার কোম্পানি নামের থাইল্যান্ডভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির ঢাকা অফিসের দায়িত্বে রয়েছেন ডা. মনিরুল ইসলাম খান। স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের এই ভিজিট স্থগিতের কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মূলত কোভিড সংক্রমণ পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় ভিজিটটি আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছে না। গত বছর নভেম্বরে ভিজিটে অংশগ্রহণকারীদের জন্য জিও ইস্যু করেছিল মন্ত্রণালয়। এই সফরের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে মেডিক্যাল শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক অনুশীলনে সিমুলেশন প্রক্রিয়া অনুসরণ।

স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহ আলম বলেন, করোনার কারণে ইউরোপ সফর স্থগিত আছে। এ জন্য ভিসার জন্য আবেদনও করা হয়নি। তারা এ নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিংবা প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাসের সঙ্গেও কোনো যোগাযোগ করেননি বলে দাবি করেন।
সূএ:মানবজমিন
Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» দেশে উন্নয়নের নামে ঘুস ও দুর্নীতির জোয়ার বইছে : জিএম কাদের

» জাতির মুক্তির জন্য গণভবন দখল করতে হবে : নুর

» রাজধানীর উত্তর সিটি করপোরেশনের ৬ কবরস্থানে দুঃস্থদের জন্য ফি ১০০ টাকা

» আগস্ট মাস এলেই বিএনপি উন্মাদ হয়ে যায়: নাছিম

» বিএনপি সহিংসতা করলে রাজপথে মোকাবিলা করা হবে: ওবায়দুল কাদের

» বিএনপিসহ কিছু দল জ্বালানি তেলের মূল্য নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে: তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী

» জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজধানীসহ সারাদেশে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে :বেনজীর আহমেদ

» জনগণের দুর্ভোগ যেন না হয় সেটি বিবেচনায় নিয়ে উন্নয়ন কার্যক্রম চালাতে হবে : মেয়র আতিক

» ইসলামপুরে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর রাস্তা নির্মান কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

» লালমনিরহাটে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

ইউরোপ যেতে চান স্বাস্থ্যের ১০ কর্মকর্তা নানা রহস্য

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও এর অধীন একটি দপ্তরের ১০ কর্মকর্তার প্রস্তাবিত ইউরোপ সফর নিয়ে প্রশ্ন ওঠেছে। তারা আদতে কী করতে যাচ্ছেন- তা জানতে নানামুখী তৎপরতা চালাচ্ছে ফ্রান্স ও সুইডেন সরকার। কূটনৈতিক চ্যানেলেও এ নিয়ে কোয়ারি চলছে। চিঠি চালাচালি হয়েছে। ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এ সংক্রান্ত কোয়ারির বিষয়টি স্বীকার করেছেন, তবে তারা এ নিয়ে খোলাসা করে কিছু বলতে রাজি হননি। তারা এ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় প্রস্তাবিত সফরটির কথা অস্বীকার করেনি। তবে তারা বলছে, বর্তমানে এটি স্থগিত অবস্থায় আছে।

কারণ হিসেবে তারা কোভিড সংক্রমণের বিধিনিষেধকে সামনে আনছেন। সফর প্রস্তুতির সঙ্গে যুক্ত একজনের দাবি করোনার কারণে সফরটি আয়োজনে বিলম্ব হচ্ছে।স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রের দাবি, সফরের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে বাংলাদেশ মেডিক্যাল হেলথ্‌ ইনস্টিটিউট ও ইউরোপিয়ান ইনস্টিটিউটের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার নিমিত্তে অভিজ্ঞতা ও ধারণা বিনিময়। প্রাথমিক পরিকল্পনা মতে, গত ২৭শে নভেম্বর থেকে ৪ঠা ডিসেম্বরের মধ্যে সফরটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। যার সম্পূর্ণ খরচ বহন করছে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের চিকিৎসা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন বিভাগ। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে মার্চের শুরুতে সফরটি হবে এমন আভাস দেয়া হয়েছে। সফরে অংশগ্রহণকারীর তালিকায় রয়েছেন- স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহ আলম, যুগ্ম সচিব মোহাম্মদ আবদুস সালাম খান, মো. শহীদুজ্জামান, উপ-সচিব শামীমা খন্দকার, মুগদা মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল ডা. আহমেদুল কবীর, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ডা. কাজী আফজালুর রহমান, পরিচালক (শৃঙ্খলা) ডা. পার্থ সারথী দত্ত, পরিচালক (দন্ত) ডা. মোশাররফ হোসেন খন্দকার, চিকিৎসা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন শাখার ডা. মুজতাহিদ মোহাম্মদ হোসেন ও ডা. মো. রাজিব আল আমিন। গত ২৮শে নভেম্বর এই দশজনের বিদেশ ভ্রমণ সংক্রান্ত সরকারি আদেশ জারি হয়েছিল। স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের একটি প্রকল্পের অধীনে এই সফরের ব্যবস্থা করেছে সিয়াম হেলথ্‌ কেয়ার কোম্পানি নামের থাইল্যান্ডভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির ঢাকা অফিসের দায়িত্বে রয়েছেন ডা. মনিরুল ইসলাম খান। স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের এই ভিজিট স্থগিতের কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মূলত কোভিড সংক্রমণ পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় ভিজিটটি আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছে না। গত বছর নভেম্বরে ভিজিটে অংশগ্রহণকারীদের জন্য জিও ইস্যু করেছিল মন্ত্রণালয়। এই সফরের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে মেডিক্যাল শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক অনুশীলনে সিমুলেশন প্রক্রিয়া অনুসরণ।

স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহ আলম বলেন, করোনার কারণে ইউরোপ সফর স্থগিত আছে। এ জন্য ভিসার জন্য আবেদনও করা হয়নি। তারা এ নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিংবা প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাসের সঙ্গেও কোনো যোগাযোগ করেননি বলে দাবি করেন।
সূএ:মানবজমিন
Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com