অনলাইনে জমে উঠেছে পশুর হাট

ঈদুল আযহার বেশ কয়েকদিন রয়েছে। এখনও গরুর হাট বসেনি। কিন্তু তাতে কী! এরই মধ্যে অনলাইনে জমে উঠছে পশুর হাট। কোরবানির আগে যানজট-জনজট, দালালদের খপ্পর, ছিনতাই, জাল টাকা সহ ইত্যাদি ঝামেলায় পড়তে হয় ক্রেতাকে। তাই ঝক্কিঝামেলা এড়াতে দেশে এবং দেশের বাইরে থেকেও ক্রেতারা ভিড় করছেন ভার্চুয়াল কোরবানির হাটে।

অনলাইনে পশুর হাটে বিক্রির সাথে জড়িতরা বলেছেন, প্রতি বছরই অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রির সংখ্যা বাড়ছে। যারা হাটে গিয়ে দরদাম করে কোরবানির পশু কেনার ঝক্কিঝামেলা পোহাতে চান না তারা অনলাইনে কেনেন। এছাড়া প্রবাসীরাও এখন অনলাইনে পশু কেনার দিকে ঝুঁকছেন। বিদেশে বসেই তার কোরবানির পশু দেখে কিনতে পারছেন।

প্রতিবারের ন্যায় এ বছরও অনলাইনে পশুর হাটের পাশাপাশি মিলছে কসাইও।

অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রি করছে- সাদেক এগ্রো, আমারদেশ ই-শপ, বিক্রয় ডটকম, বেঙ্গল মিট, ক্লিকবিডি ডটকম, কেইমু ডটকম, বগডুম ডটকম সহ আরও কয়েকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান। এছাড়া পেশাদার অনলাইন বাজারগুলোর পাশাপাশি ঈদকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি কোরবানির হাট।

অনলাইনে গবাদিপশু কেনাবেচার জনপ্রিয় মাধ্যম বিক্রয় ডটকম এবং মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেড এবারের ঈদুল আজহা উপলক্ষে তৃতীয়বারের মতো নিয়ে এসেছে কোরবানি ক্যাম্পেইন ‘বিক্রয় বিরাট হাট পাওয়ার্ড বাই মিনিস্টার’। ২২ জুলাই থেকে শুরু হওয়া এ ক্যাম্পেইন চলবে ঈদের আগের রাত পর্যন্ত।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, বর্তমানে বাস্তবের হাটের তুলনায় অনলাইনে বিক্রির পরিমাণ খুব বেশি না হলেও প্রতিবছর ক্রেতার সংখ্যা বাড়ছে। সেই সঙ্গে এসব সাইটে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে কৌতূহলী ভিজিটরের সংখ্যা।

সাইটগুলো ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন জাতের গরু ও ছাগল রয়েছে। তবে দেশি গরুর প্রাধান্যই বেশি। গরুর দাম ৬৫ হাজার থেকে শুরু করে কয়েক লাখ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া ছাগলের দাম ১৫ হাজার টাকা থেকে শুরু হয়েছে। ঈদের কত দিন আগে বাসায় গরু নিতে চান, তা নির্ধারণ করার সুযোগও আছে। রাজধানী ঢাকার পাশাপাশি সিলেট ও চট্টগ্রামেও পৌঁছে যাবে পছন্দের গরু-ছাগল।

এবার পশুর বাজারে বিক্রয় গ্রাহক ও মেম্বার উভয় পক্ষের জন্যই আয়োজন করেছে বিরাট হাট কন্টেস্টের। প্রতিযোগীরা এ অনলাইন কন্টেস্টে অংশ নিয়ে পাবেন মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেডের পক্ষ থেকে সর্বমোট ৬ লাখ মূল্যমানের আকর্ষণীয় হোম অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স অ্যাপ্লায়েন্স জিতে নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

অনলাইনে গরুর ক্রেতা ও ঢাকা যাত্রাবাড়ির বাসিন্দা আমিনুল ইসলাম শাহিন বলেন, ভিড় ঠেলে কাঁদা মাড়িয়ে কোরবানির হাটে গিয়ে পশু কিনতে ভোগান্তি পোহাতে হয়। গত বছর অনলাইনের মধ্যেমে পশু খুব স্বাচ্ছন্দে কোরবানির গরু কিনেছিলাম। এবারও একইভাবে পশু কেনার পরিকল্পনা রয়েছে।

ঢাকা সাভারের গরু ব্যবসায়ী সেলিম ব্যাপারি জানান, গরুর হাটে সাধারণ পশুগুলোকে উঁচুতে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। এ কারণে ছোট গরুও অনেক বড় দেখায়। কিন্তু ফার্মে এ সুযোগ নেই। আমাদের একটি ঠিকানা আছে। অনলাইনে বিজ্ঞাপন দেখে ক্রেতারা সরাসরি ফার্মে চলে আসেন। কিন্তু হাট থেকে একবার গরু কিনে নেয়ার পর বিক্রেতাদের আর খুঁজে পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। ক্রেতা জানবেও না যে গরুটিকে কী খাওয়ানো হয়েছে। কিন্তু কেউ ফার্মে গরু কিনতে আসলে তিনি দেখতে পারেন গরুকে কী খাওয়ানো হচ্ছে। তিনি আরও জানান, কেউ আগেভাগে সাশ্রয়ী মূল্যে গরু কিনে আমাদের ফার্মে রাখতে পারে। চাইলে ওই ক্রেতাকে কুরবানির আগে ডেলিভারি দেয়া হয়। একটি ষাঁড় বিক্রির জন্যে ছবিসহ পোস্ট দিয়েছেন। গরুটির দাম চাওয়া হয়েছে ১০ লাখ টাকা।

মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেডের হেড অব ব্র্যান্ড অ্যান্ড কমিউনিকেশনস কেএমজি কিবরিয়া বলেন, গত বছরের চেয়ে আসন্ন কোরবানিতে আমরা গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রচুর সাড়া পেয়েছি। গ্রাহকদের জন্য বেশিসংখ্যক কোরবানির পশু নিয়ে এসেছি। গ্রহকের চাহিদা বৃদ্ধির পাশাপাশি আমাদের সেবার মান উন্নত করতে সচেষ্ট থাকি। গ্রাহক ছাড়াও আমাদের প্লাটফর্ম থেকে হাজার হাজার বিক্রেতা উপকৃত হয়ে থাকে।

রুপাসদি গ্রীন এগ্রো ফার্মের পরিচালক নাসিম বর্ণ বলেন, আমাদের মূল লক্ষ্যে ভেজালমুক্ত সম্পূর্ণ অর্গানিক পশু প্রস্তুত করা। এতে হয়তো আমাদের ব্যবসায় লাভ কম হবে, তবুও মানুষ যেন ভালো পশুটি কোরবানি দেয়। কোরবানি উপলক্ষ্যে আমাদের খামারে রয়েছে প্রায় ২০টির মতো সম্পূর্ণ দেশি গরু।

বিদেশে পড়াশোনা করে দেশে এসেছে কয়েকজন বন্ধুদের নিয়ে তিনি গড়ে তোলেন এই ফার্ম। এক বছরের ব্যবধানে এখন সে গ্রামেই ৬টি খামার গড়ে উঠেছে।

অনলাইনে রুপাসদি গ্রীন এগ্রোর তথ্য পেতে: https://www.facebook.com/rupasdi.greenagro

পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ৫০ টাকার নতুন নোট আসছে

» বেনাপোলে ভুয়া ফটো সাংবাদিক আটক

» লাখ টাকার জালনোটসহ দক্ষিণখানে আটক ৩

» আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে গুঞ্জন, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের না অন্য কেউ

» আওয়ামী লীগে গ্রিন সিগন্যালের অপেক্ষা, বিএনপির আলোচনায় কয়েকজন

» যে কারণে লাল কাপড়েই মোড়ানো হয় বিরিয়ানির হাঁড়ি

» ৫ লাখ টাকা চাঁদা না দেওয়ায় বিকাশ এজেন্টের উপর যুবলীগের হামলা

» পরিত্যক্ত প্ল্যাস্টিকে লাল-সবুজের বাংলাদেশ

» ‘আমার হাত কতটুকু লম্বা তোরা কেন প্রধানমন্ত্রীও জানেন না’

» নতুন পথে

উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
পরীক্ষামূলক প্রচার...
,

অনলাইনে জমে উঠেছে পশুর হাট

ঈদুল আযহার বেশ কয়েকদিন রয়েছে। এখনও গরুর হাট বসেনি। কিন্তু তাতে কী! এরই মধ্যে অনলাইনে জমে উঠছে পশুর হাট। কোরবানির আগে যানজট-জনজট, দালালদের খপ্পর, ছিনতাই, জাল টাকা সহ ইত্যাদি ঝামেলায় পড়তে হয় ক্রেতাকে। তাই ঝক্কিঝামেলা এড়াতে দেশে এবং দেশের বাইরে থেকেও ক্রেতারা ভিড় করছেন ভার্চুয়াল কোরবানির হাটে।

অনলাইনে পশুর হাটে বিক্রির সাথে জড়িতরা বলেছেন, প্রতি বছরই অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রির সংখ্যা বাড়ছে। যারা হাটে গিয়ে দরদাম করে কোরবানির পশু কেনার ঝক্কিঝামেলা পোহাতে চান না তারা অনলাইনে কেনেন। এছাড়া প্রবাসীরাও এখন অনলাইনে পশু কেনার দিকে ঝুঁকছেন। বিদেশে বসেই তার কোরবানির পশু দেখে কিনতে পারছেন।

প্রতিবারের ন্যায় এ বছরও অনলাইনে পশুর হাটের পাশাপাশি মিলছে কসাইও।

অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রি করছে- সাদেক এগ্রো, আমারদেশ ই-শপ, বিক্রয় ডটকম, বেঙ্গল মিট, ক্লিকবিডি ডটকম, কেইমু ডটকম, বগডুম ডটকম সহ আরও কয়েকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান। এছাড়া পেশাদার অনলাইন বাজারগুলোর পাশাপাশি ঈদকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি কোরবানির হাট।

অনলাইনে গবাদিপশু কেনাবেচার জনপ্রিয় মাধ্যম বিক্রয় ডটকম এবং মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেড এবারের ঈদুল আজহা উপলক্ষে তৃতীয়বারের মতো নিয়ে এসেছে কোরবানি ক্যাম্পেইন ‘বিক্রয় বিরাট হাট পাওয়ার্ড বাই মিনিস্টার’। ২২ জুলাই থেকে শুরু হওয়া এ ক্যাম্পেইন চলবে ঈদের আগের রাত পর্যন্ত।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, বর্তমানে বাস্তবের হাটের তুলনায় অনলাইনে বিক্রির পরিমাণ খুব বেশি না হলেও প্রতিবছর ক্রেতার সংখ্যা বাড়ছে। সেই সঙ্গে এসব সাইটে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে কৌতূহলী ভিজিটরের সংখ্যা।

সাইটগুলো ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন জাতের গরু ও ছাগল রয়েছে। তবে দেশি গরুর প্রাধান্যই বেশি। গরুর দাম ৬৫ হাজার থেকে শুরু করে কয়েক লাখ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া ছাগলের দাম ১৫ হাজার টাকা থেকে শুরু হয়েছে। ঈদের কত দিন আগে বাসায় গরু নিতে চান, তা নির্ধারণ করার সুযোগও আছে। রাজধানী ঢাকার পাশাপাশি সিলেট ও চট্টগ্রামেও পৌঁছে যাবে পছন্দের গরু-ছাগল।

এবার পশুর বাজারে বিক্রয় গ্রাহক ও মেম্বার উভয় পক্ষের জন্যই আয়োজন করেছে বিরাট হাট কন্টেস্টের। প্রতিযোগীরা এ অনলাইন কন্টেস্টে অংশ নিয়ে পাবেন মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেডের পক্ষ থেকে সর্বমোট ৬ লাখ মূল্যমানের আকর্ষণীয় হোম অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স অ্যাপ্লায়েন্স জিতে নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

অনলাইনে গরুর ক্রেতা ও ঢাকা যাত্রাবাড়ির বাসিন্দা আমিনুল ইসলাম শাহিন বলেন, ভিড় ঠেলে কাঁদা মাড়িয়ে কোরবানির হাটে গিয়ে পশু কিনতে ভোগান্তি পোহাতে হয়। গত বছর অনলাইনের মধ্যেমে পশু খুব স্বাচ্ছন্দে কোরবানির গরু কিনেছিলাম। এবারও একইভাবে পশু কেনার পরিকল্পনা রয়েছে।

ঢাকা সাভারের গরু ব্যবসায়ী সেলিম ব্যাপারি জানান, গরুর হাটে সাধারণ পশুগুলোকে উঁচুতে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। এ কারণে ছোট গরুও অনেক বড় দেখায়। কিন্তু ফার্মে এ সুযোগ নেই। আমাদের একটি ঠিকানা আছে। অনলাইনে বিজ্ঞাপন দেখে ক্রেতারা সরাসরি ফার্মে চলে আসেন। কিন্তু হাট থেকে একবার গরু কিনে নেয়ার পর বিক্রেতাদের আর খুঁজে পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। ক্রেতা জানবেও না যে গরুটিকে কী খাওয়ানো হয়েছে। কিন্তু কেউ ফার্মে গরু কিনতে আসলে তিনি দেখতে পারেন গরুকে কী খাওয়ানো হচ্ছে। তিনি আরও জানান, কেউ আগেভাগে সাশ্রয়ী মূল্যে গরু কিনে আমাদের ফার্মে রাখতে পারে। চাইলে ওই ক্রেতাকে কুরবানির আগে ডেলিভারি দেয়া হয়। একটি ষাঁড় বিক্রির জন্যে ছবিসহ পোস্ট দিয়েছেন। গরুটির দাম চাওয়া হয়েছে ১০ লাখ টাকা।

মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেডের হেড অব ব্র্যান্ড অ্যান্ড কমিউনিকেশনস কেএমজি কিবরিয়া বলেন, গত বছরের চেয়ে আসন্ন কোরবানিতে আমরা গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রচুর সাড়া পেয়েছি। গ্রাহকদের জন্য বেশিসংখ্যক কোরবানির পশু নিয়ে এসেছি। গ্রহকের চাহিদা বৃদ্ধির পাশাপাশি আমাদের সেবার মান উন্নত করতে সচেষ্ট থাকি। গ্রাহক ছাড়াও আমাদের প্লাটফর্ম থেকে হাজার হাজার বিক্রেতা উপকৃত হয়ে থাকে।

রুপাসদি গ্রীন এগ্রো ফার্মের পরিচালক নাসিম বর্ণ বলেন, আমাদের মূল লক্ষ্যে ভেজালমুক্ত সম্পূর্ণ অর্গানিক পশু প্রস্তুত করা। এতে হয়তো আমাদের ব্যবসায় লাভ কম হবে, তবুও মানুষ যেন ভালো পশুটি কোরবানি দেয়। কোরবানি উপলক্ষ্যে আমাদের খামারে রয়েছে প্রায় ২০টির মতো সম্পূর্ণ দেশি গরু।

বিদেশে পড়াশোনা করে দেশে এসেছে কয়েকজন বন্ধুদের নিয়ে তিনি গড়ে তোলেন এই ফার্ম। এক বছরের ব্যবধানে এখন সে গ্রামেই ৬টি খামার গড়ে উঠেছে।

অনলাইনে রুপাসদি গ্রীন এগ্রোর তথ্য পেতে: https://www.facebook.com/rupasdi.greenagro

পূর্বপশ্চিমবিডি

Facebook Comments
Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



উপদেষ্টা – আনোয়ার হোসেন জীবন, উপশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

উপদেষ্টা – মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, সাবেক ঢাকা মহানগর উত্তরঃ (দপ্তর সম্পাদক)

সম্পাদক ও প্রকাশক :মো সেলিম আহম্মেদ

ভারপ্রাপ্ত,সম্পাদক : মোঃ আতাহার হোসেন সুজন

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদকঃ মো: শফিকুল ইসলাম আরজু

নির্বাহী সম্পাদকঃ আনিসুল হক বাবু

সহযোগী সম্পাদকঃ মোঃ ফারুক হোসেন

বার্তা সম্পাদক :এ.এইচ.এম.শাহ্জাহান

বিশেষ প্রতিনিধি:মাকসুদা লিসা

 

 

 

১১২৫ পূর্ব মনিপুর , মিরপুর -২ ঢাকা -১২১৬

ই-মেইল : dhakacrimenewsbd@gmail.com

মোবাইল : ০১৫৩৫১৩০৩৫০

Design & Developed BY ThemesBazar.Com