গায়ে আগুন দিয়ে ইরানি নারী ফুটবল ভক্তের আত্মহত্যা

ইরানি নারী ফুটবল ভক্ত সাহার খোদায়ারি (২৯) খেলা দেখতে স্টেডিয়ামে প্রবেশের চেষ্টা করেছিলেন পুরুষের বেশে। আইন না থাকায় তাকে জেলে ঢোকাতে ‘সঠিকভাবে হিজাব পরেননি’ অভিযোগ আনা হয়েছে! এই আধুনিক যুগে মানুষ যখন মঙ্গলগ্রহে আবাস স্থাপনের চেষ্টা করছে, সেখানে এমন পশ্চাতপদ কিছু চিন্তা করাটাই কঠিন।

২৯ বছর বয়সী প্রতিবাদী সেই মেয়েটির নাম সারা। কিন্তু এই ঘটনার পর সারাকে ইরানে ‘দ্য ব্লু গার্ল’ ডাকা হচ্ছে। কারণ তাঁর প্রিয় দল ছিল তেহরানের এস্তেঘলাল ফুটবল ক্লাব। এ ক্লাবের নীল রঙ্গের সঙ্গে মিল রেখেই এই ফুটবল ভক্তকে ডাকা হচ্ছে ‘নীল কন্যা’ বলে। গত ১২ মার্চ সংযুক্ত আরব আমিরাতের আল আইন ক্লাবের সঙ্গে ম্যাচ ছিল এস্তেঘলালের। মহাদেশিয় পর্যায়ের এ খেলা দেখার জন্য আজাদি স্টেডিয়ামে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু সরকার নিযুক্ত মরালিটি পুলিশ তাঁকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর তাকে কারচাক জেলে পাঠানো হয়।

সারা বোন গণমাধ্যমকে জানান, ‘বাইপোলার মুড ডিজঅর্ডার’ নামের এক জটিল মানসিক অবস্থার শিকার হয়েছিলেন সারা। জেলে থাকায় তার ওই রোগের আরও অবনতি হয়। এক পর্যায়ে আইনী লড়াই শেষে জামিনে বের হন সারা। গত ১ সেপ্টেম্বর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তাঁর জব্দ মোবাইল ফেরত নিতে গিয়ে সারা জানতে পারেন, শাস্তি এখনো শেষ হয়নি। আবার ছয় মাসের জন্য জেলে যেতে হবে তাঁকে। এ কথা শুনে ক্ষুব্ধ সারা কোর্ট হাউসের সামনে গায়ে তেল ঢেলে গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন।

দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সর্বোচ্চ চেষ্টা করেও সারাকে বাঁচাতে পারেননি ডাক্তাররা। কারণ সারার দেহের ৯০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। ডাক্তারদের লড়াই ব্যর্থ করে দিয়ে আজ মঙ্গলবার সারা পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। তার এই আত্মবলিদানের পর শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় উঠেছে ইরানে। কিছুদিন আগেই ফিফা ইরানকে অক্টোবর পর্যন্ত সময় দিয়েছে মাঠে নারী দর্শকদের আগমন নিশ্চিত করার। এরপর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে মেয়েরা খেলা দেখতে পারবে মর্মে ঘোষণা দিয়েছেন ইরানের ক্রীড়ামন্ত্রী। কিন্তু কথিত ‘মরাল পুলিশ’ কোনো কিছুরই তোয়াক্কা করছেন না।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ” নীরব “

» পাপিয়াকাণ্ডে নেতৃত্ব হারাচ্ছেন কি নাজমা-অপু?

» পাপিয়ার ঘটনাই শেষ নয়, আরও ১৫৩ অপকর্মকারীর তালিকা শেখ হাসিনার হাতে!

» কামরাঙ্গীর চর আলিনগর এলাকায় প্লাস্টিকের কারখানায় আগুন নিয়ন্ত্রনে

» অন্য এক প্রিয়ম

» এমপি-মেয়র দ্বন্দ্ব ময়লা আবর্জনায় ভাসছে মাইজদী শহর

» ‘ভোট দিছি না হের লাইগা ভাতা পাই না’

» দাম বাড়লো স্মারক স্বর্ণ মুদ্রার

» পিলখানা ট্র্যাজেডি দিবস আজ

» পাল্টে যাচ্ছে বারিধারার পার্ক রোডের নাম

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

গায়ে আগুন দিয়ে ইরানি নারী ফুটবল ভক্তের আত্মহত্যা

ইরানি নারী ফুটবল ভক্ত সাহার খোদায়ারি (২৯) খেলা দেখতে স্টেডিয়ামে প্রবেশের চেষ্টা করেছিলেন পুরুষের বেশে। আইন না থাকায় তাকে জেলে ঢোকাতে ‘সঠিকভাবে হিজাব পরেননি’ অভিযোগ আনা হয়েছে! এই আধুনিক যুগে মানুষ যখন মঙ্গলগ্রহে আবাস স্থাপনের চেষ্টা করছে, সেখানে এমন পশ্চাতপদ কিছু চিন্তা করাটাই কঠিন।

২৯ বছর বয়সী প্রতিবাদী সেই মেয়েটির নাম সারা। কিন্তু এই ঘটনার পর সারাকে ইরানে ‘দ্য ব্লু গার্ল’ ডাকা হচ্ছে। কারণ তাঁর প্রিয় দল ছিল তেহরানের এস্তেঘলাল ফুটবল ক্লাব। এ ক্লাবের নীল রঙ্গের সঙ্গে মিল রেখেই এই ফুটবল ভক্তকে ডাকা হচ্ছে ‘নীল কন্যা’ বলে। গত ১২ মার্চ সংযুক্ত আরব আমিরাতের আল আইন ক্লাবের সঙ্গে ম্যাচ ছিল এস্তেঘলালের। মহাদেশিয় পর্যায়ের এ খেলা দেখার জন্য আজাদি স্টেডিয়ামে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু সরকার নিযুক্ত মরালিটি পুলিশ তাঁকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর তাকে কারচাক জেলে পাঠানো হয়।

সারা বোন গণমাধ্যমকে জানান, ‘বাইপোলার মুড ডিজঅর্ডার’ নামের এক জটিল মানসিক অবস্থার শিকার হয়েছিলেন সারা। জেলে থাকায় তার ওই রোগের আরও অবনতি হয়। এক পর্যায়ে আইনী লড়াই শেষে জামিনে বের হন সারা। গত ১ সেপ্টেম্বর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তাঁর জব্দ মোবাইল ফেরত নিতে গিয়ে সারা জানতে পারেন, শাস্তি এখনো শেষ হয়নি। আবার ছয় মাসের জন্য জেলে যেতে হবে তাঁকে। এ কথা শুনে ক্ষুব্ধ সারা কোর্ট হাউসের সামনে গায়ে তেল ঢেলে গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন।

দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সর্বোচ্চ চেষ্টা করেও সারাকে বাঁচাতে পারেননি ডাক্তাররা। কারণ সারার দেহের ৯০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। ডাক্তারদের লড়াই ব্যর্থ করে দিয়ে আজ মঙ্গলবার সারা পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। তার এই আত্মবলিদানের পর শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় উঠেছে ইরানে। কিছুদিন আগেই ফিফা ইরানকে অক্টোবর পর্যন্ত সময় দিয়েছে মাঠে নারী দর্শকদের আগমন নিশ্চিত করার। এরপর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে মেয়েরা খেলা দেখতে পারবে মর্মে ঘোষণা দিয়েছেন ইরানের ক্রীড়ামন্ত্রী। কিন্তু কথিত ‘মরাল পুলিশ’ কোনো কিছুরই তোয়াক্কা করছেন না।

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন:ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com