ভারতীয় সেনাদের ফাঁদে ফেলতে সুন্দরী নারীর ‘হানিট্র্যাপ’

ভারতের সেনাবাহিনীর প্রতি সব সময়েই বাইরের শত্রু দেশগুলোর নজর রয়েছে। তাদের গোপন গতিবিধি ও কাজকর্মের তথ্য হাতিয়ে নিতে নানা রকম ফাঁদ পাতার খবর বিভিন্ন সময় গণমাধ্যমে এসেছে। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিংয়ের এই সময়ে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে সুন্দরী নারীদের নামে নতুন ফাঁদ পাতা হয়েছে, যার নাম ‘হানি ট্র্যাপ’। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

জানা গেছে, ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সুন্দরীর ফাঁদ (‘হানি ট্র্যাপ’) পেতেছে শত্রু দেশগুলো। দেশটির সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে সোমবার এ ব্যাপারে সেনাদের কাছে সতর্ক বার্তা পাঠানো হয়েছে। সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা দফতরের কার্যালয় ডিরেক্টরেট অব মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স’র ঐ বার্তায় বলা হয়েছে, আপাতত দু’টি হানি ট্র্যাপের হদিস মিলেছে। একটি ফেসবুকে। অন্যটি ইনস্টাগ্রামে। ফেসবুকে যে অ্যাকউন্টটি খোলা হয়েছে, তার নাম- ‘গুজ্জর সৌম্যা’। আর ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্টটি ‘ওয়িসোমিয়া’ নামে। দু’টি অ্যাকাউন্টের প্রোফাইলই ‘যথেষ্ট সন্দেহজনক’ বলে মনে করছে সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা দফতর।

তাদের সন্দেহ, গুপ্তচররাই হানি ট্র্যাপের অ্যাকাউন্ট খুলে সেনা সদস্য ও অফিসারদের সঙ্গে ভাব জমিয়ে তাদের গতিবিধি ও কাজকর্মের খবরাখবর জানতে চাইছে। সৈন্য ও অফিসারদের গুরুত্ব যাচাই করেই তাদের ফাঁদে ফেলার কৌশল নিয়েছে হানি ট্র্যাপাররা।

গত জানুয়ারিতে এক হানি ট্র্যাপের খপ্পরে পড়েছিলেন রাজস্থানের জয়সলমেঢ় জেলার আর্মার্ড কর্পসের সিপাই সোমভীর সিংহ। তদন্তে জানা গিয়েছিল পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই) ঐ হানি ট্র্যাপকে ব্যবহার করেছিল সোমভীর কোথায় রয়েছেন, কি ধরণের প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন, তা জানতে।

বিডি-প্রতিদিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» প্রেম পিয়াসা ভালবাসা

» রোহিঙ্গা ইস্যু: গাম্বিয়ার মামলা লড়বে মিয়ানমার, নেতৃত্ব দিবেন সু চি

» খুলনায় ঘের ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা,১জন আটক

» মোহাম্মদপুরে ডিবি পরিচয়ে চাঁদা আদায়, আটক ১

» মধ্যরাত পর্যন্ত রুদ্ধদ্বার বৈঠক, শর্তজুড়ে দিয়ে ধর্মঘট প্রত্যাহার

» যমুনায় ধরা পড়লো ৬৫ কেজি ওজনের বাঘাইড়

» বাজারে ধর্মঘটের উত্তাপ

» ১০ গ্রামবাসীর ভরসা ‘নৌকা’

» বাঁকখালী নদী ৫০০ প্রভাবশালীর দখলে

» আমেরিকার মুদি দোকানে বিক্রি হচ্ছে গরুর গোবরের কেক!

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

ভারতীয় সেনাদের ফাঁদে ফেলতে সুন্দরী নারীর ‘হানিট্র্যাপ’

ভারতের সেনাবাহিনীর প্রতি সব সময়েই বাইরের শত্রু দেশগুলোর নজর রয়েছে। তাদের গোপন গতিবিধি ও কাজকর্মের তথ্য হাতিয়ে নিতে নানা রকম ফাঁদ পাতার খবর বিভিন্ন সময় গণমাধ্যমে এসেছে। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিংয়ের এই সময়ে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে সুন্দরী নারীদের নামে নতুন ফাঁদ পাতা হয়েছে, যার নাম ‘হানি ট্র্যাপ’। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

জানা গেছে, ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সুন্দরীর ফাঁদ (‘হানি ট্র্যাপ’) পেতেছে শত্রু দেশগুলো। দেশটির সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে সোমবার এ ব্যাপারে সেনাদের কাছে সতর্ক বার্তা পাঠানো হয়েছে। সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা দফতরের কার্যালয় ডিরেক্টরেট অব মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স’র ঐ বার্তায় বলা হয়েছে, আপাতত দু’টি হানি ট্র্যাপের হদিস মিলেছে। একটি ফেসবুকে। অন্যটি ইনস্টাগ্রামে। ফেসবুকে যে অ্যাকউন্টটি খোলা হয়েছে, তার নাম- ‘গুজ্জর সৌম্যা’। আর ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্টটি ‘ওয়িসোমিয়া’ নামে। দু’টি অ্যাকাউন্টের প্রোফাইলই ‘যথেষ্ট সন্দেহজনক’ বলে মনে করছে সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা দফতর।

তাদের সন্দেহ, গুপ্তচররাই হানি ট্র্যাপের অ্যাকাউন্ট খুলে সেনা সদস্য ও অফিসারদের সঙ্গে ভাব জমিয়ে তাদের গতিবিধি ও কাজকর্মের খবরাখবর জানতে চাইছে। সৈন্য ও অফিসারদের গুরুত্ব যাচাই করেই তাদের ফাঁদে ফেলার কৌশল নিয়েছে হানি ট্র্যাপাররা।

গত জানুয়ারিতে এক হানি ট্র্যাপের খপ্পরে পড়েছিলেন রাজস্থানের জয়সলমেঢ় জেলার আর্মার্ড কর্পসের সিপাই সোমভীর সিংহ। তদন্তে জানা গিয়েছিল পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স (আইএসআই) ঐ হানি ট্র্যাপকে ব্যবহার করেছিল সোমভীর কোথায় রয়েছেন, কি ধরণের প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন, তা জানতে।

বিডি-প্রতিদিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com