চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম | ৫টি ইয়োগা দূর করবে হেয়ার ফল

আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি কিছু যোগ ব্যায়ামের টিপস। যার সাহায্যে আপনি স্বাস্থ্য ভালো রাখার পাশাপাশি পাবেন সুন্দর চুল আর চুল পড়ে যাবার ভয় থেকে মুক্তি। আপনি যদি আজ পর্যন্ত কেমিক্যাল দিয়ে ভরা শ্যাম্পু, কন্ডিশনার থেকে শুরু করে মেথি, সিকাকাই পর্যন্ত সব কিছু অলরেডি ব্যবহার করে করে ফেলে থাকেন ( কোন ভালো ফল ছাড়াই) তবে আর আপনার চিন্তা নেই, আপনাকে সাহায্য করার জন্য আছে চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম ।

আমাদের চুল পড়া আর নতুন চুল গজানোর হার সবসময়ই বাল্যান্স মেনটেন করে চলে। যদিও আজকাল অতিরিক্ত চুল পড়ার ঘটনা বেশ কমন। এটা বিভিন্ন কারণে হয় যেমন ইমোশনাল বা ফিজিকাল স্ট্রেস, অস্বাস্থ্যকর ডায়েট, মাথার ত্বকে ইনফেকশন, হরমনাল ইমব্যাল্যান্স ইত্যাদি। আপনাদের জন্য এখানে দেয়া হল পাঁচটি একদম সহজ যোগাসন যা শুধু আপনার চুলের সৌন্দর্যই বাড়াবে না, আপনাকে এর সাথে সাথে দেবে সুস্থ দেহ আর ফ্রেশ ফুরফুরে মন। আমরা জানি মাথার ত্বকে সঠিক রক্ত সঞ্চালন চুলের গোঁড়ায় পরিপূর্ণ পুষ্টি পৌঁছে দেবার জন্য অপরিহার্য। এখানে যে আসন গুলো দেখান হল সেগুলো আপনার উর্ধ্বাঙ্গে রক্ত সঞ্চালণ বাড়াতে সাহায্য করবে।  তো চলুন দেখে নিই যোগাসন কীভাবে আপনাকে এত এত সমস্যার হাত থেকে মুক্তি দিতে পারে-

চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম

১) প্রথম আসনঃ আপনার নখগুলো পরস্পরের সাথে ঘষুন

 

এই যোগ যে কেউ খুবই কম কষ্টে করে ফেলতে পারবে। আপনার দুই হাতের আঙ্গুল গুলো ভাঁজ করে নখ গুলো ছবির মত মুখোমুখি আনুন। এবার আপনার একহাতের নখ অন্য হাতের নখের সাথে ঘষতে থাকুন। এভাবে পাঁচ থেকে দশ মিনিট ঘষুন এবং যখনই সময় পান তখনই এই আসনটি করুন। কিন্তু খেয়াল রাখবেন আপনার বুড়ো আঙ্গুলের নখও ঘষবেন না যেন। কারণ যোগ শাস্ত্র বলে এতে করে নাকি ঠোঁটের উপরের লোমের বৃদ্ধি বেড়ে যায়। এই আসন আপনার নার্ভ স্টিমুলেট করে আপনার চুলের বৃদ্ধির হার বাড়াতে অনেক বড় ভূমিকা রাখে।

২) দ্বিতীয় আসনঃ বজ্রাসন

 

সংস্কৃতে ‘বজ্র’ শব্দের অর্থ বজ্রপাত বা হীরা এবং ‘আসন’ শব্দের অর্থ বসা বা ভঙ্গি। এই আসনটি করার জন্য মেঝেতে বা ইয়োগা ম্যাটে উবু হয়ে ছবির মত করে বসুন। আপনার গোড়ালি আর পায়ের আঙ্গুল যেন একই সাথে সামান্তরাল থাকে আর মেঝে ছুঁয়ে থাকে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। আপনার হাতের তালু আপনার ভাঁজ করা হাঁটুর উপরে রাখুন এবং শিরদাঁড়া সোজা করে বসুন। এবার আপনার চোখ বন্ধ করে রিলাক্স করুন। এই আসন আপনার শরীর সুস্থ রাখার সাথে সাথে আপনার মন মেজাজও ভালো ও ভারসম্যপূর্ণ রাখে।

৩) তৃতীয় আসন

এই আসনের জন্য প্রথমে আপনার দুই পা টানটান করে মেঝেতে পিঠের উপরে শুয়ে পড়ুন। এবার শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক রেখে আপনার দুই হাত দিয়ে আপনার কোমরে সাপোর্ট দিন। এবার ধীরে ধীরে আপনার দুই পা একত্রে মেঝে থেকে উপরে তোলার চেষ্টা করুন। প্রথম বারেই ছবির মত পুরোটা তুলতে পারবেন না বা তোলার চেষ্টাও করবেন না। আহত হতে পারেন। যতটুকু করতে আপনি কমফোর্টেবল তততুকুই করুন। পাঁচ পর্যন্ত গুনুন এর পর আবার ধীরে ধীরে পা জোড়া নামিয়ে নিন। আবার রিপিট করুন। আসন শেষে শবাসনে বিশ্রাম নিন। এই আসন আপনার নিম্নাঙ্গ থেকে ঊর্ধ্বাঙ্গের দিকে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়।

৪) চতুর্থ আসনঃ উত্তানাসন

‘উট’ শব্দের অর্থ হচ্ছে গভীর, ‘টান’ শব্দের অর্থ হচ্ছে ‘পেশি টান টান করা’ এবং ‘আসন’ শব্দের অর্থ ‘ভঙ্গী’। অর্থাৎ এই আসনের নামের অর্থ ‘তীব্র ভাবে সামনে ঝুঁকে পেশি টান টান করার ভঙ্গী’। আপনার দুটি পা পরস্পরের কাছাকাছি এনে সোজা হয়ে দাঁড়ান, যাতে করে দুই পা একে অপরকে হাঁটুতে, গোড়ালিতে আর পায়ের আঙ্গুলে স্পর্শ করে।এবার গভীর ভাবে শ্বাস নিয়ে দুই হাত সামনে সোজা করে ঊর্ধ্বাঙ্গকে সামনের দিকে ঝুঁকিয়ে নিন এবং হাতের আঙ্গুল দিয়ে মেঝে স্পর্শ করার চেষ্টা করুন। যতক্ষণ পারেন স্বাভাবিক শ্বাসপ্রশ্বাসের সাথে এই আসন ধরে রাখুন। এই আসন প্রতিদিন প্র্যাকটিস করার মাধ্যমে আপনার মাথায় আর শরীরের ঊর্ধ্বাংশে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়।এতে মাথার ত্বক পর্যাপ্ত পুষ্টি পায় ও এর সাথে সাথে চুল পড়া কমে যায়। বেশি ভালো হয় যদি মাথায় তেল ম্যাসাজ করার আগে এই আসন প্র্যাকটিস করেন তাহলে।

৫) পঞ্চম আসন

দুই পা টানটান করে মেঝেতে পিঠের উপরে শুয়ে পড়ুন। এবার আপনার দুই পা একসাথে মেঝে থেকে ৯০ডিগ্রিতে মেঝের সাথে রেখে হাঁটুর উপর ভর দিয়ে এবার হাতের তালু দিয়ে পায়ের গোড়ালি ধরে ভারসম্য বজায় রেখে আপনার ঊর্ধ্বাঙ্গ হাঁটুর কাছাকাছি নিয়ে যান, যাতে করে আপনার চিবুক আপনার বুক স্পর্শ করে। আপনার চোখ এই আসনে আপনার পায়ের আঙ্গুল দেখতে পাবে। আপনার শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকবে। পাঁচ পর্যন্ত গুনে এই আসন থেকে সরে আসুন। এরপর আবার ধীরে ধীরে আগের মত পিঠের উপর শুয়ে পড়ুন। এভাবে আবার পুরো প্রক্রিয়া রিপিট করুন। আসন শেষে ‘শবাসনে’ বিশ্রাম নিন। এই আসনটি আপনার সারা দেহে রক্ত সঞ্চালণ বৃদ্ধি করতে ভূমিকা রাখে বিধায় আপনার মাথার ত্বক রক্তের মাধ্যমে অতিরিক্ত পুষ্টি পায় ও স্বাভাবিক ভাবে বাড়তে পারে। নিয়মিত প্র্যাকটিসে আপনার চুলের বৃদ্ধির হার বাড়বে।

ঘাড়ের ব্যায়াম-১

চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম (৫টি যোগব্যায়াম) নিয়মিত প্রাকটিসের পর এই ঘাড়ের ব্যায়ামগুলো আপনার যোগের কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে। প্রথমটি আমরা সবাই জানি। ধীরে ধীরে আপনার মাথা সামনে ঝুঁকিয়ে বুকের সাথে চিবুক লাগান আবার ধীরে ধীরে পেছনে নিয়ে গলা যত পারেন টানটান করুন।

ঘাড়ের ব্যায়াম-২

প্রথম ঘাড়ের ব্যায়াম এরপর ২য় ধাপে আপনার ঘাড় কাঁধের দিকে ঝুঁকান এবং ছবির মত করে যেদিকে ঝুকাচ্ছেন সেদিকের হাত দিয়ে ঘাড় কাঁধের যত কাছাকাছি পারেন ধরে রাখুন।পাঁচ পর্যন্ত গুনে আসন ছেড়ে দিন এবং অন্য কাঁধে ঘাড় ঝুঁকান।

আপনি যদি চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম প্র্যাকটিস নিয়মিত করেন তবে আপনার মাথার ত্বক ভেতর থেকে পুষ্টি পাবে এবং আপনি পাবেন এক মাথা ঘন কালো চুল। তবে আর দেরি কেন? যারা চুল পড়া বা রুক্ষ, পুষ্টিহীন চুলের সমস্যায় ভুগছেন তারা আজ থেকেই রেগুলার চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম করা শুরু করুন।

 shajgoj.com

 

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» হাতীবান্ধায় বন্যার্তদের পাশে উজ্জ্বল  পাটোয়ারী 

» গ্রামীন জনগোষ্ঠীর জীবন ও জীবিকার উন্নয়নে কমিউনিটি রেডিও শীর্ষক সংলাপ অনুষ্ঠিত

» লটারীর মাধ্যমে ভাগ্য খুলছে ৫১২ কৃষকের

» শিবগঞ্জ সীমান্তে ফেনসিডিলসহ আটক ১

» তাহিরপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের ত্রাণসামগ্রী ও জরুরী ওষুধপত্র বিতরণ

» ভারতীয় হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ দেবী শেঠীর নারায়ণা হেলথের তথ্যসেবা কেন্দ্র এখন খুলনায়

» বৃষ্টি আসলেই লালমনিরহাট পৌরবাসী ভোগান্তিতে নতুন মাত্রা যোগ হয়

» ময়মনসিংহে বোন হত্যার দায়ে ভাইয়ের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

» শৈলকুপায় বাদাম বিক্রেতা বৃদ্ধ প্রতিবন্ধীর পাশে ইউএনও উসমান গনি

» মণিরামপুরে নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি, দিশেহারা সীমিত আয়ের মানুষ

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম | ৫টি ইয়োগা দূর করবে হেয়ার ফল

আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি কিছু যোগ ব্যায়ামের টিপস। যার সাহায্যে আপনি স্বাস্থ্য ভালো রাখার পাশাপাশি পাবেন সুন্দর চুল আর চুল পড়ে যাবার ভয় থেকে মুক্তি। আপনি যদি আজ পর্যন্ত কেমিক্যাল দিয়ে ভরা শ্যাম্পু, কন্ডিশনার থেকে শুরু করে মেথি, সিকাকাই পর্যন্ত সব কিছু অলরেডি ব্যবহার করে করে ফেলে থাকেন ( কোন ভালো ফল ছাড়াই) তবে আর আপনার চিন্তা নেই, আপনাকে সাহায্য করার জন্য আছে চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম ।

আমাদের চুল পড়া আর নতুন চুল গজানোর হার সবসময়ই বাল্যান্স মেনটেন করে চলে। যদিও আজকাল অতিরিক্ত চুল পড়ার ঘটনা বেশ কমন। এটা বিভিন্ন কারণে হয় যেমন ইমোশনাল বা ফিজিকাল স্ট্রেস, অস্বাস্থ্যকর ডায়েট, মাথার ত্বকে ইনফেকশন, হরমনাল ইমব্যাল্যান্স ইত্যাদি। আপনাদের জন্য এখানে দেয়া হল পাঁচটি একদম সহজ যোগাসন যা শুধু আপনার চুলের সৌন্দর্যই বাড়াবে না, আপনাকে এর সাথে সাথে দেবে সুস্থ দেহ আর ফ্রেশ ফুরফুরে মন। আমরা জানি মাথার ত্বকে সঠিক রক্ত সঞ্চালন চুলের গোঁড়ায় পরিপূর্ণ পুষ্টি পৌঁছে দেবার জন্য অপরিহার্য। এখানে যে আসন গুলো দেখান হল সেগুলো আপনার উর্ধ্বাঙ্গে রক্ত সঞ্চালণ বাড়াতে সাহায্য করবে।  তো চলুন দেখে নিই যোগাসন কীভাবে আপনাকে এত এত সমস্যার হাত থেকে মুক্তি দিতে পারে-

চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম

১) প্রথম আসনঃ আপনার নখগুলো পরস্পরের সাথে ঘষুন

 

এই যোগ যে কেউ খুবই কম কষ্টে করে ফেলতে পারবে। আপনার দুই হাতের আঙ্গুল গুলো ভাঁজ করে নখ গুলো ছবির মত মুখোমুখি আনুন। এবার আপনার একহাতের নখ অন্য হাতের নখের সাথে ঘষতে থাকুন। এভাবে পাঁচ থেকে দশ মিনিট ঘষুন এবং যখনই সময় পান তখনই এই আসনটি করুন। কিন্তু খেয়াল রাখবেন আপনার বুড়ো আঙ্গুলের নখও ঘষবেন না যেন। কারণ যোগ শাস্ত্র বলে এতে করে নাকি ঠোঁটের উপরের লোমের বৃদ্ধি বেড়ে যায়। এই আসন আপনার নার্ভ স্টিমুলেট করে আপনার চুলের বৃদ্ধির হার বাড়াতে অনেক বড় ভূমিকা রাখে।

২) দ্বিতীয় আসনঃ বজ্রাসন

 

সংস্কৃতে ‘বজ্র’ শব্দের অর্থ বজ্রপাত বা হীরা এবং ‘আসন’ শব্দের অর্থ বসা বা ভঙ্গি। এই আসনটি করার জন্য মেঝেতে বা ইয়োগা ম্যাটে উবু হয়ে ছবির মত করে বসুন। আপনার গোড়ালি আর পায়ের আঙ্গুল যেন একই সাথে সামান্তরাল থাকে আর মেঝে ছুঁয়ে থাকে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। আপনার হাতের তালু আপনার ভাঁজ করা হাঁটুর উপরে রাখুন এবং শিরদাঁড়া সোজা করে বসুন। এবার আপনার চোখ বন্ধ করে রিলাক্স করুন। এই আসন আপনার শরীর সুস্থ রাখার সাথে সাথে আপনার মন মেজাজও ভালো ও ভারসম্যপূর্ণ রাখে।

৩) তৃতীয় আসন

এই আসনের জন্য প্রথমে আপনার দুই পা টানটান করে মেঝেতে পিঠের উপরে শুয়ে পড়ুন। এবার শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক রেখে আপনার দুই হাত দিয়ে আপনার কোমরে সাপোর্ট দিন। এবার ধীরে ধীরে আপনার দুই পা একত্রে মেঝে থেকে উপরে তোলার চেষ্টা করুন। প্রথম বারেই ছবির মত পুরোটা তুলতে পারবেন না বা তোলার চেষ্টাও করবেন না। আহত হতে পারেন। যতটুকু করতে আপনি কমফোর্টেবল তততুকুই করুন। পাঁচ পর্যন্ত গুনুন এর পর আবার ধীরে ধীরে পা জোড়া নামিয়ে নিন। আবার রিপিট করুন। আসন শেষে শবাসনে বিশ্রাম নিন। এই আসন আপনার নিম্নাঙ্গ থেকে ঊর্ধ্বাঙ্গের দিকে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়।

৪) চতুর্থ আসনঃ উত্তানাসন

‘উট’ শব্দের অর্থ হচ্ছে গভীর, ‘টান’ শব্দের অর্থ হচ্ছে ‘পেশি টান টান করা’ এবং ‘আসন’ শব্দের অর্থ ‘ভঙ্গী’। অর্থাৎ এই আসনের নামের অর্থ ‘তীব্র ভাবে সামনে ঝুঁকে পেশি টান টান করার ভঙ্গী’। আপনার দুটি পা পরস্পরের কাছাকাছি এনে সোজা হয়ে দাঁড়ান, যাতে করে দুই পা একে অপরকে হাঁটুতে, গোড়ালিতে আর পায়ের আঙ্গুলে স্পর্শ করে।এবার গভীর ভাবে শ্বাস নিয়ে দুই হাত সামনে সোজা করে ঊর্ধ্বাঙ্গকে সামনের দিকে ঝুঁকিয়ে নিন এবং হাতের আঙ্গুল দিয়ে মেঝে স্পর্শ করার চেষ্টা করুন। যতক্ষণ পারেন স্বাভাবিক শ্বাসপ্রশ্বাসের সাথে এই আসন ধরে রাখুন। এই আসন প্রতিদিন প্র্যাকটিস করার মাধ্যমে আপনার মাথায় আর শরীরের ঊর্ধ্বাংশে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়।এতে মাথার ত্বক পর্যাপ্ত পুষ্টি পায় ও এর সাথে সাথে চুল পড়া কমে যায়। বেশি ভালো হয় যদি মাথায় তেল ম্যাসাজ করার আগে এই আসন প্র্যাকটিস করেন তাহলে।

৫) পঞ্চম আসন

দুই পা টানটান করে মেঝেতে পিঠের উপরে শুয়ে পড়ুন। এবার আপনার দুই পা একসাথে মেঝে থেকে ৯০ডিগ্রিতে মেঝের সাথে রেখে হাঁটুর উপর ভর দিয়ে এবার হাতের তালু দিয়ে পায়ের গোড়ালি ধরে ভারসম্য বজায় রেখে আপনার ঊর্ধ্বাঙ্গ হাঁটুর কাছাকাছি নিয়ে যান, যাতে করে আপনার চিবুক আপনার বুক স্পর্শ করে। আপনার চোখ এই আসনে আপনার পায়ের আঙ্গুল দেখতে পাবে। আপনার শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকবে। পাঁচ পর্যন্ত গুনে এই আসন থেকে সরে আসুন। এরপর আবার ধীরে ধীরে আগের মত পিঠের উপর শুয়ে পড়ুন। এভাবে আবার পুরো প্রক্রিয়া রিপিট করুন। আসন শেষে ‘শবাসনে’ বিশ্রাম নিন। এই আসনটি আপনার সারা দেহে রক্ত সঞ্চালণ বৃদ্ধি করতে ভূমিকা রাখে বিধায় আপনার মাথার ত্বক রক্তের মাধ্যমে অতিরিক্ত পুষ্টি পায় ও স্বাভাবিক ভাবে বাড়তে পারে। নিয়মিত প্র্যাকটিসে আপনার চুলের বৃদ্ধির হার বাড়বে।

ঘাড়ের ব্যায়াম-১

চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম (৫টি যোগব্যায়াম) নিয়মিত প্রাকটিসের পর এই ঘাড়ের ব্যায়ামগুলো আপনার যোগের কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে। প্রথমটি আমরা সবাই জানি। ধীরে ধীরে আপনার মাথা সামনে ঝুঁকিয়ে বুকের সাথে চিবুক লাগান আবার ধীরে ধীরে পেছনে নিয়ে গলা যত পারেন টানটান করুন।

ঘাড়ের ব্যায়াম-২

প্রথম ঘাড়ের ব্যায়াম এরপর ২য় ধাপে আপনার ঘাড় কাঁধের দিকে ঝুঁকান এবং ছবির মত করে যেদিকে ঝুকাচ্ছেন সেদিকের হাত দিয়ে ঘাড় কাঁধের যত কাছাকাছি পারেন ধরে রাখুন।পাঁচ পর্যন্ত গুনে আসন ছেড়ে দিন এবং অন্য কাঁধে ঘাড় ঝুঁকান।

আপনি যদি চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম প্র্যাকটিস নিয়মিত করেন তবে আপনার মাথার ত্বক ভেতর থেকে পুষ্টি পাবে এবং আপনি পাবেন এক মাথা ঘন কালো চুল। তবে আর দেরি কেন? যারা চুল পড়া বা রুক্ষ, পুষ্টিহীন চুলের সমস্যায় ভুগছেন তারা আজ থেকেই রেগুলার চুলের বৃদ্ধিতে যোগ ব্যায়াম করা শুরু করুন।

 shajgoj.com

 

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০,০১৯১১৪৯০৫০৫

Design & Developed BY ThemesBazar.Com