‘ব্যান্ডউইথ ব্লকে মোবাইল ফোন সেবা বিঘ্নিত হবে’

মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ও রবি আজিয়াটার ব্যান্ডউইথ সীমিত করতে সরবরাহকারীদের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বকেয়া অর্থ পরিশোধ না করায় শাস্তিমূলকভাবে গ্রামীণফোনের ৩০ শতাংশ ও রবির ১৫ শতাংশ ব্যান্ডউইথ ব্লক করে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় সংস্থাটি।

এর ফলে গ্রাহকরা কল ড্রপ ও ইন্টারনেট সেবায় ধীরগতির সমস্যার মুখে পড়বে বলে জানিয়েছে মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘ব্যান্ডউইথ ব্লক করার মাধ্যমে মোবাইল ফোন সেবা বিঘ্নিত হবে। এর ফলে কল ড্রপের সংখ্যা বাড়বে ও ইন্টারনেটের গতি কমে যাবে। গ্রাহক ক্ষতির সম্মুখীন হবে।’

এদিকে বিষয়টিকে অবমাননাকর ও গ্রাহক স্বার্থের পরিপন্থী বলে মনে করে দুই মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ও রবি।

গ্রামীণফোনের পরিচালক (কমিউনিকেশন্স) সৈয়দ তালাত কামাল রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমরা মনে করি এই নির্দেশনা নিরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে যে গঠনমূলক ও আইনগত সালিশ প্রক্রিয়ার আহ্বান জানিয়েছি তার প্রতি অবমাননাকর।

বল প্রয়োগের মাধ্যমে ব্যান্ডউইথ কমিয়ে আনার এ ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রাহক স্বার্থের পরিপন্থি। এ ধরনের নির্দেশনা আমাদের গেটওয়ে পার্টনারদের জন্য শাস্তিস্বরূপ এবং এটি দেশের লাখো ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সেবা পাবার অধিকারের পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়াবে। এই নির্দেশনায় আমরা বিস্মিত এবং এর বৈধতা প্রশ্নবিদ্ধও বটে।’

রবির  করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স প্রধান সাহেদ আলম বলেন, ‘বিটিআরসির এই সিদ্ধান্তে সাধারণ মোবাইল ফোন গ্রাহক নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হবে। প্রশ্নবিদ্ধ নিরিক্ষার উপর ভিত্তি করে মোবাইল ফোন গ্রাহকদের জন্য এই ধরনের ক্ষতিকর সিদ্ধান্ত দিয়ে এক নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপন করল গ্রাহকদের মোবাইল সেবার মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বিটিআরসি।’

তিনি বলেন, ‘আইনের উপর শ্রদ্ধাশীল থেকে সালিশের মাধ্যমে নিরীক্ষার বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য রবি চিঠি দিয়েছিল বিটিআরসিকে। চিঠির জবাব দেয়ার পরিবর্তে গ্রাহকদের জন্য সমস্যা সৃষ্টিকারী এই ধরনের একটি সিদ্ধান্ত আমাদের উপর চাপিয়ে দেয়া হল। আমরা আমাদের এই সীমিত ব্যান্ডউইথ দিয়ে গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করতে পারব বলে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। বিটিআরসির এই সিদ্ধান্তে সাধারণ মোবাইল গ্রাহক নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হবে।’

বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন খান বলেন, ‘গ্রামীণফোন লিমিটেড ও রবি আজিয়াটা লিমিটেডের কাছে অডিট আপত্তিকৃত বকেয়া পাওনা পরিশোধ না করায় এ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। কমিশন আশা করছে, শিগগিরই এ পাওনা পরিশোধ করে অপারেটর দুটি স্বাভাবিক গতিতে গ্রাহকদের সেবা প্রদানে সচেষ্ট হবে।’

বিটিআরসি বলছে, নিরীক্ষা প্রতিবেদন অনুযায়ী গ্রামীণফোনের কাছে ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে সরকারের। অন্যদিকে রবিকে পরিশোধ করতে হবে ৮৬৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা। গ্রামীণফোনের বকেয়ার মধ্যে ৮ হাজার ৪৯৪ কোটি ১ লাখ টাকা পাবে বিটিআরসি ও ৪ হাজার ৮৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা পাবে এনবিআর।

এর আগে একাধিকবার পাওনা আদায়ে দুই অপারেটরকে চিঠি দেয় বিটিআরসি। বারবার তাগাদা দেওয়ার পরও গ্রামীণফোন ও রবি সরকারের এ পাওনা অর্থ দিচ্ছে না বলে অভিযোগ বিটিআরসির।

 

রাইজিংবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» শ্রীলঙ্কা সফরের দল ঘোষণা, ফিরলেন বিজয়-তাইজুল

» এরশাদকে রংপুরেই দাফনের সিদ্ধান্ত

» আ.লীগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র এখনও শেষ হয়নি : হানিফ

» খুলনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

» রমজানে জঙ্গি হামলার ঝুঁকি থাকলেও রুখে দিয়েছি : মনিরুল

» ঠাকুরগাঁওয়ে ১৫০ পিচ ইয়াবা সহ ডিবিসি নিউজের জেলা প্রতিনিধি রিপন ও তার সহযোগি আটক

» হার্ট সুস্থ নাকি অসুস্থ? জানা যাবে সহজেই

» “ভালোবার ছায়াপটে দৃষ্টির অগোচরে”

» ফেসবুক থেকে ছবি ডাউনলোড করছেন না তো?

» হারাম টাকায় হজ করাও হারাম

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

‘ব্যান্ডউইথ ব্লকে মোবাইল ফোন সেবা বিঘ্নিত হবে’

মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ও রবি আজিয়াটার ব্যান্ডউইথ সীমিত করতে সরবরাহকারীদের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বকেয়া অর্থ পরিশোধ না করায় শাস্তিমূলকভাবে গ্রামীণফোনের ৩০ শতাংশ ও রবির ১৫ শতাংশ ব্যান্ডউইথ ব্লক করে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় সংস্থাটি।

এর ফলে গ্রাহকরা কল ড্রপ ও ইন্টারনেট সেবায় ধীরগতির সমস্যার মুখে পড়বে বলে জানিয়েছে মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘ব্যান্ডউইথ ব্লক করার মাধ্যমে মোবাইল ফোন সেবা বিঘ্নিত হবে। এর ফলে কল ড্রপের সংখ্যা বাড়বে ও ইন্টারনেটের গতি কমে যাবে। গ্রাহক ক্ষতির সম্মুখীন হবে।’

এদিকে বিষয়টিকে অবমাননাকর ও গ্রাহক স্বার্থের পরিপন্থী বলে মনে করে দুই মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ও রবি।

গ্রামীণফোনের পরিচালক (কমিউনিকেশন্স) সৈয়দ তালাত কামাল রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমরা মনে করি এই নির্দেশনা নিরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে যে গঠনমূলক ও আইনগত সালিশ প্রক্রিয়ার আহ্বান জানিয়েছি তার প্রতি অবমাননাকর।

বল প্রয়োগের মাধ্যমে ব্যান্ডউইথ কমিয়ে আনার এ ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রাহক স্বার্থের পরিপন্থি। এ ধরনের নির্দেশনা আমাদের গেটওয়ে পার্টনারদের জন্য শাস্তিস্বরূপ এবং এটি দেশের লাখো ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সেবা পাবার অধিকারের পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়াবে। এই নির্দেশনায় আমরা বিস্মিত এবং এর বৈধতা প্রশ্নবিদ্ধও বটে।’

রবির  করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স প্রধান সাহেদ আলম বলেন, ‘বিটিআরসির এই সিদ্ধান্তে সাধারণ মোবাইল ফোন গ্রাহক নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হবে। প্রশ্নবিদ্ধ নিরিক্ষার উপর ভিত্তি করে মোবাইল ফোন গ্রাহকদের জন্য এই ধরনের ক্ষতিকর সিদ্ধান্ত দিয়ে এক নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপন করল গ্রাহকদের মোবাইল সেবার মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বিটিআরসি।’

তিনি বলেন, ‘আইনের উপর শ্রদ্ধাশীল থেকে সালিশের মাধ্যমে নিরীক্ষার বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য রবি চিঠি দিয়েছিল বিটিআরসিকে। চিঠির জবাব দেয়ার পরিবর্তে গ্রাহকদের জন্য সমস্যা সৃষ্টিকারী এই ধরনের একটি সিদ্ধান্ত আমাদের উপর চাপিয়ে দেয়া হল। আমরা আমাদের এই সীমিত ব্যান্ডউইথ দিয়ে গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করতে পারব বলে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। বিটিআরসির এই সিদ্ধান্তে সাধারণ মোবাইল গ্রাহক নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হবে।’

বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন খান বলেন, ‘গ্রামীণফোন লিমিটেড ও রবি আজিয়াটা লিমিটেডের কাছে অডিট আপত্তিকৃত বকেয়া পাওনা পরিশোধ না করায় এ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। কমিশন আশা করছে, শিগগিরই এ পাওনা পরিশোধ করে অপারেটর দুটি স্বাভাবিক গতিতে গ্রাহকদের সেবা প্রদানে সচেষ্ট হবে।’

বিটিআরসি বলছে, নিরীক্ষা প্রতিবেদন অনুযায়ী গ্রামীণফোনের কাছে ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে সরকারের। অন্যদিকে রবিকে পরিশোধ করতে হবে ৮৬৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা। গ্রামীণফোনের বকেয়ার মধ্যে ৮ হাজার ৪৯৪ কোটি ১ লাখ টাকা পাবে বিটিআরসি ও ৪ হাজার ৮৫ কোটি ৯৪ লাখ টাকা পাবে এনবিআর।

এর আগে একাধিকবার পাওনা আদায়ে দুই অপারেটরকে চিঠি দেয় বিটিআরসি। বারবার তাগাদা দেওয়ার পরও গ্রামীণফোন ও রবি সরকারের এ পাওনা অর্থ দিচ্ছে না বলে অভিযোগ বিটিআরসির।

 

রাইজিংবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Design & Developed BY ThemesBazar.Com