মাতাল চিকিৎসকের ভয়ঙ্কর কাণ্ড

ঝগড়ার পর স্ত্রীকে মারধর করা হয়। তারপর আগুন ধরিয়ে দেয় নিজের শয়নকক্ষে। এরপর দা নিয়ে সামনে যাকে পেয়েছেন তাকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছেন পল্লী চিকিৎসক সত্যজিৎ ঘোষ (৩৫)। এতে নিহত হন সন্ধ্যা রানী (৬০) নামে এক নারী। গুরুতর আহত হয়েছেন আরো ৪ জন। স্থানীয় লোকজন অনেক কষ্টে পাকড়াও করে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন। পুলিশ সত্যজিৎ ঘোষকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলেও আহত ৪ জনকে ভর্তি করান স্থানীয়রা। শুক্রবার রাত পৌনে ৯টার দিকে চট্টগ্রাম মহানগরীর আকবর শাহ থানাধীন উত্তর কাট্টলী বড়কালী বাড়ি এলাকায় এই ভয়ঙ্কর কান্ড ঘটান মাতাল সত্যজিৎ ঘোষ।

নিহত সন্ধ্যা রানী (৬০) উত্তর কাট্টলী বড়কালী বাড়ি এলাকার ধীরেন্দ্র চন্দ্রের স্ত্রী। আর আহতরা হলেন-নির্মল দত্তের ছেলে টিংকু দত্ত (২৬), মৃত শচিন তালুকদারের ছেলে প্রবীর তালুকদার (৪০), মৃত সুবির দত্তের ছেলে দীপক দত্ত (৪৮), যোগেশ নন্দীর মেয়ে শান্তি নন্দী (৭০)।
স্থানীয়রা জানান, চট্টগ্রাম মহানগরীর উত্তর কাট্টলী কালীবাড়ি এলাকার সুনীল ঘোষের ছেলে সত্যজিৎ ঘোষ। তিনি পেশায় পল্লী চিকিৎসক। ওই এলাকায় তার একটি ফার্মেসি রয়েছে। প্রায় সন্ধ্যার পর নেশা করে সে মাতলামি করে। শুক্রবার রাতে অতিরিক্ত নেশা করায় ঘরে গিয়ে ঝগড়ার পর সে স্ত্রীকে মারধর করে। পরে নিজ ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এরপর ঘর থেকে একটি ধারালো দা নিয়ে বাইরে থেকে ভাইয়ের ঘরের দরজার হুক লাগিয়ে দেয়। এরপর রাস্তায় এসে প্রথমে দীপক দত্তের দোকানে গিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।
এসময় তার দোকানের সামনে থাকা দিনমজুর টিংকু দত্তকেও কুপিয়ে জখম করে। পরবর্তীতে আশপাশে থাকা অন্যদেরও একই কায়দায় কুপিয়ে জখম করে। এরমধ্যে সন্ধ্যা রানী নামে ওই নারী নিহত হন। এ সময় এলাকাবাসীর মাঝে ভয়ঙ্কর অবস্থা বিরাজ করে। একপর্যায়ে এলাকাবাসী তাকে ধাওয়া দিলে পাশের পুকুরে গিয়ে লাফিয়ে পড়ে । সেখান থেকে পাকড়াও করার পর পুলিশ এসে তাকে আটক করেন। আকবরশাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন বলেন, সত্যজিৎ আগে থেকেই মাদকাসক্ত ছিল। তার মানসিক সমস্যাও রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে ঘটনাস্থলে গিয়ে আটক করে। আটক করতে গিয়ে সত্যজিৎ পুলিশের উপরও চড়া হয়। ফলে পুলিশও তাকে পিটিয়েছে। পরে তাকে আহত অবস্থায় চমেক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে বলে জানান তিনি।মানবজমিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» একটি দল শুধুই সরকারের সমালোচনা করছে:নানক

» মাসুদ রানা ছবির বাজেট ৮৩ কোটি টাকা

» গণপিটুনি ও ধর্ষণ বিএনপি-জামায়াতের নিখুঁত ষড়যন্ত্র : আইনমন্ত্রী

» হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বহিষ্কার

» নির্ধারিত স্থানের বাইরে কোরবানি পশুর হাট নয় : ডিএমপি কমিশনার

» রিফাত হত্যা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে রিশান ফরাজী

» আ.লীগ বিরোধীদের তালিকায় মন্ত্রী-এমপির সংখ্যাই বেশি

» ছেলেধরা সন্দেহে ৯৯৯ কল দিন, গণপিটুনি নয়

» পচা-মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য দিয়ে তৈরি হচ্ছে জুস

» ৪৮ ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

মাতাল চিকিৎসকের ভয়ঙ্কর কাণ্ড

ঝগড়ার পর স্ত্রীকে মারধর করা হয়। তারপর আগুন ধরিয়ে দেয় নিজের শয়নকক্ষে। এরপর দা নিয়ে সামনে যাকে পেয়েছেন তাকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছেন পল্লী চিকিৎসক সত্যজিৎ ঘোষ (৩৫)। এতে নিহত হন সন্ধ্যা রানী (৬০) নামে এক নারী। গুরুতর আহত হয়েছেন আরো ৪ জন। স্থানীয় লোকজন অনেক কষ্টে পাকড়াও করে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন। পুলিশ সত্যজিৎ ঘোষকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলেও আহত ৪ জনকে ভর্তি করান স্থানীয়রা। শুক্রবার রাত পৌনে ৯টার দিকে চট্টগ্রাম মহানগরীর আকবর শাহ থানাধীন উত্তর কাট্টলী বড়কালী বাড়ি এলাকায় এই ভয়ঙ্কর কান্ড ঘটান মাতাল সত্যজিৎ ঘোষ।

নিহত সন্ধ্যা রানী (৬০) উত্তর কাট্টলী বড়কালী বাড়ি এলাকার ধীরেন্দ্র চন্দ্রের স্ত্রী। আর আহতরা হলেন-নির্মল দত্তের ছেলে টিংকু দত্ত (২৬), মৃত শচিন তালুকদারের ছেলে প্রবীর তালুকদার (৪০), মৃত সুবির দত্তের ছেলে দীপক দত্ত (৪৮), যোগেশ নন্দীর মেয়ে শান্তি নন্দী (৭০)।
স্থানীয়রা জানান, চট্টগ্রাম মহানগরীর উত্তর কাট্টলী কালীবাড়ি এলাকার সুনীল ঘোষের ছেলে সত্যজিৎ ঘোষ। তিনি পেশায় পল্লী চিকিৎসক। ওই এলাকায় তার একটি ফার্মেসি রয়েছে। প্রায় সন্ধ্যার পর নেশা করে সে মাতলামি করে। শুক্রবার রাতে অতিরিক্ত নেশা করায় ঘরে গিয়ে ঝগড়ার পর সে স্ত্রীকে মারধর করে। পরে নিজ ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এরপর ঘর থেকে একটি ধারালো দা নিয়ে বাইরে থেকে ভাইয়ের ঘরের দরজার হুক লাগিয়ে দেয়। এরপর রাস্তায় এসে প্রথমে দীপক দত্তের দোকানে গিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।
এসময় তার দোকানের সামনে থাকা দিনমজুর টিংকু দত্তকেও কুপিয়ে জখম করে। পরবর্তীতে আশপাশে থাকা অন্যদেরও একই কায়দায় কুপিয়ে জখম করে। এরমধ্যে সন্ধ্যা রানী নামে ওই নারী নিহত হন। এ সময় এলাকাবাসীর মাঝে ভয়ঙ্কর অবস্থা বিরাজ করে। একপর্যায়ে এলাকাবাসী তাকে ধাওয়া দিলে পাশের পুকুরে গিয়ে লাফিয়ে পড়ে । সেখান থেকে পাকড়াও করার পর পুলিশ এসে তাকে আটক করেন। আকবরশাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন বলেন, সত্যজিৎ আগে থেকেই মাদকাসক্ত ছিল। তার মানসিক সমস্যাও রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে ঘটনাস্থলে গিয়ে আটক করে। আটক করতে গিয়ে সত্যজিৎ পুলিশের উপরও চড়া হয়। ফলে পুলিশও তাকে পিটিয়েছে। পরে তাকে আহত অবস্থায় চমেক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে বলে জানান তিনি।মানবজমিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Design & Developed BY ThemesBazar.Com