শ্বাসকষ্ট বাড়ে শীতের প্রাক্কালে

নিউমোনিয়া বলতে ফুসফুসের সংক্রমণকে বুঝায়। বুকে ঠান্ডা লেগে সর্দি হওয়া অথবা জীবাণু সংক্রমণ হওয়া থেকে একটু বেশি আকারের সংক্রমণকেই নিউমোনিয়া বলে। শীতের প্রাক্কালে ও শীতে নিউমোনিয়া- শ্বাসকষ্টের প্রকোপ বাড়ে। নিউমোনিয়া সংক্রমণ বিভিন্ন ভাবে হতে পারে।

যেমন : নিউমোকক্কাস বা স্ট্রেপটোকক্কাস জীবাণু থেকে। ক্লেবসিলো নিউমোনি, স্টেফাইলোকক্কাস, হেমোফাইলাস দ্বারাও সংক্রমণ হতে পারে। ব্যাকটেরিয়া বাদে ভাইরাস দিয়েও সংক্রমণ হতে পারে। তবে একটা কথা মনে রাখতে হবে নিউমোনিয়া একটি বড় ধরনের রোগ। এটা দেখা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যদি সঠিক চিকিৎসা দেওয়া না হয় তবে রোগীর অবস্থা খারাপের দিকে যেতে থাকে। যে কোনো মানুষের নিউমোকক্কাস রোগ হতে পারে। তবে যাদের ফুসফুস, হৃদপ-, কিডনির অসুখ রয়েছে এবং যাদের বয়স ৫০ এর ঊর্ধ্বে অথবা যাদের ডায়াবেটিস আছে এবং এর সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস পেয়েছে তাদের এ ব্যাধি এবং ব্যাধিজনিত জটিলতা হওয়ার প্রবণতা খুব বেশি থাকে। সরাসরি হাঁচি কিংবা কাশির মাধ্যমে নিউমোকক্কাস জীবাণু ছড়িয়ে পড়ে। তবে যারা এই জীবাণু বহন করে তারা যে সবাই অসুস্থ হয়ে পড়বে তা কিন্তু নয়। তাই আপাতত সুস্থ দেহ মানুষের কাছ থেকেও রোগটি ছড়াতে পারে। নিউমোনিয়া হলে জ্বর থাকে, দেহের তাপমাত্রা খুব বেশি হয়, সঙ্গে কাশি থাকে। কাশির সঙ্গে কফ বের হয় এবং কফের সঙ্গে রক্তও থাকতে পারে অনেকটা মরিচা রংয়ের। কাশি দিলে বুকে ব্যথা অনুভূত হয়। এছাড়া ক্ষুধা কমে যায় এবং পাতলা পায়খানা বা ডায়রিয়া হতে দেখা যায়। বয়স্ক রোগীদের বেলায় জ্বর খুব একটা বেশি নাও থাকতে পারে। যারা প্রবীণ তাদের বেলায় ঋতু পরিবর্তনের সময় নিউমোনিয়া হতে বেশি দেখা যায়। কিন্তু কিছু নিউমোনিয়া দেখা যায় যাকে আমরা হসপিটাল একোয়ার্ড নিউমোনিয়া বলি। আবার যদি কোনো রোগী হাসপাতালে ভর্তি থাকে এবং হাসপাতালে যে জীবাণু থাকে সেসব জীবাণুর সংস্পর্শে থাকার কারণে রোগীদের হসপিটাল একোয়ার্ড নিউমোনিয়া হতে দেখা যায়। তাই রোগ নির্ণয়ের আগে কোনটি হসপিটাল একোয়ার্ড এবং কোনটি কমিউনিটি একোয়ার্ড তা চিকিৎসকের চিন্তার মাঝে রাখতে হবে। কমিউনিটি একোয়ার্ডে পাওয়া যাবে নিউমোকক্কাস অথবা হেমোফাইলাস জীবাণু। আর হসপিটাল একোয়ার্ডে নিউমোনিয়া ঘটে থাকে সিউডোমোনাস অথবা এসাইনোবেক্টর জীবাণু দিয়ে। নিউমোনিয়া নির্ণয়ের প্রথম ধাপ হলো বুকের এক্স-রে। বুকের এক্স-রেতে যদি দাগ থাকে তাহলে নিউমোনিয়া আছে ধরতে হবে। অধ্যাপক ডা. ইকবাল হাসান মাহমুদ

বক্ষ্যব্যাধি বিশেষজ্ঞ, ইকবাল চেস্ট সেন্টার, মগবাজার ওয়্যারলেস, ঢাকা।

বাংলাদেশ প্রতিদিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» এমপি রতনের আশীর্বাদ: ধর্মপাশার মোবারকের হাতে আলাদিনের চেরাগ

» রাজধানীর গাছ ব্যানার বিজ্ঞাপনের পেরেকে ক্ষত বিক্ষত

» বিএনপির রাজনীতি পেঁয়াজের মধ্যে আশ্রয় নিয়েছে: ড. হাছান মাহমুদ

» বাড়ি ক্রয় থেকে ম্যানেজমেন্ট পরামর্শ দিচ্ছে ‘নেক্সট ড্রিম এলএলসি’

» কমার্স কলেজের সামনে কাভার্ড ভ্যানচাপায় শিশুর মৃত্যু

» জরিমানা নয়, সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনাই প্রধান উদ্দেশ্য : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

» ট্রেনে ভয়াবহ আগুন!

» ৩টি পিস্তলসহ মাদক বিক্রেতা আটক

» আমির খানের মেয়ের খোলামেলা ছবি নিয়ে তোলপাড় মিডিয়া

» অন্ধ্রপ্রদেশ-ওড়িষ্যায় ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় নাকরি

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

শ্বাসকষ্ট বাড়ে শীতের প্রাক্কালে

নিউমোনিয়া বলতে ফুসফুসের সংক্রমণকে বুঝায়। বুকে ঠান্ডা লেগে সর্দি হওয়া অথবা জীবাণু সংক্রমণ হওয়া থেকে একটু বেশি আকারের সংক্রমণকেই নিউমোনিয়া বলে। শীতের প্রাক্কালে ও শীতে নিউমোনিয়া- শ্বাসকষ্টের প্রকোপ বাড়ে। নিউমোনিয়া সংক্রমণ বিভিন্ন ভাবে হতে পারে।

যেমন : নিউমোকক্কাস বা স্ট্রেপটোকক্কাস জীবাণু থেকে। ক্লেবসিলো নিউমোনি, স্টেফাইলোকক্কাস, হেমোফাইলাস দ্বারাও সংক্রমণ হতে পারে। ব্যাকটেরিয়া বাদে ভাইরাস দিয়েও সংক্রমণ হতে পারে। তবে একটা কথা মনে রাখতে হবে নিউমোনিয়া একটি বড় ধরনের রোগ। এটা দেখা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যদি সঠিক চিকিৎসা দেওয়া না হয় তবে রোগীর অবস্থা খারাপের দিকে যেতে থাকে। যে কোনো মানুষের নিউমোকক্কাস রোগ হতে পারে। তবে যাদের ফুসফুস, হৃদপ-, কিডনির অসুখ রয়েছে এবং যাদের বয়স ৫০ এর ঊর্ধ্বে অথবা যাদের ডায়াবেটিস আছে এবং এর সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস পেয়েছে তাদের এ ব্যাধি এবং ব্যাধিজনিত জটিলতা হওয়ার প্রবণতা খুব বেশি থাকে। সরাসরি হাঁচি কিংবা কাশির মাধ্যমে নিউমোকক্কাস জীবাণু ছড়িয়ে পড়ে। তবে যারা এই জীবাণু বহন করে তারা যে সবাই অসুস্থ হয়ে পড়বে তা কিন্তু নয়। তাই আপাতত সুস্থ দেহ মানুষের কাছ থেকেও রোগটি ছড়াতে পারে। নিউমোনিয়া হলে জ্বর থাকে, দেহের তাপমাত্রা খুব বেশি হয়, সঙ্গে কাশি থাকে। কাশির সঙ্গে কফ বের হয় এবং কফের সঙ্গে রক্তও থাকতে পারে অনেকটা মরিচা রংয়ের। কাশি দিলে বুকে ব্যথা অনুভূত হয়। এছাড়া ক্ষুধা কমে যায় এবং পাতলা পায়খানা বা ডায়রিয়া হতে দেখা যায়। বয়স্ক রোগীদের বেলায় জ্বর খুব একটা বেশি নাও থাকতে পারে। যারা প্রবীণ তাদের বেলায় ঋতু পরিবর্তনের সময় নিউমোনিয়া হতে বেশি দেখা যায়। কিন্তু কিছু নিউমোনিয়া দেখা যায় যাকে আমরা হসপিটাল একোয়ার্ড নিউমোনিয়া বলি। আবার যদি কোনো রোগী হাসপাতালে ভর্তি থাকে এবং হাসপাতালে যে জীবাণু থাকে সেসব জীবাণুর সংস্পর্শে থাকার কারণে রোগীদের হসপিটাল একোয়ার্ড নিউমোনিয়া হতে দেখা যায়। তাই রোগ নির্ণয়ের আগে কোনটি হসপিটাল একোয়ার্ড এবং কোনটি কমিউনিটি একোয়ার্ড তা চিকিৎসকের চিন্তার মাঝে রাখতে হবে। কমিউনিটি একোয়ার্ডে পাওয়া যাবে নিউমোকক্কাস অথবা হেমোফাইলাস জীবাণু। আর হসপিটাল একোয়ার্ডে নিউমোনিয়া ঘটে থাকে সিউডোমোনাস অথবা এসাইনোবেক্টর জীবাণু দিয়ে। নিউমোনিয়া নির্ণয়ের প্রথম ধাপ হলো বুকের এক্স-রে। বুকের এক্স-রেতে যদি দাগ থাকে তাহলে নিউমোনিয়া আছে ধরতে হবে। অধ্যাপক ডা. ইকবাল হাসান মাহমুদ

বক্ষ্যব্যাধি বিশেষজ্ঞ, ইকবাল চেস্ট সেন্টার, মগবাজার ওয়্যারলেস, ঢাকা।

বাংলাদেশ প্রতিদিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com