সাটুরিয়ার ৯ ইউনিয়ন পরিষদ অফিস আছে কর্মকর্তা নেই

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার ৯ ইউনিয়ন পরিষদে সরকারি কর্মকর্তা ও সহকারী কর্মকর্তাদের অফিস থাকলেও কেউ অফিস করেন না। এসব কর্মকর্তাদের নামে ইউনিয়ন পরিষদে কক্ষ বরাদ্দ থাকলেও তাদের কোনো দিন ওই অফিসে বসতে দেখা যায়নি। সারা বছর জুড়ে এসব অফিস তালাবদ্ধ থাকে বলে জানান সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানরা।
ইউপি চেয়ারম্যানদের অভিযোগ, বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ও এলাকার সড়কের বেহাল দশা, গবাদি পশুর নানা সমস্যা, শিক্ষা নিয়ে সচেনতামূলক অনুষ্ঠান, এলাকার নিরাপত্তা নিয়ে আনসারদের সঙ্গে মতবিনিময় করা, বিআরডিবি সদস্যদের নিয়ে সমবায় সমিতির ও ঋণ নিয়ে আলোচনা, কৃষকদের নিয়ে মাঠ পর্যায়ে আলোচনা এবং সাধারণ মানুষদের নিয়ে মতবিনিময় হবার কথা এসব অফিসে। তারা আরো জানান, অযথায় ইউনিয়ন পরিষদের এসব কক্ষ আটকিয়ে রেখেছেন তারা।
সাটুরিয়া উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদে যেসব দপ্তর রয়েছে সেগুলো হচ্ছে, শিক্ষা অফিস, প্রাণি সম্পদ অফিস, কৃষি অফিস, বিআরডিবি অফিস, আনছার ভিডিপি ও এলজিইডি অফিস। সূত্র জানায়, এসব অফিস থেকে স্ব-স্ব এলাকার মানুষ তার নিজ ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সহজেই যেন সেবা পেতে পারে সেজন্য এ অফিসগুলো দেয়া হয়েছিল। এসব অফিসে একজন করে সহকারী কর্মকর্তা সপ্তাহে তিনদিন বসার কথা থাকলেও তাদের সারা বছরেও খুঁজে পাওয়া যায়নি। একমাত্র উপজেলা কৃষি অফিসের সহকারী কর্মকর্তারা মাঝেমধ্যে বসে কৃষকদের সঙ্গে মতবিনিময় করে থাকেন বলে জানা গেছে। সাটুরিয়া উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, তৃণমূল মানুষের কাছে সেবা পৌঁছিয়ে দেবার জন্য বর্তমান সরকার ইউনিয়ন পরিষদগুলো  তৈরি করছেন।

সেই ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে সাধারণ মানুষ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ও সেবা পাওয়ার জন্য ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে সরকারি কর্মকর্তাদের একটি করে কক্ষ বরাদ্দ রেখেছেন। কিন্তু ওইসব সরকারি কর্মকর্তারা না বসায় সাধারণ মানুষ সেবা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অলস পড়ে আছে ওইসব সরকারি কর্মকর্তাদের কক্ষ।
সাটুরিয়া উপজেলার সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানা গেছে, লোকবল সংকট থাকায় ইউনিয়ন পরিষদে বরাদ্দকৃত অফিসে কাউকে বসানো যাচ্ছে না। তবে মাঝে মধ্যে আমাদের কর্মকর্তারা অফিস করে থাকে বলে জানান।
সাটুরিয়া উপজেলার ৯ ইউনিয়ন পরিষদে সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, অফিসগুলো খালি ও তালাবদ্ধ অবস্থায় পড়ে রয়েছে। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা বলেন, কক্ষগুলো বন্ধ থাকায় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তৃণমূল সাধারণ মানুষ কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। আমরা সাধারণ মাসিক সভায় এ নিয়ে আলোচনা করলেও কোনো লাভ হয়নি বলে জানান। সাটুরিয়ার ইউএনও আশরাফুল আলম জানান, ইউনিয়ন পরিষদে সরকারি কর্মকর্তারা যাতে নিয়মিত ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তৃণমূল মানুষ যেন সেবা পায় সেটি নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্মককর্তাদের নিয়ে ব্যবস্থা করা হবে বলে তিনি জানান।মানবজমিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» হবিগঞ্জে হাইব্রিড হীরা-২ নকল বীজ ধানের কারখানা আবিস্কার ॥ বিপুল পরিমাণ নকল বীজ,প্যাকেট জব্ধ ও ক্যামিকেল ॥ গুদাম সীলগালা

» ঠিকাদার ও দালাল  কতৃক নেয়া লক্ষ্মীপুরে বিদ্যুৎ গ্রাহকদের অতিরিক্ত টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হলেন 

» বর্তমান সরকার মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে : ইউপি চেয়ারম্যান মনি

» ৮ ঘণ্টা ভোগান্তির পর ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক

» বাংলা চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বিশ্ববাজার দখল করার লক্ষ্য নিয়ে সরকার এগোচ্ছে

» অকুপেন্সি সনদ না থাকলে আইনি ব্যবস্থা

» স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বসছেন পণ্যবাহী যানের মালিক-শ্রমিকরা

» সাগিরা মোর্শেদ হত্যা: আরও ৬০ দিন সময় পেলো পিবিআই

» মণিরামপুর উপজেলার রেশমা খাতুন ৪র্থ বার মত শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা নির্বাচিত

» স্ট্রেট ব্যাংকিং সেবা চালু করলো এনআরবি ব্যাংক-এসএসএল

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

সাটুরিয়ার ৯ ইউনিয়ন পরিষদ অফিস আছে কর্মকর্তা নেই

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার ৯ ইউনিয়ন পরিষদে সরকারি কর্মকর্তা ও সহকারী কর্মকর্তাদের অফিস থাকলেও কেউ অফিস করেন না। এসব কর্মকর্তাদের নামে ইউনিয়ন পরিষদে কক্ষ বরাদ্দ থাকলেও তাদের কোনো দিন ওই অফিসে বসতে দেখা যায়নি। সারা বছর জুড়ে এসব অফিস তালাবদ্ধ থাকে বলে জানান সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানরা।
ইউপি চেয়ারম্যানদের অভিযোগ, বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ও এলাকার সড়কের বেহাল দশা, গবাদি পশুর নানা সমস্যা, শিক্ষা নিয়ে সচেনতামূলক অনুষ্ঠান, এলাকার নিরাপত্তা নিয়ে আনসারদের সঙ্গে মতবিনিময় করা, বিআরডিবি সদস্যদের নিয়ে সমবায় সমিতির ও ঋণ নিয়ে আলোচনা, কৃষকদের নিয়ে মাঠ পর্যায়ে আলোচনা এবং সাধারণ মানুষদের নিয়ে মতবিনিময় হবার কথা এসব অফিসে। তারা আরো জানান, অযথায় ইউনিয়ন পরিষদের এসব কক্ষ আটকিয়ে রেখেছেন তারা।
সাটুরিয়া উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদে যেসব দপ্তর রয়েছে সেগুলো হচ্ছে, শিক্ষা অফিস, প্রাণি সম্পদ অফিস, কৃষি অফিস, বিআরডিবি অফিস, আনছার ভিডিপি ও এলজিইডি অফিস। সূত্র জানায়, এসব অফিস থেকে স্ব-স্ব এলাকার মানুষ তার নিজ ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সহজেই যেন সেবা পেতে পারে সেজন্য এ অফিসগুলো দেয়া হয়েছিল। এসব অফিসে একজন করে সহকারী কর্মকর্তা সপ্তাহে তিনদিন বসার কথা থাকলেও তাদের সারা বছরেও খুঁজে পাওয়া যায়নি। একমাত্র উপজেলা কৃষি অফিসের সহকারী কর্মকর্তারা মাঝেমধ্যে বসে কৃষকদের সঙ্গে মতবিনিময় করে থাকেন বলে জানা গেছে। সাটুরিয়া উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, তৃণমূল মানুষের কাছে সেবা পৌঁছিয়ে দেবার জন্য বর্তমান সরকার ইউনিয়ন পরিষদগুলো  তৈরি করছেন।

সেই ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে সাধারণ মানুষ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ও সেবা পাওয়ার জন্য ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে সরকারি কর্মকর্তাদের একটি করে কক্ষ বরাদ্দ রেখেছেন। কিন্তু ওইসব সরকারি কর্মকর্তারা না বসায় সাধারণ মানুষ সেবা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অলস পড়ে আছে ওইসব সরকারি কর্মকর্তাদের কক্ষ।
সাটুরিয়া উপজেলার সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানা গেছে, লোকবল সংকট থাকায় ইউনিয়ন পরিষদে বরাদ্দকৃত অফিসে কাউকে বসানো যাচ্ছে না। তবে মাঝে মধ্যে আমাদের কর্মকর্তারা অফিস করে থাকে বলে জানান।
সাটুরিয়া উপজেলার ৯ ইউনিয়ন পরিষদে সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, অফিসগুলো খালি ও তালাবদ্ধ অবস্থায় পড়ে রয়েছে। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা বলেন, কক্ষগুলো বন্ধ থাকায় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তৃণমূল সাধারণ মানুষ কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। আমরা সাধারণ মাসিক সভায় এ নিয়ে আলোচনা করলেও কোনো লাভ হয়নি বলে জানান। সাটুরিয়ার ইউএনও আশরাফুল আলম জানান, ইউনিয়ন পরিষদে সরকারি কর্মকর্তারা যাতে নিয়মিত ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তৃণমূল মানুষ যেন সেবা পায় সেটি নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্মককর্তাদের নিয়ে ব্যবস্থা করা হবে বলে তিনি জানান।মানবজমিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com