ইনবক্সে আসুন

আশিকুর রহমান (ছদ্মনাম)। তিনি আইটি এক্সপার্ট। বিদেশ থেকে এসে সার্চ ইঞ্জিন বিষয়ে তার সার্ভিস দেশে দেবেন বলে বিভিন্ন গ্রুপে পোস্ট দেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে একজন তাকে ইনবক্সে যোগাযোগ করে। তাকে বলে তার কিছু সাইট আছে, যেগুলো গুগলের প্রথম পেজে নিয়ে আসতে হবে। তিনি তার বাজেট বলেন। সেই লোক তাকে তার জেলায় যেতে বলে, যেহেতু বাজেট বেশ বড়। সামনা সামনি আলোচনা করে বিষয়টি ফাইনাল করতে চায়। আশিক সরল বিশ্বাসে সেখানে যান। তাকে একটা ফ্ল্যাটের ঠিকানা দিয়ে সেখানে আসতে বলে। তিনি সেই ফ্ল্যাটে যাওয়ার পরপরই তাকে কয়েকজন ধরে ফেলে, চেয়ারের সঙ্গে বেঁধে ফেলে। তার মোবাইল, মানিব্যাগ কেড়ে নেয়। বেশ মারধরও করে। এক্সপার্ট অনেক কাকুতি-মিনতি করেন, বলে ভাই আমার যা আছে নিয়ে নেন, কিন্তু আমাকে ছেড়ে দেন। জানে মারবেন না। তাকে বলল ঠিক আছে, তোকে ছেড়ে দিতে পারি এক শর্তে, আমাদের ৪টা ওয়েবসাইট আছে, এগুলো গুগলের প্রথম পেজে এনে দিবি, সময় মাত্র ২৪ ঘণ্টা, তাহলেই তোকে ছেড়ে দেব। আইটি এক্সপার্ট আশিক পুরাই অবাক। তিনি বললেন, ভাই একটা সাইট গুগলের প্রথম পেজে আনতে গেলে মিনিমাম ৬ মাস লাগবে। একপর্যায়ে তার কাছ থেকে টাকা-পয়সা রেখে বাসে উঠিয়ে দেয়। আইটি বিশেষজ্ঞ ফরমান আলী বলেন, বর্তমান আইসিটি আইন অনেক কঠোর এবং এর একটি ধারা আছে অনলাইন প্রতারণা সংক্রান্ত। কাজেই কেউ যদি ইনবক্সে প্রতারিত হন তবে সবকিছুর প্রমাণসহ আইনের আশ্রয় নেবেন। দেখবেন প্রতারকের খবর হয়ে যাবে। আসলে একটু সাহস করলেই হয়। তিনি বলেন, ইদানীং আরেকটা ইনবক্স প্রতারণা ব্যাপকভাবে শুরু হয়েছে, তা হচ্ছে ডলার কেনাবেচা। এমনকি বড় বড় গ্রুপ তৈরি হয়েছে ডলার প্রতারণা করার জন্য। এদের ফাঁদে একবার যে পড়েছে, তার খবর আছে। কিছুদিন আগে এক ডলার প্রতারক অনেকের সঙ্গে ডলার প্রতারণা করেছে। তার একটা গ্যাং আছে বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে! ডলার বিক্রি বা কেনার জন্য ইনবক্সে ডাকে। ভালো রেট দিতে চায়। এরপর তার এলাকায় যেতে বলে, ফেস টু ফেস লেনদেনের জন্য। আর তার এলাকায় গেলেই খেল খতম। তার গ্রুপ দিয়ে মারধর করে সব টাকা নিয়ে যায়। ভুক্তভোগীর কিছুই করার নেই, কারণ দেশের আইনে এভাবে ডলার কেনাবেচা করা অবৈধ। আরেকটি বিষয় খেয়াল করেছি তা হচ্ছে, ইনবক্স প্রতারকদের ফেসবুক ওয়ালে প্রচুর ধর্মীয় এবং নীতি কথা পোস্ট দেখা যায়। এসব করে মূলত তারা মানুষের বিশ্বাস অর্জন করে। কাজেই এসব দেখলে সাবধান! তিনি বলেন, ইনবক্সে যাওয়ার আহ্বানে সাড়া না দিয়ে, আপনি যা চান তা একটু গুগল করে ঘাঁটাঘাঁটি করুন। দেখবেন আপনি যা যা চান তার সবই ওয়েবে দেওয়া আছে। সহজেই পেয়ে যাবেন। আর আপনার নেটওয়ার্ক বড় করেন। আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট আজেবাজে লোক দিয়ে না ভরে, কিছু এক্সপার্ট আপনার ফ্রেন্ডলিস্টে এড করুন। দেখবেন যা চান তা না চাইতেই পেয়ে যাবেন। তারপর যদি কোনো বিষয়ে জানতে চান তবে বিভিন্ন হেল্প গ্রুপে পোস্ট করুন। সবার মতামত নেন। এরপর সিদ্ধান্ত নেন।বাংলাদেশ প্রতিদিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ইসলামপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে স্মার্টকার্ড বিতরণ

» মুক্তিযোদ্ধারা ভিক্ষা নয় সম্মান চান : খাদ্যমন্ত্রী

» কাল থেকে সচিবালয়ের চারপাশে হর্ন বাজালে এক মাসের জেল

» দৈনিক সংগ্রাম একসময় বিশাল হেডিংয়ে আমার ফাঁসি চেয়েছিল: মেনন

» রাজাকারদের তালিকায় পুরোপুরি সন্তুষ্ট নন কামরুল ইসলাম

» রাজগঞ্জের শাহাপুর সরঃ প্রাথঃ বিদ্যালয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপন

» নেংগুড়াহাট স্কুল এন্ড কলেজে মহান বিজয় দিবস উদযাপন

» বিএনপি জামাত চক্ররা বাংলাদেশের জন্য অশান্তি-ইনু

» বাগেরহাটে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপন

» ইসলামপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস পালিত

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

ইনবক্সে আসুন

আশিকুর রহমান (ছদ্মনাম)। তিনি আইটি এক্সপার্ট। বিদেশ থেকে এসে সার্চ ইঞ্জিন বিষয়ে তার সার্ভিস দেশে দেবেন বলে বিভিন্ন গ্রুপে পোস্ট দেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে একজন তাকে ইনবক্সে যোগাযোগ করে। তাকে বলে তার কিছু সাইট আছে, যেগুলো গুগলের প্রথম পেজে নিয়ে আসতে হবে। তিনি তার বাজেট বলেন। সেই লোক তাকে তার জেলায় যেতে বলে, যেহেতু বাজেট বেশ বড়। সামনা সামনি আলোচনা করে বিষয়টি ফাইনাল করতে চায়। আশিক সরল বিশ্বাসে সেখানে যান। তাকে একটা ফ্ল্যাটের ঠিকানা দিয়ে সেখানে আসতে বলে। তিনি সেই ফ্ল্যাটে যাওয়ার পরপরই তাকে কয়েকজন ধরে ফেলে, চেয়ারের সঙ্গে বেঁধে ফেলে। তার মোবাইল, মানিব্যাগ কেড়ে নেয়। বেশ মারধরও করে। এক্সপার্ট অনেক কাকুতি-মিনতি করেন, বলে ভাই আমার যা আছে নিয়ে নেন, কিন্তু আমাকে ছেড়ে দেন। জানে মারবেন না। তাকে বলল ঠিক আছে, তোকে ছেড়ে দিতে পারি এক শর্তে, আমাদের ৪টা ওয়েবসাইট আছে, এগুলো গুগলের প্রথম পেজে এনে দিবি, সময় মাত্র ২৪ ঘণ্টা, তাহলেই তোকে ছেড়ে দেব। আইটি এক্সপার্ট আশিক পুরাই অবাক। তিনি বললেন, ভাই একটা সাইট গুগলের প্রথম পেজে আনতে গেলে মিনিমাম ৬ মাস লাগবে। একপর্যায়ে তার কাছ থেকে টাকা-পয়সা রেখে বাসে উঠিয়ে দেয়। আইটি বিশেষজ্ঞ ফরমান আলী বলেন, বর্তমান আইসিটি আইন অনেক কঠোর এবং এর একটি ধারা আছে অনলাইন প্রতারণা সংক্রান্ত। কাজেই কেউ যদি ইনবক্সে প্রতারিত হন তবে সবকিছুর প্রমাণসহ আইনের আশ্রয় নেবেন। দেখবেন প্রতারকের খবর হয়ে যাবে। আসলে একটু সাহস করলেই হয়। তিনি বলেন, ইদানীং আরেকটা ইনবক্স প্রতারণা ব্যাপকভাবে শুরু হয়েছে, তা হচ্ছে ডলার কেনাবেচা। এমনকি বড় বড় গ্রুপ তৈরি হয়েছে ডলার প্রতারণা করার জন্য। এদের ফাঁদে একবার যে পড়েছে, তার খবর আছে। কিছুদিন আগে এক ডলার প্রতারক অনেকের সঙ্গে ডলার প্রতারণা করেছে। তার একটা গ্যাং আছে বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে! ডলার বিক্রি বা কেনার জন্য ইনবক্সে ডাকে। ভালো রেট দিতে চায়। এরপর তার এলাকায় যেতে বলে, ফেস টু ফেস লেনদেনের জন্য। আর তার এলাকায় গেলেই খেল খতম। তার গ্রুপ দিয়ে মারধর করে সব টাকা নিয়ে যায়। ভুক্তভোগীর কিছুই করার নেই, কারণ দেশের আইনে এভাবে ডলার কেনাবেচা করা অবৈধ। আরেকটি বিষয় খেয়াল করেছি তা হচ্ছে, ইনবক্স প্রতারকদের ফেসবুক ওয়ালে প্রচুর ধর্মীয় এবং নীতি কথা পোস্ট দেখা যায়। এসব করে মূলত তারা মানুষের বিশ্বাস অর্জন করে। কাজেই এসব দেখলে সাবধান! তিনি বলেন, ইনবক্সে যাওয়ার আহ্বানে সাড়া না দিয়ে, আপনি যা চান তা একটু গুগল করে ঘাঁটাঘাঁটি করুন। দেখবেন আপনি যা যা চান তার সবই ওয়েবে দেওয়া আছে। সহজেই পেয়ে যাবেন। আর আপনার নেটওয়ার্ক বড় করেন। আপনার ফ্রেন্ডলিস্ট আজেবাজে লোক দিয়ে না ভরে, কিছু এক্সপার্ট আপনার ফ্রেন্ডলিস্টে এড করুন। দেখবেন যা চান তা না চাইতেই পেয়ে যাবেন। তারপর যদি কোনো বিষয়ে জানতে চান তবে বিভিন্ন হেল্প গ্রুপে পোস্ট করুন। সবার মতামত নেন। এরপর সিদ্ধান্ত নেন।বাংলাদেশ প্রতিদিন

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com