মাদকের কারণেই নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে তরুণ গ্যাংস্টারা

২০১৭ সালে উত্তরায় আদনান হত্যার পর আলোচনায় আসে বিভিন্ন তরুণ গ্যাংস্টারের গল্প। দেশে তরুণদের নিয়ে গড়ে উঠা গ্যাংস্টারের সংখ্যা কত তার কোন হিসেব নেই। এটিএন নিউজ ১১.০০

চারদিকে মাদকের ছড়াছড়ি হাত বাড়ালেই এই তরুণরা পেয়ে যাচ্ছে তাদের কাঙ্খিত মাদকদব্য। তাই এই সকল তরুণদের মাদকের আসক্তিকে কাজে লাগিয়ে রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে যাচ্ছেন সুবিধাভুগি গড়ফাদাররা।

সম্প্রতি একটি ঘটনায় উঠে আসে একটি গাড়ি ছিনতাই করতে পারলে ১০০০ ইয়াবা পুরস্কার। তবে গাড়ি ছিনতাই করতে গিয়ে এক সময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়ে সেই গ্যাং সদস্য। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মাধ্যমে এই তরুণ গ্যাংস্টারদের ম‚ল উৎপত্তি হচ্ছে বলে মনে করেন আইন বিশেষজ্ঞরা।

অনেকে অতি উৎসাহিত হয়ে জড়িয়ে পড়ছে এমন কোন হীন অপরাধ নেই। যা আগামী প্রজন্মমের জন্য অত্যন্ত ভয়াবহ রূপ ধারণ করার পাশাপাশি পঙ্গু করে দিচ্ছে দেশের কোমলমতি মেধাবী তরুণদের ভবিষ্যত।

এলাকা ভিত্তিক গড়ে উঠা এই সকল তরুণ গ্যাংস্টাররা অবলীলায় করে যাচ্ছে তাদের অপরাধ কোন না কোন গড়ফাদারের ছত্রছায়ায়। গড়ে তুলেছে নিজেদের সাম্রাজ্য আর এই সা¤্রাজ্য রক্ষায় মাঝে মাঝেই তারা জড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন সংঘাত ও নৈরাজ্যের পথে। যার শেষ পরিণতি অস্ত্রবাজি, রক্তক্ষয়।

ডিএমপি গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মশিউর রহমানের বক্তব্যে উঠে আসে কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য। তিনি বলেন, দেশের তরুণরা পেটের ভিতরে করে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় নিয়ে আছে ইয়াবা। এছাড়াও কিশোররা প্রকাশ্যে কিংবা রাতের আঁধারে গলা কেটে হত্যা করছে উবার ড্রাইবারদের গাড়ি ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে। বিকৃত ভালোবাসায় অন্ধ হয়ে অন্যকে হত্যা করতেও দ্বিধা করছে না কিশোররা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খন্দকার ফারজানা খানম মনে করেন, সমাজে গ্যাং কালচার ম‚লত মাদক, সন্ত্রাসবাদ ও রাজনৈতিক সংস্পর্শে প্রসার লাভ করে থাকে। কেননা আমাদের চলমান সিস্টেমটা সুশিক্ষায় শিক্ষিত না হওয়ায় এই সকল অপরাধ বার বার রিপিট হচ্ছে এবং বেড়েই চলেছে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তথ্যমতে, টিনেজারদের গ্যাং গুলো তিন থেকে চার ধাপে বিস্তৃত। ফেইসবুক কেন্দ্রিক সক্রিয় হয়ে উঠা কিশোরদের এই গ্যাং কারচারে উচ্চবিত্ত থেকে নিম্মবিত্ত সকল শ্রেণীর অনেক কিশোরই গ্যাংস্টার থেকে হয়ে উঠছে মাফিয়া রূপে।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ‘ভিসির নির্দেশে’ গোপালগঞ্জে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা

» অতিরিক্ত মেকআপে রয়েছে স্বাস্থ্য-ঝুঁকির আশঙ্কা!

» দরুদ শরিফের অসামান্য বরকত

» লুটেরা ভয়ে আছে, জনগণ স্বস্তিতে

» কফ-কাশির নেপথ্য কারণ

» চকবাজারের যুবলীগ নেতা টিনু গ্রেফতার

» শখ আবার আড়ালে

» টেন্ডার-চাঁদাবাজিতে খালেদের পুরো পরিবার

» সাদা পোশাকে গ্রেপ্তার আতঙ্ক নিরাপত্তা চেয়ে সিলেটে ৫৬ সাংবাদিকের জিডি

» ২ কর্মকর্তা লাপাত্তা

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

মাদকের কারণেই নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে তরুণ গ্যাংস্টারা

২০১৭ সালে উত্তরায় আদনান হত্যার পর আলোচনায় আসে বিভিন্ন তরুণ গ্যাংস্টারের গল্প। দেশে তরুণদের নিয়ে গড়ে উঠা গ্যাংস্টারের সংখ্যা কত তার কোন হিসেব নেই। এটিএন নিউজ ১১.০০

চারদিকে মাদকের ছড়াছড়ি হাত বাড়ালেই এই তরুণরা পেয়ে যাচ্ছে তাদের কাঙ্খিত মাদকদব্য। তাই এই সকল তরুণদের মাদকের আসক্তিকে কাজে লাগিয়ে রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে যাচ্ছেন সুবিধাভুগি গড়ফাদাররা।

সম্প্রতি একটি ঘটনায় উঠে আসে একটি গাড়ি ছিনতাই করতে পারলে ১০০০ ইয়াবা পুরস্কার। তবে গাড়ি ছিনতাই করতে গিয়ে এক সময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়ে সেই গ্যাং সদস্য। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মাধ্যমে এই তরুণ গ্যাংস্টারদের ম‚ল উৎপত্তি হচ্ছে বলে মনে করেন আইন বিশেষজ্ঞরা।

অনেকে অতি উৎসাহিত হয়ে জড়িয়ে পড়ছে এমন কোন হীন অপরাধ নেই। যা আগামী প্রজন্মমের জন্য অত্যন্ত ভয়াবহ রূপ ধারণ করার পাশাপাশি পঙ্গু করে দিচ্ছে দেশের কোমলমতি মেধাবী তরুণদের ভবিষ্যত।

এলাকা ভিত্তিক গড়ে উঠা এই সকল তরুণ গ্যাংস্টাররা অবলীলায় করে যাচ্ছে তাদের অপরাধ কোন না কোন গড়ফাদারের ছত্রছায়ায়। গড়ে তুলেছে নিজেদের সাম্রাজ্য আর এই সা¤্রাজ্য রক্ষায় মাঝে মাঝেই তারা জড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন সংঘাত ও নৈরাজ্যের পথে। যার শেষ পরিণতি অস্ত্রবাজি, রক্তক্ষয়।

ডিএমপি গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মশিউর রহমানের বক্তব্যে উঠে আসে কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য। তিনি বলেন, দেশের তরুণরা পেটের ভিতরে করে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় নিয়ে আছে ইয়াবা। এছাড়াও কিশোররা প্রকাশ্যে কিংবা রাতের আঁধারে গলা কেটে হত্যা করছে উবার ড্রাইবারদের গাড়ি ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে। বিকৃত ভালোবাসায় অন্ধ হয়ে অন্যকে হত্যা করতেও দ্বিধা করছে না কিশোররা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খন্দকার ফারজানা খানম মনে করেন, সমাজে গ্যাং কালচার ম‚লত মাদক, সন্ত্রাসবাদ ও রাজনৈতিক সংস্পর্শে প্রসার লাভ করে থাকে। কেননা আমাদের চলমান সিস্টেমটা সুশিক্ষায় শিক্ষিত না হওয়ায় এই সকল অপরাধ বার বার রিপিট হচ্ছে এবং বেড়েই চলেছে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তথ্যমতে, টিনেজারদের গ্যাং গুলো তিন থেকে চার ধাপে বিস্তৃত। ফেইসবুক কেন্দ্রিক সক্রিয় হয়ে উঠা কিশোরদের এই গ্যাং কারচারে উচ্চবিত্ত থেকে নিম্মবিত্ত সকল শ্রেণীর অনেক কিশোরই গ্যাংস্টার থেকে হয়ে উঠছে মাফিয়া রূপে।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Design & Developed BY ThemesBazar.Com