মোদির ‘কালো ট্রাঙ্ক’ নিয়ে উত্তপ্ত ভারত

ভোটের সময় ভারতের রাজনীতিতে উত্তাপ ছড়িয়েছে একটি কালো ট্রাঙ্ক। কংগ্রেসের অভিযোগ,‘রহস্যময়’ ওই ট্রাঙ্কটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হেলিকপ্টার কনভয় থেকে নামানো হয়েছে। নির্বাচন কমিশনকে ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার দাবি জানিয়েছে তারা।

ঘটনাটি ঘটে এ সপ্তাহের শুরুর দিকে ৯ এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী মোদি কর্নাটকের চিত্রদুর্গে ভোটের প্রচারে যাওয়ার সময়।

কংগ্রেস বলছে, প্রধানমন্ত্রী নামার আগেই তার নিরাপত্তারক্ষীরা ট্রাঙ্কটি তড়িঘড়ি হেলিকপ্টার থেকে নামিয়ে একটি গোপন জায়গায় নিয়ে যায়।

কংগ্রেস মুখপাত্র আনন্দ শর্মা বলেন, ‘আমরা প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টার পাহারায় থাকা আরো তিনটি কপ্টার দেখেছি। নামার পরই প্রধানমন্ত্রীর কপ্টার থেকে একটি কালো ট্রাঙ্ক নামিয়ে দৌড়ে গিয়ে তা এক বেসরকারি গাড়িতে তুলে দেওয়া হয়। গাড়িটি মোদির বিশেষ নিরাপত্তা বহরে ছিল না।’

নির্বাচন কমিশনের কাছে এ ঘটনাই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন আনন্দ শর্মা। ওই ট্রাঙ্কে কি ছিল তাও জানতে চেয়েছেন তিনি। বলেছেন, ওতে কি আছে মোদীর তা জানানো উচিত ছিল।

ট্রাঙ্কে টাকাও থাকতে পারে বলে তিনি অভিযোগ করেন। নির্বাচন কমিশনের কাছে কংগ্রেসের কর্নাটক শাখা এরই মধ্যে অভিযোগ দায়ের করেছে বলেও জানান আনন্দ শর্মা।

মোদির হেলিকপ্টার থেকে কালো ট্রাঙ্ক তড়িঘড়ি নামানোর অভিযোগের প্রমাণ হিসাবে শনিবারই কর্নাটকের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি দীনেশ গুন্ডু রাও নিজের টুইটার হ্যান্ডলে ১৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন।

সে ভিডিওতেই ধরা পড়েছে প্রধানমন্ত্রীর কপ্টার থেকে ট্রাঙ্কটি নামিয়ে দ্রুতই একটি ইনোভা গাড়িতে তুলে দেওয়ার দৃশ্য। গাড়িটি সঙ্গে সঙ্গে রওনা হয়ে যায়।

নির্বাচন কমিশনের কাছে দীনেশ গুন্ডু রাওয়ের দাবি, ট্রাঙ্কে কী রাখা ছিল, গাড়িটাই বা কার, সব কিছু তদন্ত করে দেখা হোক।

তবে কালো ট্রাঙ্ক নিয়ে কংগ্রেসের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ” আমার নাম মানুষ “

» ফুলপুর পৌরসভায় ৯দিন যাবৎ সকল কার্যক্রম বন্ধ, দূর্ভোগে পৌরবাসী

» বাড্ডায় রেনুকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদ ও বিচার দাবিতে তিতুমীরে মানববন্ধন

» আদালতে মিন্নির দু’টিআবেদন নামঞ্জুর

» জাতির বিবেকের কাছে নুজহাত চৌধুরীর প্রশ্ন

» কাবা শরিফের গিলাফ উঁচু করার রহস্য

» ২০ তিমির জীবন বাঁচালো পর্যটকরা (ভিডিও)

» ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা

» ছেলেধরা গুজবের নেপথ্যে কুচক্রী মহল : ডিবি

» মাদারীপুরে মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে ছেলেধরা সন্দেহে গাছে বেঁধে নির্যাতন

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

মোদির ‘কালো ট্রাঙ্ক’ নিয়ে উত্তপ্ত ভারত

ভোটের সময় ভারতের রাজনীতিতে উত্তাপ ছড়িয়েছে একটি কালো ট্রাঙ্ক। কংগ্রেসের অভিযোগ,‘রহস্যময়’ ওই ট্রাঙ্কটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হেলিকপ্টার কনভয় থেকে নামানো হয়েছে। নির্বাচন কমিশনকে ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার দাবি জানিয়েছে তারা।

ঘটনাটি ঘটে এ সপ্তাহের শুরুর দিকে ৯ এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী মোদি কর্নাটকের চিত্রদুর্গে ভোটের প্রচারে যাওয়ার সময়।

কংগ্রেস বলছে, প্রধানমন্ত্রী নামার আগেই তার নিরাপত্তারক্ষীরা ট্রাঙ্কটি তড়িঘড়ি হেলিকপ্টার থেকে নামিয়ে একটি গোপন জায়গায় নিয়ে যায়।

কংগ্রেস মুখপাত্র আনন্দ শর্মা বলেন, ‘আমরা প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টার পাহারায় থাকা আরো তিনটি কপ্টার দেখেছি। নামার পরই প্রধানমন্ত্রীর কপ্টার থেকে একটি কালো ট্রাঙ্ক নামিয়ে দৌড়ে গিয়ে তা এক বেসরকারি গাড়িতে তুলে দেওয়া হয়। গাড়িটি মোদির বিশেষ নিরাপত্তা বহরে ছিল না।’

নির্বাচন কমিশনের কাছে এ ঘটনাই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন আনন্দ শর্মা। ওই ট্রাঙ্কে কি ছিল তাও জানতে চেয়েছেন তিনি। বলেছেন, ওতে কি আছে মোদীর তা জানানো উচিত ছিল।

ট্রাঙ্কে টাকাও থাকতে পারে বলে তিনি অভিযোগ করেন। নির্বাচন কমিশনের কাছে কংগ্রেসের কর্নাটক শাখা এরই মধ্যে অভিযোগ দায়ের করেছে বলেও জানান আনন্দ শর্মা।

মোদির হেলিকপ্টার থেকে কালো ট্রাঙ্ক তড়িঘড়ি নামানোর অভিযোগের প্রমাণ হিসাবে শনিবারই কর্নাটকের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি দীনেশ গুন্ডু রাও নিজের টুইটার হ্যান্ডলে ১৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন।

সে ভিডিওতেই ধরা পড়েছে প্রধানমন্ত্রীর কপ্টার থেকে ট্রাঙ্কটি নামিয়ে দ্রুতই একটি ইনোভা গাড়িতে তুলে দেওয়ার দৃশ্য। গাড়িটি সঙ্গে সঙ্গে রওনা হয়ে যায়।

নির্বাচন কমিশনের কাছে দীনেশ গুন্ডু রাওয়ের দাবি, ট্রাঙ্কে কী রাখা ছিল, গাড়িটাই বা কার, সব কিছু তদন্ত করে দেখা হোক।

তবে কালো ট্রাঙ্ক নিয়ে কংগ্রেসের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Design & Developed BY ThemesBazar.Com