এখনকার নায়িকারা রাতে বাড়িই ফিরছে না: ইলোরা গহর

ইলোরা গহর। শিশুশিল্পী হিসেবে আশির দশক শুরুর দিকে অভিনয় জীবন শুরু করেন। চলচ্চিত্রে প্রথম সিনেমায় পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এরপর ছোট পর্দায় অভিনয় করেন দাপটের সাথে। দীর্ঘদিনের ক্যারিয়ারে অভিনয় দিয়ে দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

সময়ের সাথে সাথে তাকে খুব একটা দেখা যায় পর্দায়। তবে বিভিন্ন প্রোগ্রামে দেখা মিলে তার। সম্প্রতি ইলোরা গহর একটি ইউটিউব চ্যানেলে সাক্ষাতকার দিতে দেখা গেছে। সেখানে তিনি সমসাময়িক ও বর্তমান ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা নিয়ে কথা বলেছেন। কথা বলেছেন এ সময়কার অভিনেত্রীদেরও নিয়ে।

তিনি বলেন, আমি খুব স্পষ্টভাষী মানুষ। আমাদের সময় থেকে শুরু করে বর্তমান সময় পর্যন্ত ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা আমি জানি। আমাকে যেকোনো প্রশ্ন করলেই উত্তর দেব।

উপস্থাপকের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আলোচনায় আসার জন্য আমাদের সময়ের শিল্পীরা কোনো কিছুই করিনি। আমিও আমার মতো ছিলাম, কাজের মধ্য দিয়েই আমরা নাম কামিয়েছি। তাছাড়া আমার বাবা একজন খ্যাতিমান গীতিকার। তাকে কেউ ভাঙতে পারেনি। আমি ফেসবুক লাইভে আসি কিছু নির্দিষ্ট কারণে। আমার ৭০টা ক্যানসার রোগী আছে, ৪০টা কোষ্ঠ্য রোগী আছে, কিছু কিডনি রোগী আছে; আমি তাদেরকে সাপোর্ট দেই। তাদের কারণে ফেসবুকে লাইভে আসি।

নিজের পোশাক-আশাক নিয়ে ইলোরা গহর বলেন, আমি শর্টস পরি, স্কার্ট পরি; এগুলো শো-অফের জন্য না। এগুলো পরতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ হয় তাই পরি। কাউকে দেখানোর জন্য বা বোল্ডনেসের জন্য পরি না।

বর্তমান সময়ের অভিনেত্রীদের ইঙ্গিত করে ইলোরা গহর বলেন, এখনকার অভিনেত্রীরা রাতে বাড়িই ফিরেন না। মানে তারা বাড়িই ফিরে না। আমি সেটাই করি। আমিও তো কত রাত পর্যন্ত পার্টি করেছি। কিন্তু সবাই জানতো, ইলোরা গহর ড্রিংস খায় না, ধুমপান করে না। আজকাল মেয়েরা সব করে। অনুষ্ঠানে এসেই সিগারেট ধরায়।

পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জাতীয় উন্নয়ন আরও ত্বরান্বিত করতে আহ্বান রাষ্ট্রপতির

» বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ‘কঠিন চীবর দান’ উৎসব আজ

» ভারতে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে নিষিদ্ধ হল মোবাইল

» রাবি শিক্ষার্থীর ওপর দুর্বৃত্তদের হামলা, প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ

» মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সীমিত বলেই নৃশংস ঘটনা ঘটছে

» নতুন মিশনে পপি

» নিষিদ্ধ জালে মাছ শিকার

» শাপলার বিকি বিল

» জুড়ীর গৌরীপুর সড়কের কাজে অনিয়মের অভিযোগ

» কুলাউড়া সদর ইউনিয়ন দেড় যুগেও চালু হয়নি নিজস্ব ভবন

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

এখনকার নায়িকারা রাতে বাড়িই ফিরছে না: ইলোরা গহর

ইলোরা গহর। শিশুশিল্পী হিসেবে আশির দশক শুরুর দিকে অভিনয় জীবন শুরু করেন। চলচ্চিত্রে প্রথম সিনেমায় পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এরপর ছোট পর্দায় অভিনয় করেন দাপটের সাথে। দীর্ঘদিনের ক্যারিয়ারে অভিনয় দিয়ে দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি।

সময়ের সাথে সাথে তাকে খুব একটা দেখা যায় পর্দায়। তবে বিভিন্ন প্রোগ্রামে দেখা মিলে তার। সম্প্রতি ইলোরা গহর একটি ইউটিউব চ্যানেলে সাক্ষাতকার দিতে দেখা গেছে। সেখানে তিনি সমসাময়িক ও বর্তমান ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা নিয়ে কথা বলেছেন। কথা বলেছেন এ সময়কার অভিনেত্রীদেরও নিয়ে।

তিনি বলেন, আমি খুব স্পষ্টভাষী মানুষ। আমাদের সময় থেকে শুরু করে বর্তমান সময় পর্যন্ত ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা আমি জানি। আমাকে যেকোনো প্রশ্ন করলেই উত্তর দেব।

উপস্থাপকের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আলোচনায় আসার জন্য আমাদের সময়ের শিল্পীরা কোনো কিছুই করিনি। আমিও আমার মতো ছিলাম, কাজের মধ্য দিয়েই আমরা নাম কামিয়েছি। তাছাড়া আমার বাবা একজন খ্যাতিমান গীতিকার। তাকে কেউ ভাঙতে পারেনি। আমি ফেসবুক লাইভে আসি কিছু নির্দিষ্ট কারণে। আমার ৭০টা ক্যানসার রোগী আছে, ৪০টা কোষ্ঠ্য রোগী আছে, কিছু কিডনি রোগী আছে; আমি তাদেরকে সাপোর্ট দেই। তাদের কারণে ফেসবুকে লাইভে আসি।

নিজের পোশাক-আশাক নিয়ে ইলোরা গহর বলেন, আমি শর্টস পরি, স্কার্ট পরি; এগুলো শো-অফের জন্য না। এগুলো পরতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ হয় তাই পরি। কাউকে দেখানোর জন্য বা বোল্ডনেসের জন্য পরি না।

বর্তমান সময়ের অভিনেত্রীদের ইঙ্গিত করে ইলোরা গহর বলেন, এখনকার অভিনেত্রীরা রাতে বাড়িই ফিরেন না। মানে তারা বাড়িই ফিরে না। আমি সেটাই করি। আমিও তো কত রাত পর্যন্ত পার্টি করেছি। কিন্তু সবাই জানতো, ইলোরা গহর ড্রিংস খায় না, ধুমপান করে না। আজকাল মেয়েরা সব করে। অনুষ্ঠানে এসেই সিগারেট ধরায়।

পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

উপদেষ্টা -মাকসুদা লিসা

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : শেখ মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

 

 

 

 

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com