কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের পিয়ন এখন ডাক্তার!

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার লগ্নসার গ্রামের মো. শামছুল হক। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একজন অবসরপ্রাপ্ত পিয়ন। ২০০৮ সালে পেশার অবসান ঘটিয়ে অবসরে যান। এরপর নিজ এলাকায় চন্ডিমুড়া বাজারে হক মেডিকেল নামে একটা ফার্মেসি খুলে বসেন। ফার্মেসি খুলে সেখানে তিনি নিয়মিত ডাক্তার সেজে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন আশপাশের মানুষের।

নিজেকে পল্লী চিকিৎসক দাবি করে নিয়মিত মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছেন শামছুল হক। যদিও তার কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি শামছুল হক।

তার ফার্মেসিতে গিয়ে দেখা গেছে, যেকোনো রোগী দেখে পরীক্ষা নীরিক্ষা ছাড়াই প্রেসক্রিপশন লিখছেন এমবিবিএস ডাক্তারের মতো। সেই প্রেসক্রিপশনে এন্টিবায়োটিকসহ এখতিয়ার বহির্ভূত ঔষধও লিখছেন শামছুল হক।

এ এলাকার অধিকাংশ মানুষ নিরক্ষর হওয়ায় ব্যবসার ফন্দিটা ভালোই এঁকেছেন শামছুল হক। বিএমডিসি আইন ২০১০ অনুযায়ী এমবিবিএস পাশ ছাড়া কেউ নামের আগে ডাক্তার লিখতে না পারলেও, শামছুল হক তার পুরো ফার্মেসি জুড়ে নামের আগে ডাক্তার লিখে রঙ-বেরঙের ডিজাইন করে রেখেছেন। শুধু তাই নয়, তার লিখিত একটি প্রেসক্রিপশন অনুসন্ধানী টিমের হাতে আসে। সেখানে তিনি নামের আগে ডাক্তার তো লিখেছেনই নামের ঠিক নিচেই লিখে দিয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

যা দেখে সাধারণ মানুষেরা বুঝতেই পারছে না তিনি ডাক্তার নয় একজন পিয়নই ছিলেন কেবল। একজন অবসরপ্রাপ্ত পিয়নের নামের আগে ডাক্তার এবং চিকিৎসা দেওয়ার বিধান আছে কিনা জানতে চাইলে শামছুল হক সাংবাদিকদের উপর চড়াও হয়ে বলেন, আমি আমার জায়গায় ঠিক আছি, আপনার যা পারেন লিখেন।

এই বিষয়ে কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান বলেন, তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» বিজয় মানে ১৬ই ডিসেম্বর

» বাঙ্গালী জাতির জন্য বানিয়াচঙ্গ উপজেলাবাসী জন্য এক কলঙ্কজনক অধ্যায় বানিয়াচঙ্গ পল্লী বিদ্যুৎ অফিস :: স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ

» চলচ্চিত্রে মুক্তিযুদ্ধ

» বরগুনায় গণপূর্তের জমিতে দরপত্র ছাড়াই পৌরসভার সড়ক নির্মাণ

» উঠে আসছে না নতুন নেতৃত্ব কেন্দ্রে কর্তৃত্ব হারাচ্ছে সিলেট আওয়ামী লীগ

» মুক্তিযুদ্ধের অবিস্মরণীয় স্মৃতি

» মহান বিজয় দিবস আজ

» বিজয়ের স্মৃতি ও বঙ্গবন্ধু

» টানটান উত্তেজনা আওয়ামী লীগে

» ‘মুজিববর্ষে’ বাজারে আসছে ২০০ টাকার নোট

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের পিয়ন এখন ডাক্তার!

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার লগ্নসার গ্রামের মো. শামছুল হক। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একজন অবসরপ্রাপ্ত পিয়ন। ২০০৮ সালে পেশার অবসান ঘটিয়ে অবসরে যান। এরপর নিজ এলাকায় চন্ডিমুড়া বাজারে হক মেডিকেল নামে একটা ফার্মেসি খুলে বসেন। ফার্মেসি খুলে সেখানে তিনি নিয়মিত ডাক্তার সেজে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন আশপাশের মানুষের।

নিজেকে পল্লী চিকিৎসক দাবি করে নিয়মিত মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছেন শামছুল হক। যদিও তার কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি শামছুল হক।

তার ফার্মেসিতে গিয়ে দেখা গেছে, যেকোনো রোগী দেখে পরীক্ষা নীরিক্ষা ছাড়াই প্রেসক্রিপশন লিখছেন এমবিবিএস ডাক্তারের মতো। সেই প্রেসক্রিপশনে এন্টিবায়োটিকসহ এখতিয়ার বহির্ভূত ঔষধও লিখছেন শামছুল হক।

এ এলাকার অধিকাংশ মানুষ নিরক্ষর হওয়ায় ব্যবসার ফন্দিটা ভালোই এঁকেছেন শামছুল হক। বিএমডিসি আইন ২০১০ অনুযায়ী এমবিবিএস পাশ ছাড়া কেউ নামের আগে ডাক্তার লিখতে না পারলেও, শামছুল হক তার পুরো ফার্মেসি জুড়ে নামের আগে ডাক্তার লিখে রঙ-বেরঙের ডিজাইন করে রেখেছেন। শুধু তাই নয়, তার লিখিত একটি প্রেসক্রিপশন অনুসন্ধানী টিমের হাতে আসে। সেখানে তিনি নামের আগে ডাক্তার তো লিখেছেনই নামের ঠিক নিচেই লিখে দিয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

যা দেখে সাধারণ মানুষেরা বুঝতেই পারছে না তিনি ডাক্তার নয় একজন পিয়নই ছিলেন কেবল। একজন অবসরপ্রাপ্ত পিয়নের নামের আগে ডাক্তার এবং চিকিৎসা দেওয়ার বিধান আছে কিনা জানতে চাইলে শামছুল হক সাংবাদিকদের উপর চড়াও হয়ে বলেন, আমি আমার জায়গায় ঠিক আছি, আপনার যা পারেন লিখেন।

এই বিষয়ে কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান বলেন, তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com