আরেক দফা পেছাল শিশু আরাফ হত্যা মামলার রায়

চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়ায় শিশু আবদুর রহমান আরাফ হত্যা মামলার রায় ঘোষণার দিন আরেক দফা পিছিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার মামলাটির রায় ঘোষণার কথা থাকলেও তা পেছানোর আদেশ দেন চট্টগ্রামের তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. জসিম উদ্দিনের আদালত।

 

আদালতের এপিপি প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলার আসামিরা হলেন- হত্যার পরিকল্পনাকারী মো. ফরিদ, দারোয়ান মো. হাসান ও তার মা নাজমা বেগম। এদের মধ্যে হাসান জামিনে রয়েছেন। বাকি দুজন রয়েছেন কারাগারে।

 

প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু মোহাম্মদ হাসান নামে এক আসামির পক্ষে ‘শিশু আরাফ মামলার বাদী আবদুল কাইয়ুম ও গৃহিণী ফারহানা ইসলামের সন্তান নয়’ এ যুক্তিতে ডিএনএ পরীক্ষার আবেদন করা হয়। এছাড়া আসামি মোহাম্মদ হাসান হাইকোর্ট থেকে ৬ মাসের জামিন নিয়েছিলেন, সেটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। তার জামিন বাতিলের জন্য আবেদন করা হয়। ডিএনএ পরীক্ষা ও জামিন বাতিলের আবেদনের শুনানির জন্য আগামী ১৮ মে দিন ধার্য করে আদালত।

 

এর আগে, ৩০ মার্চ মামলাটির রায় ঘোষণার কথা ছিল। তবে রায় পূর্ণাঙ্গ লেখা শেষ না হওয়ায় তা পিছিয়ে ২৮ এপ্রিল দিন ধার্য করেন চট্টগ্রামের তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. জসিম উদ্দিনের আদালত। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো মামলাটির রায় ঘোষণার দিন পেছানো হলো।

 

২০২০ সালের ৭ জুন বাকলিয়া থানার মিয়াখান নগরের মনসুর আলী রোডের নুরুল আলম মিয়ার বাড়ির ছাদের পানির ট্যাংক থেকে শিশু আরাফের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আরাফ ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া আবদুল কাইয়ুমের ছেলে।

 

বাড়ির মালিক ১৯ নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল আলম মিয়ার সঙ্গে পূর্ব বিরোধ ছিল ফরিদের। সেই বিরোধের জেরে নুরুল আলম মিয়াকে ফাঁসাতে নাজমা বেগমকে বেছে নেন ফরিদ। অর্থের বিনিময়ে শিশু আরাফকে হত্যার প্রস্তাব দেন। ঋণগ্রস্ত নাজমা বেগমও পারেননি অর্থের লোভ সামলাতে। হত্যা করেন শিশুটিকে।

 

ঘটনার দিন বিকেলে বাড়ির নিচতলায় খেলছিল শিশু আরাফ। নাজমার ছেলে হাসান ওই বাড়ির দারোয়ান। তার কাছ থেকে চাবি নিয়ে আরাফকে ছাদের পানির ট্যাংকে ফেলে হত্যা করেন নাজমা বেগম।

 

২০২১ সালের ১০ মার্চ এ মামলার চার্জ গঠন করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষে ২০ জন সাক্ষ্য দেন। আসামিপক্ষে সাফাই সাক্ষ্য দেন ১০ জন।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» এমপিওভুক্তির দাবিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে অবস্থান ধর্মঘট

» নবীনগরে পচা মাংস বিক্রির দায়ে ব্যবসায়ীর কারাদণ্ড

» একলা একা

» লিসবনে মাল্টিকালচ্যারাল একাডেমির ঈদ পুনর্মিলনী

» সোনারগাঁও থেকে দেশীয় অস্ত্র ও ককটেলসহ ছয় যুবক আটক

» খুলনায় দুই খালাতো বোনকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় তিনজন গ্রেফতার

» সবাইকে সাশ্রয়ী হতে বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী

» ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না: নেতাকর্মীদের ওবায়দুল কাদের

» ঢাকায় ১৭ স্থানে বসবে অস্থায়ী পশুর হাট

» চট্টগ্রামে যাত্রীর ব্যাগ চুরি, অটোরিকশাচালক গ্রেফতার

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...

আরেক দফা পেছাল শিশু আরাফ হত্যা মামলার রায়

চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়ায় শিশু আবদুর রহমান আরাফ হত্যা মামলার রায় ঘোষণার দিন আরেক দফা পিছিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার মামলাটির রায় ঘোষণার কথা থাকলেও তা পেছানোর আদেশ দেন চট্টগ্রামের তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. জসিম উদ্দিনের আদালত।

 

আদালতের এপিপি প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলার আসামিরা হলেন- হত্যার পরিকল্পনাকারী মো. ফরিদ, দারোয়ান মো. হাসান ও তার মা নাজমা বেগম। এদের মধ্যে হাসান জামিনে রয়েছেন। বাকি দুজন রয়েছেন কারাগারে।

 

প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু মোহাম্মদ হাসান নামে এক আসামির পক্ষে ‘শিশু আরাফ মামলার বাদী আবদুল কাইয়ুম ও গৃহিণী ফারহানা ইসলামের সন্তান নয়’ এ যুক্তিতে ডিএনএ পরীক্ষার আবেদন করা হয়। এছাড়া আসামি মোহাম্মদ হাসান হাইকোর্ট থেকে ৬ মাসের জামিন নিয়েছিলেন, সেটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। তার জামিন বাতিলের জন্য আবেদন করা হয়। ডিএনএ পরীক্ষা ও জামিন বাতিলের আবেদনের শুনানির জন্য আগামী ১৮ মে দিন ধার্য করে আদালত।

 

এর আগে, ৩০ মার্চ মামলাটির রায় ঘোষণার কথা ছিল। তবে রায় পূর্ণাঙ্গ লেখা শেষ না হওয়ায় তা পিছিয়ে ২৮ এপ্রিল দিন ধার্য করেন চট্টগ্রামের তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. জসিম উদ্দিনের আদালত। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো মামলাটির রায় ঘোষণার দিন পেছানো হলো।

 

২০২০ সালের ৭ জুন বাকলিয়া থানার মিয়াখান নগরের মনসুর আলী রোডের নুরুল আলম মিয়ার বাড়ির ছাদের পানির ট্যাংক থেকে শিশু আরাফের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আরাফ ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া আবদুল কাইয়ুমের ছেলে।

 

বাড়ির মালিক ১৯ নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল আলম মিয়ার সঙ্গে পূর্ব বিরোধ ছিল ফরিদের। সেই বিরোধের জেরে নুরুল আলম মিয়াকে ফাঁসাতে নাজমা বেগমকে বেছে নেন ফরিদ। অর্থের বিনিময়ে শিশু আরাফকে হত্যার প্রস্তাব দেন। ঋণগ্রস্ত নাজমা বেগমও পারেননি অর্থের লোভ সামলাতে। হত্যা করেন শিশুটিকে।

 

ঘটনার দিন বিকেলে বাড়ির নিচতলায় খেলছিল শিশু আরাফ। নাজমার ছেলে হাসান ওই বাড়ির দারোয়ান। তার কাছ থেকে চাবি নিয়ে আরাফকে ছাদের পানির ট্যাংকে ফেলে হত্যা করেন নাজমা বেগম।

 

২০২১ সালের ১০ মার্চ এ মামলার চার্জ গঠন করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষে ২০ জন সাক্ষ্য দেন। আসামিপক্ষে সাফাই সাক্ষ্য দেন ১০ জন।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি।(দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : [email protected]

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com